Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৪ জানুয়ারি ২০১৯, ১১ মাঘ ১৪২৫, ১৭ জামাদিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী

মুখের স্কোয়ামাস সেল ক্যান্সার

ডা. মোঃ ফারুক হোসেন | প্রকাশের সময় : ১১ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

স্কোয়ামাস সেল ক্যান্সার বা কারসিনোমা হলো স্কোয়ামাস সেল নামক এপিথেলিয়াল কোষের ক্যান্সার। আনুমানিক শতকরা ৯০ ভাগ মুখের ক্যান্সারই হলো স্কোয়ামাস সেল ক্যান্সার। অধিকাংশ ক্ষেত্রে ঠোঁট ও মুখগহŸরে স্কোয়ামাস সেল ক্যান্সার আরম্ভ হয়ে থাকে। ক্যান্সার সেল বা কোষ আরও গভীরে ছড়িয়ে পড়তে পারে যখন ক্যান্সার বিস্তৃতি লাভ করে। মুখের ক্যান্সার তখনই হয়ে থাকে যখন কোষের ডি.এন.এ এর মধ্যে ঠোঁটের অথবা মুখের কোষের পরিবর্তন বা মিউটেশন হয়ে থাকে। এ পরিবর্তন বা মিউটেশন ক্যান্সার কোষ জন্মাতে এবং বিভাজিত হতে সাহায্য করে থাকে যখন স্বাস্থ্যবান কোষগুলো মারা যায়। ক্যান্সার কোষগুলো জমা হয়ে একটি টিউমার গঠন করতে পারে। সময়ের সাথে সাথে ক্যান্সার সেল বা কোষ মুখের অন্যান্য অংশেও ছড়িয়ে পড়তে পারে। এছাড়া শরীরের মাথা ও ঘাড় ছাড়াও অন্যান্য অংশে ছড়িয়ে পড়তে পারে চিকিৎসা গ্রহণ না করলে।

ঠোঁট ও মুখগহŸরের স্কোয়ামাস সেল ক্যান্সারের কারণ ঃ ক) তামাক জাতীয় পদার্থ সেবন খ) মাত্রাতিরিক্ত এলকোহল সেবন গ) দীর্ঘসময় যদি সূর্যালোকে থাকা হয় ঘ) হিউম্যান প্যাপিওলোমা ভাইরাস দ্বারা সংক্রমিত হলে ঙ) মহিলাদের চেয়ে পুুরুষদের ঝুঁকি বেশী থাকে।
মুখের স্কোয়ামাস সেল ক্যান্সারের স্থান ঃ ক) চিবুকের অভ্যন্তরে বাক্কাল মিউকোসার ক্যান্সার। খ) মুখের ফ্লোরের ক্যান্সার গ) মাড়ির ক্যান্সার ঘ) ঠোঁটের ক্যান্সার ঙ) হার্ড প্যালেট ক্যান্সার চ) লালাগ্রন্থির ক্যান্সার ছ) জিহŸার ক্যান্সার।
মুখের স্কোয়ামাস সেল ক্যান্সার বেশি দেখা যায় ঠোঁট ও জিহŸার পাশে। সাধারণত ফোলাভাব অথবা আলসার হিসাবে দেখা যায় যা দেখতে সাদা, লাল, মিশ্র সাদা বা লাল। তিন সপ্তাহের বেশি এ ধরনের অবস্থা বিরাজ করলে তা গুরুত্বের সাথে বিবেচনায় আনতে হবে। স্কোয়ামাস সেল ক্যান্সারের রোগ নির্ণয় করা হয় বায়োপ্সির মাধ্যমে। স্কোয়ামাস সেল ক্যান্সার বা কারসিনোমার চিকিৎসা সার্জারি, রেডিওথেরাপি, কেমোথেরাপির মাধ্যমে করা হয়। কখন কোনটি করা হবে তা নির্ভর করে রোগীর অবস্থা এবং টিউমারের অবস্থান ও গতি প্রকৃতির উপর।

মুখ ও দন্তরোগ বিশেষজ্ঞ
মোবাইলঃ ০১৮১৭৫২১৮৯৭
ই-মেইলঃ dr.faruk@gmail.com



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ