Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার ২৬ জুন ২০১৯, ১২ আষাঢ় ১৪২৬, ২২ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

পূজারার চারে তিন

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৪ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:০২ এএম

অ্যাডিলেইড, মেলবোর্ন হয়ে সিডনি। আরেকটি টেস্ট, চেতেশ্বর পুজারার আরও একটি সেঞ্চুরি। উইকেটে গেলেন দিনের দ্বিতীয় ওভারে, দিন শেষে মাঠ ছাড়লেন অপরাজিত থেকে। তার আরেকটি অসাধারণ সেঞ্চুরিতে সিডনি টেস্টের প্রথম দিনটি ভারত করে নিল নিজেদের। সিরিজের তৃতীয় সেঞ্চুরি করে পুজারা অপরাজিত ১৩০ রানে। সিডনিতে চতুর্থ টেস্টের প্রথম দিনে গতকাল ভারত করেছে ৪ উইকেটে ৩০৩ রান।
পুজারার ইনিংসটি ছিল তার চেনা ব্যাটিংয়েই। শুরুতে সময় নিয়েছেন অনেক। কেড়ে নিয়েছেন বোলারদের জীবনীশক্তি। মিইয়ে দিয়েছেন প্রতিপক্ষকে। সেসব কাজে লাগিয়ে গড়ে তুলেছেন ইনিংস, বাড়িয়েছেন রান। টস জিতে ব্যাটে নামা ভারত ম্যাচের দ্বিতীয় ওভারে হারায় লোকেশ রাহুলকে। সিরিজে আগের চার ইনিংস মিলিয়ে ৪৮ রান করা ওপেনার এবার ৯ রান করে জশ হেইজেলউডের বলে সহজ ক্যাচ দিয়েছেন প্রথম ¯িøপে। শুরুর সাফল্যে উজ্জীবিত অস্ট্রেলিয়া ধীরে ধীরে নেতিয়ে পড়ে পুজারার ব্যাটিং দৃঢ়তায়। তাকে দারুণ সঙ্গ দেন দ্বিতীয় টেস্ট খেলতে নামা মায়াঙ্ক আগারওয়াল। দ্বিতীয় উইকেটে ১১৬ রানের জুটি গড়েন দুজন।

আগের টেস্টে অভিষেক ইনিংসে ৭৬ রান করা মায়াঙ্ক সেঞ্চুরির আশা জাগিয়েছিলেন আবার। কিন্তু ৭ চার ও ২ ছক্কায় ৭৭ করে আউট হয়েছেন নাথান লায়নের বলে। মিডল অর্ডারে বিরাট কোহলি ও অজিঙ্কা রাহানের বছরের শুরু করতে পারেননি বড় কিছু দিয়ে। তবে পুজারা বয়ে চলেছেন আগের বছরের সাফল্যের ¯্রােতেই। যথারীতি শৃঙ্খলা ও নিবেদনের দুর্দান্ত নজির ছিল তার ইনিংস। অফ স্টাম্প ও স্টাম্পের বাইরে পাওয়া প্রথম ৫০ বলে কেবল তিনটিতেই ড্রাইভ করেছিলেন। বেশিরভাগই ছেড়েছেন বা থামিয়েছেন। ফিফটি ছুঁয়েছেন ১৩৪ বলে।
অস্ট্রেলিয়ান বোলাররা ক্লান্ত হয়ে ওঠার পর বেড়েছে পুজারার রানের গতি। ৬৫ বলেই করেছেন পরের পঞ্চাশ। ক্যারিয়ারের ১৮তম সেঞ্চুরি, উদযাপনও ছিল তার ব্যাটিংয়ের মতোই সৌম্য। কোহলি ও রাহানের সঙ্গে পুজারার জুটি থেমেছে ফিফটির আশেপাশে। শেষ সেশনে হনুমা বিহারীকে নিয়েও পুজারা গড়েছেন আরেকটি সম্ভাবনাময় জুটি। দিন শেষে অবিচ্ছিন্ন যে জুটির রান ৭৫।
আগের টেস্টে ওপেনিংয়ে ব্যর্থ হওয়ার পর এবার মিডল অর্ডারে ফিরে বিহারি অপরাজিত আছেন ৩৯ রানে। পুজারা ক্যারিয়ারে প্রথমবার পেরিয়ে গেছেন এক সিরিজে সাড়ে চারশ রান। ক্যারিয়ারে প্রথমবার কোনো সিরিজে বল খেললেন এগারোশর বেশি। দিন শেষে অপরাজিত তিনি ২৫০ বলে ১৩০ রান করে।

ভারত ১ম ইনিংস : ৯০ ওভারে ৩০৩/৪ (মায়াঙ্ক ৭৭, রাহুল ৯, পুজারা ১৩০*, কোহলি ২৩, রাহানে ৯, বিহারি ৩৯*; স্টার্ক ১/৭৫, হেইজেলউড ২/৫১, কামিন্স ০/৬২, লায়ন ১/৮৮, লাবুশেন ০/২৫)।

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ক্রিকেট


আরও
আরও পড়ুন