Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার ২২ জুলাই ২০১৯, ০৭ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৮ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।
শিরোনাম

নতুন মন্ত্রিসভায় ক্রীড়াঙ্গনের ৯ মুখ

জাহেদ খোকন | প্রকাশের সময় : ৮ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:০২ এএম

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়ে নির্বাচন করেছিলেন দেশের ক্রীড়াঙ্গনের ১৮ পরিচিত মুখ। এদের মধ্যে কেউ সাবেক বা বর্তমান খেলোয়াড়, কেউবা স্বনামধন্য ক্রীড়া সংগঠক। এই তালিকার সবাই নির্বাচনে নৌকা প্রতীক নিয়ে জয়লাভ করে বর্তমানে সংসদ সদস্যের মর্যাদা পেয়েছেন। যাদের মধ্য থেকে আবার ৯ জন জায়গা পেয়েছেন সদ্য নির্বাচিত আওয়ামী লীগ সরকারের নতুন মন্ত্রী সভায়। যে মন্ত্রী সভার প্রধান চারবারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজেও একজন ক্রীড়াপ্রেমী। জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর রোববার ঘোষণা করা হয় প্রধামন্ত্রীসহ ৪৭ সদস্যের নতুন মন্ত্রিসভার। যেখানে ক্রীড়াঙ্গনের ৪ পরিচিত মুখ পান পূর্ণ মন্ত্রীত্ব। আর ৫ জন পেয়েছেন প্রতিমন্ত্রীর দফতর। এরা হলেন- ওবায়দুল কাদের, আ হ ম মুস্তফা কামাল, গোলাম দস্তগীর গাজী ও বীর বাহাদুর উশৈসিং (মন্ত্রী)। জাহিদ আহসান রাসেল, কামাল আহমেদ মজুমদার, মো: শাহরিয়ার আলম, নসরুল হামিদ বিপু ও জুনাইদ আহমেদ পলক (প্রতিমন্ত্রী)। নিয়োগপ্রাপ্ত মন্ত্রী সভার সদস্যরা গতকাল বিকেলে বঙ্গভবনে শপথ নিয়েছেন।
নতুন মন্ত্রিসভা গঠনের আগে ক্রীড়াঙ্গনের কৌতূহল ছিল- কে হচ্ছেন এই অঙ্গনের নতুন প্রধান? ওয়ানডে ক্রিকেট দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা প্রথমবারের মতো সংসদ সদস্য নির্বাচিত হওয়ায় অনেকের প্রত্যাশা ছিল মন্ত্রিসভায় তিনি থাকবেন। সরকারের আগের মেয়াদে পুরোটা সময় ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী থাকা বীরেন শিকদার ও উপমন্ত্রী সাবেক ফুটবলার আরিফ খান জয়ের মধ্যে আলোচনায় ছিলেন শুধু বীরেন। কারণ নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন না পেয়ে জয় আগেই ছিটকে পড়েন। বীরেন ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব না পেলেও অন্য কোনো মন্ত্রণালয় পাবেন- এমন আশা ছিল অনেকেরই। কিন্তু তা আর হয়নি। নতুন মন্ত্রী সভার তালিকায় নেই বীরেন শিকদার। তবে ক্রীড়াঙ্গনে একেবারে নতুন কাউকে যে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে তা কিন্তু নয়। গাজীপুর-২ আসন থেকে পরপর চারবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত জাহিদ আহসান রাসেল দেশের ক্রীড়াঙ্গনে বেশ পুরনো মুখ। নতুন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব তাকেই দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সরকারের এই মেয়াদে এবার এখানে কোনো উপমন্ত্রী রাখা হয়নি। রাসেল বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সরকারের আগের দুই মেয়াদে ছিলেন যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি। নিজ দায়িত্ব গেল দশবছর বিচক্ষণতার সঙ্গেই পালন করেছেন তিনি।
বিদায়ী ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বীরেন শিকদার মন্ত্রিসভা থেকে ঝরে পড়লেও বহাল আছেন আরেক সাবেক ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। নোয়াখালী-৫ আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের এই সাধারণ সম্পাদক। তাকে আগের মতো এবারো সড়ক ও সেতু মন্ত্রীর দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।
নির্বাচিত নতুন সরকারের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পেয়েছেন ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি) ও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সাবেক সভাপতি এবং ঢাকা আবাহনী লিমিটেডের পরিচালক আ হ ম মুস্তফা কামাল। তাকে অর্থ মন্ত্রণালয়ে পূর্ণ মন্ত্রী বানানো হয়েছে। এর আগে তিনি ছিলেন পরিকল্পনা মন্ত্রী। পূর্ণ মন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছেন নারায়ণগঞ্জ-১ আসন থেকে নির্বাচিত সাংসদ গোলাম দস্তগীর গাজী। বিসিবি’র সাবেক পরিচালক ও ঢাকা মেরিনার ইয়াংস ক্লাবের সভাপতি গোলাম দস্তগীর গাজী পেয়েছেন পাট ও বস্ত্র মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব। প্রথমবারের মতো মন্ত্রী হয়েছেন তিনি। আরো দু’জন ক্রীড়া সংগঠক প্রথমবারের মতো মন্ত্রিসভায় জায়গা পেয়েছেন। এরা হলেন- বান্দরবান থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য বীর বাহাদুর উশৈসিং এবং ঢাকা-১৫ থেকে নির্বাচিত কামাল আহমেদ মজুমদার। বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সাবেক সহ-সভাপতি বীর বাহাদুর পেয়েছেন পার্বত্য চট্টগ্রামবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের পূর্ণ মন্ত্রীত্ব। আর বাংলাদেশ অ্যাথলেটিক ফেডারেশনের সাবেক সভাপতি কামাল মজুমদার পেয়েছেন শিল্প মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব।
বাংলাদেশ টেনিস ফেডারেশনের সভাপতি, হকি ফেডারেশনের সাবেক সহ-সভাপতি ও ঢাকা আবাহনীর পরিচালক মো: শাহরিয়ার আলম এবারো পেয়েছেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর দফতর। সাবেক হকি খেলোয়াড়, ঢাকা আবাহনীর পরিচালক ও ঢাকা-৩ আসন থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য নসরুল হামিদ বিপুকে দ্বিতীয়বারের মতো দেয়া হয়েছে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব। নাটোর-৩ আসন থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য জুনাইদ আহমেদ পলক আবার পেয়েছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব। তিনি বাংলাদেশ ক্যারম ফেডারেশনের সভাপতি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন