Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৯ ফাল্গুন ১৪২৫, ১৫ জামাদিউস সানি ১৪৪০ হিজরী।

কুষ্টিয়ায় আ.লীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষে নিহত ১

কুষ্টিয়া থেকে স্টাফ রিপোর্টার : | প্রকাশের সময় : ৭ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:০২ এএম

কুষ্টিয়া সদর উপজেলায় পূর্ব বিরোধের স্থানীয় আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষের মধ্যে এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। গতকাল রোববার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার আব্দালপুর ইউনিয়নের আব্দালপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে বলে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) থানার ওসি রতন সেখ জানান।

নিহত মঈনুদ্দিন বিশ্বাস (৫৭) বাড়ি ওই এলাকায়। তিনি কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক কমিটির নেতা জুয়েল রানা হালিমের বাবা এবং সদর উপজেলার আব্দালপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আলী হায়দার স্বপনের চাচাতো ভাই।আব্দালপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফার সঙ্গে স্বপনের বিরোধের জেরে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে বলে স্থানীয়রা জানান। তারা বলেন, গোলাম মোস্তফার নের্তৃত্বে তার কয়েকশ কর্মী সমর্থক দেশীয় অস্ত্র ও লাঠিসোটা নিয়ে স্বপনের বাড়িতে হামলা চালায়। এ সময় দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে।
এ সময় মঈনুদ্দিন ও তার লোকজন হামলাকারীদের বাধা দিতে গেলে মঈনুদ্দিনকে কুপিয়ে জখম করা হয়। তাকে উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন। স্বপন গত ইউপি নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থীকে পরাজিত করে নির্বাচিত হন।
ওসি রতন বলেন, এলাকায় আধিপত্য বিস্তারের জেরে দীর্ঘদিন ধরেই স্বপন ও গোলাম মোস্তফার মধ্যে বিরোধ চলছিল। এর জেরে এ হামলার ঘটনা ঘটে থাকতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে জেলার পুলিশ সুপার এস এম তানভির আরাফাত সাংবাদিকদের বলেন, বর্তমানে পরিস্থিতি এখন নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। নতুন কোনো ঝামেলা এড়াতে ঘটনাস্থলে বাড়তি পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ