Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ২৬ আগস্ট ২০১৯, ১১ ভাদ্র ১৪২৬, ২৪ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

বাণিজ্যমেলার শুরুতেই ছাড়ের ছড়াছড়ি

অর্থনৈতিক রিপোর্টার : | প্রকাশের সময় : ১৫ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:০৩ এএম

ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলার গতকাল সোমবার ছিল ৬ষ্ঠ দিন। অথচ ইতোমধ্যেই মেলার বিভিন্ন স্টলগুলোতে চলছে ছাড়ের ছড়াছড়ি। শুরু থেকেই ক্রেতাদের আকৃষ্ট করতে পণ্যভেদে ৫ থেকে ৩৫ শতাংশ পর্যন্ত ছাড় দিচ্ছে বিভিন্ন কোম্পানি। নির্দিষ্ট পণ্য কিনে বিদেশ ভ্রমণের সুযোগ থাকছে। এছাড়া বিকাশের মাধ্যমে কেনাকাটাতেও রয়েছে ১৫ শতাংশ পর্যন্ত ক্যাশব্যাক। গতকাল সোমবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ে বাণিজ্যমেলা প্রাঙ্গণ ঘুরে দেখা যায় ক্রেতা-দর্শনার্থীদের সমাগম খুব বেশি নয়। তবে পণ্য কেনায় রয়েছে ছাড় আর অফারের ছড়াছড়ি।
মেলায় আক্তার ফার্নিচার দিচ্ছে ৩৫ শতাংশ পর্যন্ত মূল্য ছাড়। খাট, সোফা, আলমারি, চেয়ার-টেবিল কিনলেই পাওয়া যাবে ৩৫ শতাংশ ছাড়। ভিশন ইলেকট্রনিক্সের পণ্য কিনে বিদেশ ভ্রমণের সুযোগ রয়েছে। বাণিজ্যমেলায় ভিশনের পণ্যে নির্দিষ্ট ছাড়ের পাশাপাশি এ অফারের ব্যবস্থা রয়েছে। ভাগ্যবান কিছু ক্রেতা নেপাল ও থাইল্যান্ড ভ্রমণের সুযোগ পাবেন।
প্রাণ ইতালিয়ানো প্যাভিলিয়নে চলছে ৫ থেকে ১০ শতাংশ ছাড়ে গৃহস্থালি পণ্য কেনার সুযোগ। তাছাড়া প্রাণ মসলা ও দুগ্ধজাত পণ্যে রয়েছে ১০ থেকে ২০ শতাংশ ছাড়।
কারখানা মূল্যে পণ্য বিক্রি করছে হোমটেক্স। এখানে বিভিন্ন শো-রুমের চেয়ে প্রায় এক-তৃতীয়াংশ দরে পণ্য বিক্রি হচ্ছে। শুধু বাণিজ্যমেলা প্রাঙ্গণের স্টলেই এ অফারটি চলবে বলে জানায় স্টল কর্তৃপক্ষ। এছাড়া পণ্য কিনে হীরার গহনা জেতার সুযোগ দিচ্ছে র‌্যাংস।
ক্রেতারাও ছাড়ে পণ্য কিনতে পেরে খুশি। তানিয়া হাসান নামে এক ক্রেতা বলেন, আমরা বিভিন্ন ছাড়ে গৃহস্থালি পণ্য কিনেছি। মেলায় আরও কিছু জিনিস কেনা বাকি আছে। যদি ছাড়ের মধ্যে মানসম্মত পণ্য পাই তাহলে আজই কেনার ইচ্ছা আছে।
র‌্যাংগস ইলেকট্রনিক্সের মার্কেটিং ও সেলস ম্যানেজার তানভীর হোসেন বলেন, সনি-র‌্যাংগস ও ডায়মন্ড ওয়ার্ল্ড লিমিটেডের যৌথ বিনিয়োগে পরিচালিত সনি-র‌্যাগংস ডায়মন্ড প্রমোশনের অধীনে টিভি, ফ্রিজ, এসি, ওভেন কিনলেই থাকবে উপহার হিসেবে হীরার নাকফুল, আংটি, কানের দুল, লকেট, নেকলেস সেট।
মাসব্যাপী বাণিজ্যমেলার পর্দা নামবে আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি। মেলার গেট ও বিভিন্ন স্টল প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত খোলা থাকছে। প্রাপ্ত বয়স্কদের প্রবেশের জন্য টিকিটের মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ৩০ টাকা এবং অপ্রাপ্ত বয়স্কদের জন্য ২০ টাকা।
মেলার টিকিট অনলাইনে পাওয়া যাচ্ছে। মেলায় প্যাভিলিয়ন, মিনি-প্যাভিলিয়ন, রেস্তোরাঁ ও স্টলের মোট সংখ্যা ৬০৫টি। এর মধ্যে প্যাভিলিয়ন ১১০, মিনি-প্যাভিলিয়ন ৮৩ ও রেস্তোরাঁসহ অন্যান্য স্টল ৪১২টি।
বাংলাদেশ ছাড়াও ২৫ দেশের ৫২ প্রতিষ্ঠান মেলায় অংশ নিচ্ছে। দেশগুলো হলো-থাইল্যান্ড, ইরান, তুরস্ক, শ্রীলঙ্কা, মালদ্বীপ, নেপাল, চীন, মালয়েশিয়া, ভিয়েতনাম, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ভারত, পাকিস্তান, হংকং, সিঙ্গাপুর, মরিশাস, দক্ষিণ কোরিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা, জার্মানি, সুইজারল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া ও জাপান।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ