Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১০ ফাল্গুন ১৪২৫, ১৬ জামাদিউস সানি ১৪৪০ হিজরী।
শিরোনাম

ঢাকার রেকর্ড জয়ে উড়ে গেল খুলনা

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৯ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:০২ এএম

প্রথম ম্যাচে জয়ের খুব কাছে গিয়েও হেরে বসা খুলনা টাইটান্স নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে লড়াইটাও করতে পারল না। মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের দলকে ১০৫ রানের বিশাল ব্যবধানে উড়িয়ে বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগে (বিপিএল) টানা দ্বিতীয় জয় তুলে নিয়েছে সাকিব আল হাসানের ঢাকা ডায়নামাইটস। সেই সঙ্গে বিপিএলে রানের হিসাবে দ্বিতীয় বড় জয়ের রেকর্ড গড়ল ঢাকা। ২০১৩ সালের বিপিএলে সিলেট রয়্যালসের বিপক্ষে চিটাগং কিংসের ১১৯ রানের জয়টিই সবচেয়ে বড় ব্যবধানের রেকর্ড।
মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে গতকালও টস জিতে বল বেছে নেন খুলনা অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ। সিদ্ধান্তটা যে ঠিকমত কাজে লাগেনি তা প্রমাণ করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৬ উইকেটে তোলা ঢাকার ১৯২ রানের বিশাল সংগ্রহ। যে সংগ্রহ তাড়া করতে গিয়ে ১৩ ওভারে মাত্র ৮৭ রানে মুখ থুবড়ে পড়ে তার দল। শেষ ৪ রান যোগ করতে গিয়ে ৪ উইকেট হারায় খুলনা।
বিশাল লক্ষ্যে সাকিবের করা দ্বিতীয় ওভারেই পল স্টার্লিংকে হারায় খুলনা। তবে অপর প্রান্তে লড়াইয়ের আভাস দিচ্ছিলেন আরেক ওপেনার জুনায়েদ সিদ্দিক। কিন্তু পাওয়ার প্লের আগে তাকে সহ তিন উইকেট হারিয়ে কাজটা কঠিন করে ফেলে টাইটান্স। ১৬ বলে ৩ ছক্কায় ৩১ রান করা জুনায়েদকে তুলে নেন সাকিব। দলকে ধ্বংসস্তুপে রেখে ৭ বলে ৮ রান করে শুভাগত হোমের বলে বিদায় নেন মাহমুদউল্লাহ। বাকিরাও ছিলেন ধারাবাহিকভাবে ব্যর্থ। ১৯ বলে আরিফুল হকের অপরাজিত ১৯ রান কোন কাজে লাগেনি। ৩ ওভারে ১৮ রানে ৩ উইকেট নেন সাকিব। ২ উইকেট নেন সুনীল নারাইন। দুজন হন রান আউটের শিকার।
এর আগে ‘দশে মিলে’ বিশাল সংগ্রহ গড়ে ঢাকা। ৫ ওভারে নারাইন-হজরতউল্লাহ জাজাইয়ের উদ্বোধনী জুটি থেকে আসে ৬৭ রান। ১৪ বলে নারাইন ১৯ বলে ফিরলেও এদিনও ৩৬ বলে ৩ চার ও ৫ ছক্কায় ৫৭ রানের ম্যাচসেরা ইনিংস উপহার দিয়ে যান আফগান ওপেনার জাজাই। এছাড়া রনি তালুকদারের ১৮ বলে ২৮, কায়রন পোলার্ডের ১৬ বলে ২৭ ও আন্দ্রে রাসেলের ২২ বলে ২৫ রানের কার্যকারী ইনিংসে জয়ের ভীত পেয়ে যায় রাজধানীর দলটি।
দারুণ স্পিনে ১ ওভারে মাত্র ২ রানের খরচায় মারকুটে জাজাই ও সাকিবের উইকেট তুলে নেওয়া স্টার্লিংকে আর বোলিংয়ে আনেননি মাহমুদউল্লাহ। দক্ষিণ আফ্রিকান বোলার ডেভিড ওয়াইজ ২৪ রানে নেন ২ উইকেট। শেষদিকে কিছুটা নিয়ন্ত্রিত বল করে ঢাকার সংগ্রহটা দুই’শ পেরুতে দেয়নি ওয়াইজ। আলি খান ৩ ওভারে ২৬ রানে ১ উইকেট নিয়ে আহত হয়ে মাঠ ছাড়েন। পরে তিনি ব্যাট করতে পারেননি।
বোলিং হয়েছে ছন্নছাড়া। ফিল্ডিংয়ে পড়েছে একাধিক ক্যাচ। ব্যাটিংটা হয়েছে আরো বাজে। সব মিলে এটিকে ¯্রফে বাজে একটি দিন হিসেবে দেখছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, ‘আমরা ব্যাটিং করতে পারিনি... বোলিংয়েও ছিলাম ম্লান। স্কোরবোর্ডে রান তাড়ার চাপ ছিল, কিন্তু কোন কার্জকরী জুটি গড়তে পারিনি। আপনি যখন ১৯৩ রানের বিশাল সংগ্রহ তাড়া করতে নামবেন, আপনাকে পাওয়ার প্লের সুবিধা কাজে লাগাতে হবে উল্টো ওই সময় আমরা ৩ থেকে ৪টি উইকেট হারিয়েছি।’ নিজেদের খামতির পাশাপাশি প্রতিপক্ষের শক্তিও চোখে পড়েছে খুলনা অধিনায়কের, ‘ঢাকার ব্যাটসম্যানরা দারুন করেছে। বিশেষ করে তারা উইকেটের সঠিক ব্যবহার করতে পেরেছে। যেটা আমরা পারিনি।’
ম্যাচ শেষে দলের প্রতিনিধি হয়ে সংবাদ সম্মেলনে আসা দক্ষিণ আফ্রিকান অলরাউন্ডার ডেভিড ভিসের কণ্ঠও মিলে গেলে মাহমুদউল্লাহর সঙ্গে, ‘সব দিক থেকেই আজকের (গতকালের) দিনটা ছিল হতাশার। বোলিংয়ে আমরা নিজেদের পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করতে পারিনি। ফিল্ডিংয়ে আমরা বেশ কিছু সুযোগ নষ্ট করেছি। ১৯০ রান তাড়া করা সব সময়ই কঠিন। আমাদের শুরুটা ভালো করা দরকার ছিল এবং পুরো ম্যাচে সেটা ধরে রাখতে হতো। প্রথম ম্যাচে আমাদের পারফরম্যান্স ভালো ছিল এবং ইতিবাচক অনেক কিছু ছিল। কিন্তু আজকের দিনটা ছিল বাজে। যেটি ভুলে যাওয়া দরকার। আগামীকাল আমরা রাতে খেলব। সুযোগটা আমারা নিতে চাই।’
ঢাকার টানা দুই জয়ের বীপরিতে টানা দুই হারের এই গন্ডি ভাঙার সুযোগ পাচ্ছে খুলনা। আজ তৃতীয় ম্যাচে তাদের প্রতিপক্ষ রাজশাহী কিংস।
সংক্ষিপ্ত স্কোর
ঢাকা ডায়নাইমাটস : ২০ ওভারে ১৯২/৬ (জাজাই ৫৭, নারাইন ১৯, রনি ২৮, সাকিব ০, পোলার্ড ২৭, রাসেল ২৫, শুভাগত ১১*, সোহান ৯*; আলি ৩-০-২৬-১, শরিফুল ৩-০-৫০-০, ভিসা ৪-০-২৪-২, মাহমুদউল্লাহ ৩-০-২৬-১, জহির ৪-০-৩৫-০, স্টার্লিং ১-০-২-২, তাইজুল ২-০-১৯-০)।
খুলনা টাইটানস : ১৩ ওভারে ৮৭ (স্টার্লিং ১, জুনায়েদ ৩১, জহুরুল ১, মাহমুদউল্লাহ ৮, শান্ত ১৩, আরিফুল ১৯*, ভিসা ৬, তাইজুল ২, শরিফুল ০, জহির ০, আলি (আহত অনুপস্থিত); রাসেল ২-০-৯-০, সাকিব ৩-০-১৮-৩, নারাইন ৩-০-২০-২, রুবেল ২-০-২২-০, শুভাগত ১-০-৪-১, মোহর ২-০-১৩-১)।
ফল : ঢাকা ডায়নামাইটস ১০৫ রানে জয়ী।
ম্যান অব দ্য ম্যাচ : হজরতউল্লাহ জাজাই (ঢাকা)।



 

Show all comments
  • aaaaaaaa ৯ জানুয়ারি, ২০১৯, ৩:৪৭ পিএম says : 0
    aaaaaaaaaaa
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ক্রিকেট

২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ