Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার ২৩ এপ্রিল ২০১৯, ১০ বৈশাখ ১৪২৬, ১৬ শাবান ১৪৪০ হিজরী।

বালু বিক্রিতে সর্বনাশ

টাঙ্গাইল জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১১ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:০৩ এএম

টাঙ্গাইল সদর উপজেলার পোড়াবাড়ি ইউনিয়নের বাসাইদের চরে ধলেশ্বরী নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করে বিক্রি করছে প্রভাবশালী একটি মহল। সরকারি কোন অনুমোদন ছাড়াই দীর্ঘদিন ধরে ওই জায়গা থেকে দুটি বেকু দিয়ে কেটে বালু বিক্রি করা হচ্ছে। ফলে ধলেশ্বরী নদীর ওপর ব্রিজ, রাস্তা-ঘাট ও বসতবাড়ি হুমকির মুখে রয়েছে। স্থানীয়দের অভিযোগ- স্থানীয় প্রশাসনকে জানিয়েও কোন সুরাহা পায়নি তারা। বরং যিনি অভিযোগ করেন তাকেই হয়রানির শিকার হতে হয়।

অভিযোগে প্রকাশ, ‘টানা কয়েক বছর যাবত সাবেক চেয়ারম্যান দেওয়ান সুমন আহমেদ বালু বিক্রি করে আঙ্গুল ফুলে কলাগাছ হয়েছেন। তিনি অনেক টাকার মালিক হলেও ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে এলাকাবাসীর। অতিরিক্ত ট্রাক চলাচল

করায় গ্রামের রাস্তা ব্যবহারের অনুযোগী হয়েছে। নদীর উপর ব্রিজটিও রয়েছে হুমকির মুখে। ব্রিজের উপর দিয়ে একটি গাড়ি গেলে ব্রিজে ঝাঁকুিনর সৃষ্টি হয়। এলাকাবাসী কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি কামনা করছেন। যাতে করে এ নদী থেকে যেন বালু উঠানো বন্ধ হয়।’
এ বিষয়ে দেওয়ান সুমন আহমেদ বলেন, ‘আমি কোন নদী বা অন্যের জায়গা থেকে বালু উত্তোলন করছি না। আমার জায়গা থেকে বালু উত্তোলন করছি। ট্রাক চলাচলে রাস্তার যে ক্ষতি হয় তার চেয়ে অধিক বছরে ভ্যাট ট্যাক্স ও রোড পারমিট দিয়ে থাকি। আমাদের ভ্যাট ট্যাক্সের টাকায় সরকার এই রাস্তার উন্নয়ন কাজ করে থাকেন।’

এ ব্যাপারে সদরের সহকারী কমিশনার (ভূমি) সুখময় সরকার বলেন, ‘পোড়াবাড়ি ইউনিয়নের বাসাইদের চরে ধলেশ্বরী নদী থেকে বালু উত্তোলনের বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। দেওয়ান সুমন আহমেদ সরকারি জমি থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করছেন। এর আগেও বালু উত্তোলন করার অভিযোগে একাধীকবার ড্রেজার ও ভেকু পুড়িয়ে দেয়া হয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বালু

৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮

আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ