Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার ২৩ এপ্রিল ২০১৯, ১০ বৈশাখ ১৪২৬, ১৬ শাবান ১৪৪০ হিজরী।

যুক্তরাষ্ট্র কুর্দি বিদ্রোহীদের সুরক্ষা দিতে চায় : ট্রাম্প

দেয়াল নির্মাণে অর্থ বরাদ্দ না পেলে সরকারের অচলাবস্থা কাটছে না

ইনকিলাব ডেস্ক : | প্রকাশের সময় : ৪ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:০২ এএম

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, তার দেশ সিরিয়ার কুর্দি বিদ্রোহীদের সুরক্ষা দিতে চায়। কিন্তু তাই বলে সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলে মার্কিন বাহিনী চিরদিনের জন্য মোতায়েন থাকতে পারে না। বুধবার সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এমন মন্তব্য করেন। এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে তুরস্কভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আনাদোলু এজেন্সি। অপরদিকে, যুক্তরাষ্ট্রে শাট ডাউন বা সরকারের অচলাবস্থা আরও দীর্ঘায়িত হওয়ার আভাস দিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। বুধবার আবারও তিনি আভাস দিয়েছেন যে, মেক্সিকো সীমান্তে দেয়াল নির্মাণে অর্থ বরাদ্দ না পেলে সরকারের অচলাবস্থা সহসাই কাটবে না। বরাদ্দ না পেলে যুক্তরাষ্ট্র-মেক্সিকো সীমান্ত পুরোপুরি বন্ধেরও হুমকি দিয়েছেন তিনি। ২২ ডিসেম্বর থেকে শাট ডাউন বা সরকারের অচলাবস্থার পড়েছে মার্কিন প্রশাসনের একাংশ। অর্থ বরাদ্দ নিশ্চিত না হওয়ায় বাধ্যতামূলক ছুটি বা বেতন ছাড়াই কাজ করতে বাধ্য হচ্ছেন লাখ লাখ সরকারি কর্মী। ডোনাল্ড ট্রাম্পকুর্দি ওয়াইপিজি/ পিকেকে বিদ্রোহীদের সুরক্ষার কথা বললেও একইসঙ্গে তাদের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিপক্ষ ইরানের কাছে তেল বিক্রিরও অভিযোগ তোলেন ট্রাম্প। তিনি বলেন, আমাদের কুর্দি অংশীদার ওয়াইপিজি ইরানের কাছে তেল বিক্রি করছে। এটা যুক্তরাষ্ট্রের জন্য কোনও রোমাঞ্চকর বিষয় নয়। কিন্তু তারপরও আমরা তাদের সুরক্ষা দিতে চাই। তবে আমি চিরদিনের জন্য সিরিয়ায় মার্কিন উপস্থিতি চাই না। এদিকে সিরিয়া থেকে মার্কিন বাহিনী প্রত্যাহারের ট্রাম্পের ঘোষণার পরও সিরিয়ার মানবিজে টহল দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক বাহিনীর সদস্যরা। মানবিজের রাস্তায় টহল দিচ্ছে মার্কিন সাঁজোয়া যান। ট্রাম্প অবশ্য বলেছেন, সেনা প্রত্যাহারে তার দেশ তাড়াহুড়া করবে না। ধীরে সুস্থে সেনাদের সিরিয়া থেকে ফিরিয়ে নেওয়া হবে। রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সিরিয়ার তুরস্ক সীমান্তবর্তী মানবিজের আকাশে এখন যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বাধীন বাহিনীর আকাশযানগুলোর তৎপরতা দৃশ্যমান হতে পারে। মিডল ইস্ট আই, আল-জাজিরা।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ