Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২০ অক্টোবর ২০১৯, ০৪ কার্তিক ১৪২৬, ২০ সফর ১৪৪১ হিজরী

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন নিয়ে কাজ করব

ড. কামালকে তথ্যমন্ত্রীর ধন্যবাদ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৪ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:০১ এএম

জামায়াতে ইসলামীকে বিএনপি পরিত্যাগ না করলে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা কামাল হোসেন চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন বলে আশা করছেন তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ। জামায়াতকে সঙ্গে নিয়ে নির্বাচন করার সিদ্ধান্ত যে ‘ভুল’ ছিল, তা স্বীকার করায় কামাল হোসেনকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন তিনি। ডিজিটাল সিকিউরিটি আইন নিয়ে সাংবাদিকদের আতঙ্ক কাটাতে কাজ করবেন বলে জানান তিনি। গতকাল রোববার সকালে সচিবালয়ে তথ্য মন্ত্রণালয় এবং এর অধীন বিভিন্ন দপ্তর ও সংস্থার শীর্ষ কর্মকর্তাদের সঙ্গে এক সমন্বয় সভায় সূচনা বক্তব্যে এ বিষয়ে কথা বলেন তিনি। মন্ত্রী বলেন, জামায়াতকে সঙ্গে নিয়ে তারা যে নির্বাচন করেছেন, এই ভুলটি যে স্বীকার করেছেন, এটার মাধ্যমে ড. কামাল হোসেনসহ অন্য যারা মিলে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট করেছেন, তারা যে রাজনীতির ক্ষেত্রে ও নির্বাচনের ক্ষেত্রে পদে পদে ভুল করেছেন সেটি তারা স্বীকার করে নিয়েছেন। তিনি বলেন, জামায়াতকে সাথে নিয়ে তারা যে নির্বাচন করেছেন, এই ভুলটি যে স্বীকার করেছেন, এটার মাধ্যমে ড. কামাল হোসেনসহ অন্য যারা মিলে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট করেছেন, তারা যে রাজনীতির ক্ষেত্রে ও নির্বাচনের ক্ষেত্রে পদে পদে ভুল করেছেন সেটি তারা স্বীকার করে নিয়েছেন। একাদশ সংসদ নির্বাচনের আগে বিএনপিকে সঙ্গে নিয়ে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট গড়ে তোলেন গণফোরাম সভাপতি কামাল। গণফোরামের প্রার্থীরা যেমন এবার ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে ভোট করেছেন, তেমনি বিএনপির পুরনো জোট জামায়াতের নেতারাও ওই প্রতীকেই প্রার্থী হয়েছেন। কামালের এই স্বীকারোক্তিকে সাধুবাদ জানিয়ে হাছান মাহমুদ বলেন, এই স্বীকারোক্তির মাধ্যমে আমি মনে করব তারা জামায়াতকে পরিত্যাগ করবেন এবং জামায়াতকে যদি বিএনপি পরিত্যাগ না করে তবে কামাল হোসেন চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবেন, সেটাই আশা করি। নির্বাচনে বিজয়ী ঐক্যফ্রন্টের আট প্রার্থীর শপথ না নেওয়ার সিদ্ধান্তকে এই জোটের আরেকটি ‘ভুল’ হিসেবে চিহ্নিত করেন তথ্যমন্ত্রী।
তিনি বলেন, আমি আশা করব তারা যে ইতোমধ্যে একটি ভুল সিদ্ধান্ত নিয়ে বসে আছেন, তাদের নির্বাচিত সংসদ সদস্যরা শপথগ্রহণ করবে না, সেই ভুল সিদ্ধান্তটাও তারা পরিবর্তন করে গণতন্ত্রকে সংহত করার জন্য গণতন্ত্রের অভিযাত্রাকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য তারা শপথগ্রহণ করবেন।
তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেন, ডিজিটাল সিকিউরিটি আইন নিয়ে সাংবাদিকদের আতঙ্ক কাটাতে কাজ করবেন। ডিজিটাল সিকিউরিটি আইন নিয়ে আমাদের আতঙ্ক আছে- এক সাংবাদিকের প্রশ্নে হাছান মাহমুদ বলেন, আমি তথ্যমন্ত্রী হিসেবে বলতে পারি, আপনাদের আতঙ্ক যাতে না থাকে সেই লক্ষ্যে আপনাদের পরামর্শ নিয়ে কাজ করব। সম্প্রচার আইন নিয়ে তিনি বলেন, আমার পূর্বসূরি কাজটা অনেক দূরে এগিয়ে নিয়ে গেছেন, সেই কাজ চলমান আছে। আমরা আজকে সমন্বয় সভায় বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা করব।
গণমাধ্যমকর্মী আইন সম্পর্কে হাছান মাহমুদ বলেন, গণমাধ্যমকর্মীদের সম্মান রক্ষার্থে আইনের সংশোধনের কাজটি চলমান আছে এবং গণমাধ্যমকর্মী অর্থাৎ সাংবাদিক বন্ধুদের সম্মান যাতে রক্ষা পায় সে লক্ষ্যে আমরা কাজ করছি। হেফাজতে ইসলামের আমির আলামা শফী চট্টগ্রামে এক অনুষ্ঠানে মেয়েদের চতুর্থ বা পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত পড়ার কথা বলেছেন বলে গণমাধ্যমে সংবাদ এসেছে। তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেন, হেফাজতে ইসলামের আমিরের যে বক্তব্য, সেটা হেফাজতে ইসলামের পক্ষ থেকে অস্বীকার করা হয়েছে। তারা বলেছে যে তিনি এ ধরনের বক্তব্য দেন নাই। সুতরাং যেহেতু তারা অস্বীকার করেছেন তাহলে আমার কোনো বক্তব্য নাই।



 

Show all comments
  • Mohammed Shah Alam Khan ১৪ জানুয়ারি, ২০১৯, ১০:০৩ এএম says : 0
    তথ্যমন্ত্রী ডঃ হাছান মাহমুদ বলেছেন, ‘ভুঁইফোড়’ অনলাইন সংবাদমাধ্যমগুলো সম্মিলিতভাবে মোকাবিলা করা হবে। ওনার এই কথাটা বাস্তবায়ন করা খুবই জরুরী বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। এইসব অনলাইন সংবাদমাধ্যম গুলো ভুল সংবাদ পরিবেশন ও চরিত্র হননের ঘটনা ঘটাচ্ছে এটাও মন্ত্রীর অভিযোগ। আমদের কথা হচ্ছে, যদি তাই হবে তাহলে আমরাও চাই এদেরকে কঠিন হাতে প্রতিহত করতে হবে যেকোন মূল্যে। এবার আওয়ামী লীগ আগের চেয়ে অনেক শক্তিশালী এবং ক্ষমতা সম্পন্ন হয়ে ক্ষমতায় এসেছে কাজেই এটাই সঠিক সময় দেশ থেকে সবরকম দুর্নীতি দূর করা। সরকারকে কঠিন হাতে এখন দেশ থেকে দুর্নীতি দমন করতে হলে দুটা বিভাগকে প্রথম সততার পথে আনতে হবে সেই দুটার একটা হচ্ছে সংবাদ মাধ্যম আর অপরটা হচ্ছে আদালতে উকিলদের মিথ্যার জাহাজ বন্ধ করন। আর যদি এই দুইটা কাজে সরকার কৃতকার্য হতে পারে তাহলে আমি নিশ্চিত দেশের আইন শৃঙ্খলার ফিরে আসবে এতে কোন সন্দেহ নেই। প্রথমেই আমাদের তথ্যমন্ত্রী সঠিক কাজ করার যে মনোভাব প্রকাশ করেছেন এটাকে যেকোন ভাবেই হউক কার্যকর করতে হবে এটাই আমাদের সবার দাবী। আল্লাহ্‌ আমাদের বর্তমান সরকারের মন্ত্রীরা যেভাবে তাদের শুরুর আভাশ দিচ্ছেন সেইভাবে যাতে তারা কাজও করে যেতে পারেন সেই ক্ষমতা মন্ত্রীদেরকে দান করুন। আমিন
    Total Reply(0) Reply
  • Nannu chowhan ১৪ জানুয়ারি, ২০১৯, ৯:৩৬ এএম says : 0
    Montri shaheb kajer chaite kotha beshi bolen
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: তথ্যমন্ত্রী


আরও
আরও পড়ুন