Inqilab Logo

শুক্রবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২২, ১৪ মাঘ ১৪২৮, ২৪ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

গুলিবর্ষণ ও সংঘর্ষে আহত ৫ সাভারে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মনোনয়নপত্র ছিনিয়ে নেয়ার অভিযোগ

প্রকাশের সময় : ১০ মে, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার, সাভার থেকে : সাভার উপজেলার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার সময় তা ছিনিয়ে নেয়াকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের দুই গ্রæপের মধ্যে ব্যাপক ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া, গোলাগুলি সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। সংঘর্ষের অন্তত ৫ জন আহত হয়েছে। সোমবার দুপুরে সাভার উপজেলা চত্বরে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে অতিরিক্ত পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।
তবে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ঘটনাস্থলে উপস্থিত থেকে তাৎক্ষনিক কার্য্যক্রম বন্ধ করে লোকজন বের করে দিলে পরিস্থিতি আরো স্বাভাবিক হয়।
ঘটনার সময় উপস্থিত সাভার মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোমিনুল হক বলেন, সাভার উপজেলার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে অংশ নেওয়া সকাল থেকেই চেয়ারম্যান, সাধারন সদস্য প্রার্থীরা মনোনয়ন পত্র জমা দেওয়া শুরু করেন। পরে দুপুর ২টার দিকে সাভারের তেঁতুলঝোড়া ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন পত্র জমা দিতে আসেন দলের বিদ্রোহী প্রার্থী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি এমদাদুল হক।
পরে উপজেলা আওয়ামী লীগের একাংশের নেতা-কর্মীরা তাকে মনোনয়ন পত্র জমা দিতে নিষেধ করলে এমদাদুল হকের পক্ষ নেওয়া সাভার উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলী হায়দারের লোকজনের সাথে সংঘর্ষ বাধে। এক পর্যায়ে তারা এমদাদুল হকের মনোনয়ন পত্রটি ছিনিয়ে নিয়ে যায়।
মনোনয়ন পত্র ছিনিয়ে নিয়ে গেলে উভয়পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ ছড়িযে পড়ে। সংঘর্ষের এ ঘটনায় উভয়পক্ষের মধ্যে অন্তত ২০ রাউন্ড ফাঁকা গুলি বিনিময় হয়। পুরো উপজেলা চত্ত¡রে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। মনোনয়ন পত্র জমা দিতে আসা উপস্থিত লোকজন এসময় দ্বিগ¦বিদ্বিক ছুটোছুটি শুরু করে।
পরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কামরুল হাসান মোল্লা দ্রæত লোকজনকে উপজেলা থেকে বের করে দিয়ে সকল কার্য্যক্রম সাময়ীক বন্ধ করে দেয়। খবর পেয়ে সাভার মডেল থানার অতিরিক্ত পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কামরুল হাসান মোল্লা বলেন, ঘটনার সময় কার্য্যক্রম বন্ধ ছিল। তবে বর্তমানে স্বাভাবিক ভাবে চলছে। উপজেলা চত্ত¡রে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।
তেতুলঝোড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি এমদাদুল হক অভিযোগ করে বলেন, আমি বিদ্রোহি প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন পত্র জমা দিবার সময় আচমা আমার ও আমার লোকজনের উপর দুর্বৃত্তরা হামলা চালায়। তারা মনোনয়ন পত্র ছিনিয়ে নেয়। এলাপাথারী গুলিবর্ষন করে। হামলায় অন্তত ৫জন আহত হয়। এদের মধ্যে গুরুত্বর আহত উপজেলা যুবলীগের সদস্য রাসেল দেওয়ানকে সাভার এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: গুলিবর্ষণ ও সংঘর্ষে আহত ৫ সাভারে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মনোনয়নপত্র ছিনিয়ে নেয়ার অভিযোগ
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ