Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৭ ফাল্গুন ১৪২৫, ১৩ জামাদিউস সানি ১৪৪০ হিজরী।

প্রধানমন্ত্রীর বিশ্বাস ও আস্থার মর্যাদা রক্ষা করব

সচিবালয়ে শিক্ষামন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৯ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:০২ এএম

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যে বিশ্বাস ও আস্থা নিয়ে আমাদের (শিক্ষামন্ত্রী ও উপমন্ত্রী) দায়িত্ব দিয়েছেন সেই বিশ্বাস ও আস্থার মর্যাদা রক্ষায় কাজ করার কথা বলেছেন নবনিযুক্ত শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। তিনি বলেন, সরকার গত ১০ বছরে বিরাট সাফল্য অর্জন করেছে সেই সফলতাগুলোকে আরও সুসংহত করা এবং যেখানে পরিবর্তন, পরিবর্ধন করা প্রয়োজন যা কিছু করা প্রয়োজন তা করা হবে। গতকাল (মঙ্গলবার) দুপুরে সচিবালয়ে নিজের দপ্তরে এসে তিনি এসব কথা বলেন। এসময় তার সাথে ছিলেন নবনিযুক্ত শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল।
শিক্ষামন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগের নির্বাচনী ইশতেহার পুরোপুরি বাস্তবায়ন করতে, শিক্ষাখাতের প্রতিশ্রুতিগুলো পূরণ করতে এবং শিক্ষার মানোন্নয়নে সরকারের উদ্যোগগুলো নিয়ে কাজ চলছে। সেই কাজ আরও এগিয়ে নিতে তারা কাজ করবেন। আমি ও নওফেল (উপমন্ত্রী) ষোলোআনাই রাজনীতির মানুষ, আমরা গণমানুষের রাজনীতি করি। দলের ভেতরেও আমরা সহযোদ্ধা ও একই জায়গায় কাজ করি। আমরা দলের মধ্যেও ভালো টিম। শিক্ষার মত এত গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় আমরা টিম হিসেবে কাজ করব এবং সকলের সহযোগিতার মধ্য দিয়ে জনগণের প্রত্যাশা পূরণের চেষ্টা করব। শিক্ষার ক্ষেত্রে মানোন্নয়নে একযোগে কাজ করব। দীপু মনি বলেন, দলের নির্বাচনী ইশতেহারে যে ২১টি অঙ্গীকার করা হয়েছে তার মধ্যে শিক্ষার মানোন্নয়নের বিষয়টি অন্যতম। শিক্ষাকে আমরা কত গুরুত্ব দিয়ে দেখছি সেটি তো গত বছরগুলোতে আপনারা দেখেছেন। (প্রশ্ন ফাঁস নিয়ে) চ্যালেঞ্জ শুধু বাংলাদেশেই নয়, সারা বিশ্বেই চ্যালেঞ্জ রয়েছে। সেই সমস্ত চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় আমরা আমাদের সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালাব।
সাংবাদিকদের উদ্দেশে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, স্বচ্ছতা, জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে গেলে আমাদের দুজন বা দুজন সচিবের চোখ-কান যথেষ্ট না, সেখানে আপনাদেরও (সাংবাদিক) সহযোগিতা আমরা চাই, এবং আমরা আশা করি আপনাদের সহযোগিতাও আমরা পাব। আপনারা আপনাদের চোখ-কানগুলো খোলা রাখবেন, আমাদের সহযোগিতা করবেন, যেন আমরা সঠিকভাবে কাজটি করতে পারি।
উপমন্ত্রী মন্ত্রী নওফেল বলেন, বিগত নির্বাচনের পরে বঙ্গবন্ধু কন্যা, শেখ হাসিনা একটি মন্তব্য করেছিলেন, আমরা সেই মানসিকতা নিয়ে এসেছি। তিনি বলেছিলেন, ক্ষমতা নয় দায়িত্ব এবং সেই দায়িত্বশীল আচরণ আমরা সকলেই করব। অন্তত আপাতত আমরা এই মন্ত্রণালয়ে এসে প্রথমেই সেই অঙ্গীকারটি করতে চাই।#



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: শিক্ষামন্ত্রী


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ