Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার ২০ মে ২০১৯, ০৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ১৪ রমজান ১৪৪০ হিজরী।

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে ৫০ কিলোমিটার যানজট

দাউদকান্দি (কুমিল্লা) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১০ জানুয়ারি, ২০১৯, ১১:১৬ এএম

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে ৫০ কিলোমিটারজুড়ে ভয়াবহ যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। এতে যাত্রীরা পড়েছেন চরম দুর্ভোগে।

বৃহস্পতিবার কাঁচপুর ব্রিজ থেকে কুমিল্লার দাউদকান্দির রামপুর পর্যন্ত প্রায় ৫০ কিলোমিটারজুড়ে ভয়াবহ যানজট দেখা যায়। কুমিল্লা থেকে ঢাকা যেতে দুই ঘণ্টার রাস্তায় সময় লাগছে ১০-১২ ঘণ্টা।

এদিকে অনেকেই দীর্ঘ যানজটে আটকে অতিষ্ঠ হয়ে ওঠেন। শীতের রাতে যানজটে আটকেপড়া যাত্রীদের পোহাতে হচ্ছে সীমাহীন দুর্ভোগ। বিশেষ করে বৃদ্ধ, নারী ও শিশুরা বেশি ভোগান্তিতে পড়েছেন।

ভুক্তভোগী যাত্রীরা জানান, মঙ্গলবার রাতে এ যানজট শুরু হয়। আজও যানজটে পড়া যানবাহনের গতি ছিল খুবই কম। এতে ভোগান্তিতে পড়েন যাত্রীরা।

এ বিষয়ে দাউদকান্দি হাইওয়ে পুলিশের ওসি আবুল কালাম আজাদ জানান, যানজট নিরসনে পুলিশ কাজ করছে।

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের সোনারগাঁও উপজেলার মেঘনা টোল প্লাজা এলাকা থেকে মহাসড়কের দুই প্রান্তে ২০ কিলোমিটার তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়। মঙ্গলবার রাত থেকে সৃষ্ট যানজটে হাজার হাজার যাত্রীকে চরম দুর্ভোগে পড়তে হয়। বুধবার এ যানজট আরও ভয়াবহ আকার ধারণ করে। এ সময় অনেকে হেঁটে রওনা দেন। পরিবহন মালিক-শ্রমিক ও যাত্রীদের অভিযোগ, কাঁচপুর হাইওয়ে পুলিশের দায়িত্বহীনতা, বিকল যানবাহন দ্রুত না সরানো, ওজন স্কেল স্থাপন, টোল আদায়ে ধীরগতি যানজটের অন্যতম কারণ।

এ ছাড়া ৮ লেনের গাড়ি দুই লেনে চলাচল, অতিরিক্ত যানবাহনের চাপ, পরিবহন চাঁদাবাজদের বেপরোয়া চাঁদাবাজি, মেঘনা সেতু ও কাঁচপুর সেতু এলাকায় নতুন দুটি সেতুর কাজ পরিচালনা করার কারণে প্রতিদিন মেঘনা সেতু ও কাঁচপুর সেতু এলাকাসহ এর আশপাশের এলাকায় প্রতিনিয়ত যানজটের সৃষ্টি হয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: যানজট

২৫ এপ্রিল, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ