Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ২৩ জানুয়ারি ২০১৯, ১০ মাঘ ১৪২৫, ১৬ জামাদিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী

কুর্দিদের সুরক্ষায় যুক্তরাষ্ট্রের অনুরোধ মানবে না তুরস্ক

ইসরাইলের হয়ে শর্ত দিয়ে বোল্টন ভুল করেছেন : এরদোগান

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১০ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:০২ এএম

মার্কিন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জন বোল্টন সিরিয়ার ওয়াইপিজি কুর্দি গেরিলাদের সুরক্ষা দেয়ার বিষয়ে তুরস্কের প্রতি যে শর্ত দিয়েছেন তা প্রত্যাখ্যান করেছেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েপ এরদোগান। এই শর্তের ব্যাপারে এরদোগান বলেছেন, এই বক্তব্য মূলত ইহুদিবাদী ইসরাইলের এবং আঙ্কারা তা গ্রহণ করবে না। এরদোগান আরো বলেছেন, ‘ইসরাইলের হয়ে বোল্টন এ ধরনের শর্ত দিয়ে বড় ভুল করেছেন এবং তুরস্কের কাছে তা কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়। এ ইস্যুতে আমরা কোনো আপোষ করতে পারব না। পিকেকে, ওয়াইপিজি, ওয়াইপিডি এবং আইএসের মধ্যে সামান্যতম পার্থক্য নেই।’ মঙ্গলবার রাজধানী আঙ্কারায় জাতীয় সংসদে নিজ দল জাস্টিস অ্যান্ড ডেভলপমেন্ট পার্টির এমপিদের উদ্দেশে দেয়া বক্তৃতায় এসব কথা বলেন এরদোগান। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সিরিয়া থেকে সেনা প্রত্যাহারের পরিকল্পনা জটিল করার জন্য বোল্টনকে অভিযুক্ত করেন এরদোগান। বোল্টন রবিবার ইসরাইল সফরের সময় সিরিয়া থেকে সেনা প্রত্যহারের বিষয়ে শর্ত আরোপ করে বলেন, কুর্দি ওয়াইপিজি গেরিলাদেরকে তুরস্কের পক্ষ থেকে নিরাপত্তার নিশ্চয়তা দিতে হবে। সেসময় তিনি এও বলেছিলেন যে, উত্তর সিরিয়া থেকে মার্কিন সেনারা সরে যাবে তবে কবে পুরো সিরিয়া থেকে সেনা প্রত্যাহার করা হবে তার কোনো সুনির্দিষ্ট সময়সীমা নেই। খবরে বলা হয়, সিরিয়া থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের পর দেশটির উত্তরাঞ্চলে ইসলামিক স্টেসের (আইএস) সঙ্গে লড়াই চালিয়ে যাওয়া কুর্দি যোদ্ধাদের নিরাপত্তার নিশ্চয়তা পেতে তুরস্ক সফর করছেন বোল্টন। কিন্তু তুরস্ক সরকার আইএস’র সঙ্গে লড়াইরত ওই কুর্দি ওয়াইপিজি যোদ্ধাদের সন্ত্রাসী হিসাবেই গণ্য করে। মঙ্গলবার নিজ দল ‘একে পার্টি’র এমপিদের এরদোয়ান বলেন, তুরস্ক বোল্টনের বার্তা ‘মেনে নিতে পারে না বা তার অনুরোধে ঢেঁকি গিলতে পারে না’। তিনি বলেন, “ওয়াইপিজি এবং কুর্দিদের অন্যান্য দলগুলো কী জিনিস তা আমেরিকানরা জানে না। যদি যুক্তরাষ্ট্র কুর্দিদের তাদের ভাই মনে থাকে তবে তারা মারাত্মক বিভ্রমের মধ্যে বাস করছে।” ‘আইএস পরাজিত হয়েছে’ বলে গত মাসে হঠাৎ করে সিরিয়া থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের ঘোষণা দেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তবে গত সপ্তাহে ইসরালে ও তুরস্ক সফরকালে বোল্টন সিরিয়া থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের ক্ষেত্রে দুটো শর্ত জুড়ে দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, জঙ্গি গোষ্ঠী আইএস নির্মূল না হওয়া পর্যন্ত মার্কিন সেনারা সিরিয়ায় থাকবে। আর তুরস্ককেও যুক্তরাষ্ট্রের মিত্র কুর্দি বাহিনীর ওপর হামলা না চালানোর নিশ্চয়তা দিতে হবে। সিএনএন, রয়টার্স।



 

Show all comments
  • Billal Hosen ১০ জানুয়ারি, ২০১৯, ৯:২৯ এএম says : 0
    হজরত আব্দুল্লাহ ইবনে উমর রাজি. থেকে বর্ণিত, মহানবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ইরশাদ করেছেন, এক মুসলমান অপর মুসলমানের ভাই। তাই সে তার ভাইয়ের ওপর জুলুম করতে পারে না। তার ভাইকে কোনো শত্রুর হাতে তুলে দিতে পারে না। যে ব্যক্তি তার ভাইয়ের কোনো প্রয়োজন পূরণ করে দেয়, মহান আল্লাহ তার প্রয়োজন পূরণ করে দেন। যে ব্যক্তি কোনো মুসলমানের একটি বিপদ বা কষ্ট দূর করে দেয়, মহান আল্লাহ তার কিয়ামতের বিপদসমূহ থেকে একটি বিপদ দূর করে দেবেন। আর যে ব্যক্তি কোনো মুসলমানের দোষত্রুটি ঢেকে রাখবে, আল্লাহ কিয়ামতের দিন তার দোষ-ত্রুটি ঢেকে রাখবেন। (সহিহ বুখারি ও সহিহ মুসলিম)
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ