Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার ১৯ জুন ২০১৯, ৫ আষাঢ় ১৪২৬, ১৬ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

ছুটির দিনেও নগরীতে হঠাৎ যানজট

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৩ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:০৩ এএম

ছুটির দিন হলেও গতকাল রাজধান ীসহ আশপাশের বিভিন্ন সড়কে হঠাৎ করে তীব্র যানজট চোখে পড়ে। একদিকে গার্মেন্টস শ্রমিকদের লাগাতর আন্দোলন অন্যদিকে বাণিজ্যমেলার কারণে এ যানজটের সৃষ্টি হয়। এতে ছুটির দিনে বের হয়ে স্বস্থির বদলে চরম ভোগান্তিতে পড়েন নগরবাসীরা। একইভাবে বাইরে থেকে আসা রোগী ও তাদের স্বজনদেরও তীব্র যানজটের কবলে পড়ে চরম ভোগান্তি পোহান। গতকাল নগরীর বিভিন্ন সড়কে ঘুরে এমন যানজটের চিত্র পরিলক্ষিত হয়েছে।
গত ৬ জানুয়ারি থেকে গতকাল পর্যন্ত টানা সাত দিন রাজধানীর মিরপুর, উত্তরা, বিমানবন্দরসহ সাভার ও গাজীপুরের বিভিন্ন এলাকায় বিক্ষোভ করে আসছে শ্রমিকরা। গতকাল সকাল ১০টার পর থেকে মিরপুরের শেওড়াপাড়া, মিরপুর-১৪, টোলারবাগ, বাংলা কলেজের সামনে ও টেকনিক্যাল এলাকায় অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ শুরু করে আশপাশের পোশাকশ্রমিকরা। এ সময় বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা কয়েকটি গাড়ি ও মোটরসাইকেলে ভাংচুর চালায়। এদিকে, শ্রমিকদের বিক্ষোভের কারণে আশপাশের পুরো এলাকায় তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়। এতে দীর্ঘ সময় ওইসব সড়কে যান চলাচল বন্ধ থাকে। শ্রমিকদের এ আন্দোলনের প্রভাবে নগরীর অধিকাংশ সড়কে দিনভর যানজট ছিল।
রাজধানীর বাইরে ঢাকার অদূরে সাভার ও আশুলিয়ার শিল্পাঞ্চল জামগড়া এলাকায় পুলিশের সঙ্গে শ্রমিকদের সংঘর্ষে আশপাশের বেশিরভাগ সড়কে যান চলাচল বন্ধ থাকে। পরে দুপুরের দিকে পুলিশ এসে শ্রমিকদের রাস্তা থেকে সরিয়ে দিলে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়। বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা দফায় দফায় ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক অবরোধ করার চেষ্টা করে এবং যাত্রীবাহী বাসসহ অন্যান্য গাড়িতে ভাঙচুর চালায়। এতে প্রায় একঘণ্টা ওই মহাসড়কে যান চলাচল বন্ধ থাকে।
ঢাকা-১ ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশের পুলিশ সুপার (এসপি) সানা সামিনুর রহমান বলেন, শ্রমিকরা রাস্তা অবরোধের চেষ্টা করলে তাদের সরিয়ে দিয়ে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করা হয়। পরিস্থিতি ও যান চলাচল স্বাভাবিক রাখতে ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ ও বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে।
এদিকে গত ৯ জানুয়ারি থেকে রাজধনাীতে শুরু হয়েছে আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা। গতকাল ছুটির দিন হওয়ায় নগরীর বিভিন্ন এলাকা থেকে অনেকে মেলায় আসেন। এতে ছুটির দিন হওয়া সত্তে¡ও নগরীর সড়কে বাড়তি চাপ পরে। যার কারণে গতকালও অন্যান্য দিনের মতো তীব্র যানজট ছিল।
মিরপুরের টোলারবাগের বাসীন্দা রহিমা বেগম বলেন, কয়েকদিন ধরে পোশাক শ্রমিকদের আন্দোলনে বাইরে যেতে না পারায় অনেক কাজ জমে গেছে। গতকাল ছুটির দিনে বের হয়েও তীব্র যানজটের কবলে পড়েন তিনি।
টেকনিক্যাল মোড়ে বেসরকারি চাকুরে আব্দুল হালিম বলেন, গতকাল ছুটির দিন হলেও হঠাৎ করে সড়কে তীব্র যানজট দেখা গেছে। তিনি নিজেও এক ঘন্টার মতো যানজটের কবলে আটকা পড়েন।
বাণিজ্য মেলায় ঘুরতে আসা আকবর বলেন, কাজের ব্যস্ততায় শুক্রবার আসতে পারেননি। তিনি বলেন, শনিবার এসে চরম বিপদে পড়েছি। গাড়ি দেড় ঘন্টার মতো এক জায়গায় থেমে আছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: যানজট


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ