Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার ২৬ জুন ২০১৯, ১২ আষাঢ় ১৪২৬, ২২ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

অবশেষে দেশে ফিরলেন সেই অসহায় মা ও তার শিশু

বেনাপোল অফিস | প্রকাশের সময় : ১৪ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:০৩ এএম

আইনি জটিলতায় ভারতে ৪ মাস আটকে পড়া মা ও তার শিশু সন্তান অবশেষে গত শনিবার রাত ৮ টায় কলকাতার বাংলাদেশী উপ-হাইকমিশনের সহযোগিতায় বেনাপোল চেকপোস্ট দিয়ে দেশে ফিরেছেন।
কলকাতায় অবস্থিত বাংলাদেশি উপ-হাইকমিশনের কাউন্সিলর প্রধান বিএম জামাল হোসেন তাদের বেনাপোল চেকপোস্টে বাংলাদেশি সার্চ মানবাধিকার সংস্থার হাতে তুলে দেন। ফেরত এলেন যশোরের ফতেপুর গ্রামের বিল্লাত আলীর স্ত্রী রোকসানা খাতুন (৩০) ও তার শিশু পুত্র শাওন (৩)।

জানা যায়, দালালের খপ্পরে পড়ে ভালো কাজের প্রলোভনে রোকসানা খাতুনের ভাই ভারতে গিয়ে দিল্লিতে পুলিশের হাতে আটক হন। এ খবর পেয়ে তার ভাইকে ছাড়াতে পাসপোর্টে দিল্লি গিয়ে ভারতে তিন মাসের অধিক সময় কাটান।
৩ মাসের অধিক সময় ভারতে অবস্থান করার বিষয়টি ভুলে যান রোকসানা খাতুন। পরে দেশে ফেরার জন্য ভারতের পেট্টোপোল ইমিগ্রেশনে এলে ইমিগ্রেশন কর্তৃপক্ষ এক সঙ্গে ৯০ দিন অতিক্রম করার অপরাধে তার ও সন্তানের পাসপোর্টে ৪৩ হাজার ২০০ ভারতীয় রুপি (পাসপোর্ট প্রতি ২১ হাজার ৬০০ ভারতীয় রুপি) জরিমানা পরিশোধ করতে বলেন। কিন্তু তার কাছে কোনও অর্থ না থাকায় রাস্তায় রাস্তায় ঘুরছিলেন। বিষয়টি জানতে পেরে বাংলাদেশি উপ-হাইকমিশন অসহায় রোকসানা খাতুনের পাশে দাঁড়ান। উপ-হাইকমিশনের কর্মকর্তারা ভারত সরকারকে দুই পাসপোর্টে ৪৩ হাজার ২০০ রুপি জরিমানা পরিশোধ করে মা ও ছেলেকে দেশে ফিরতে সহযোগিতা করেন। রোকসানা খাতুন এ মানবিক কাজের জন্য উপ-হাইকমিশনের কর্মকর্তাদের কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন