Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার ২১ জুলাই ২০১৯, ০৬ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৭ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল বাংলাদেশের সঙ্গে ভারতের সম্পর্ক তিক্ত করবে

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৪ জানুয়ারি, ২০১৯, ১০:০১ এএম

ভারতের আসাম রাজ্যের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী তরুণ গগৈ মনে করেন, নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলটিকে যেভাবে বিজেপি তুলে ধরছে তাতে বাংলাদেশের সঙ্গে ভারতের সম্পর্ক তিক্ততায় পর্যবসিত হবে। ভারতের একটি টিভি চ্যনেলের সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে তিনি দাবি করেন, বাংলাদেশে ধর্মীয় নির্যাতনের যে অভিযোগ তোলা হচ্ছে তাতে আসলে প্রতিবেশী দেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ধর্মনিরপেক্ষতার নীতিকে তুলে ধরার প্রয়াসকেই অস্বীকার করা। তাই এই বিল আসলেই দুই দেশের সম্পর্ক তিক্ত করে তুলবে।
তিনি বলেন, বর্তমান বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার ভারতের প্রতি সহযোগীর ভূমিকা নিয়ে চলেছেন। সীমান্ত এলাকায় সন্ত্রাসীদের শিবিরগুলোর বিরুদ্ধে হাসিনা ব্যবস্থা নেয়ার ফলেই উত্তর-পূর্ব ভারতে শান্তি রয়েছে। গগৈ আরো বলেন, বাংলাদেশে হিন্দুরা নিরাপদেই রয়েছেন। প্রতিবছর দুর্গাপূজোর সংখ্যা বেড়ে চলেছে। তাই ধর্মীয় নির্যাতনের নাম করে বাংলাদেশকে অপ্রয়োজনীয়ভাবে অপবাদ দেয়ার চেষ্টা হচ্ছে।

সম্প্রতি লোকসভায় পাস হওয়া নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলে বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও আফগানিস্তান থেকে ধর্মীয় নির্যাতনের শিকার হয়ে চলে আসা অমুসলিমদের নাগরিকত্ব দেয়ার কথা বলা হয়েছে। সাবেক মুখ্যমন্ত্রী তরুণ গগৈ জানিয়েছেন, তার ১৫ বছরের শাসনকালে একজন হিন্দুও ধর্মীয় নির্যাতনের কারণে নাগরিকত্ব চেয়ে আবেদন করেন নি। বাংলাদেশে ধর্মীয় নির্যাতনের কথা প্রচার করে বিজেপি প্রকৃতপক্ষে শেখ হাসিনা সরকারের ভাবমূর্তি ভুলভাবে তুলে ধরছে।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভারত-বাংলাদেশ


আরও
আরও পড়ুন