Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৬ মার্চ ২০১৯, ১২ চৈত্র ১৪২৫, ১৮ রজব ১৪৪০ হিজরী।

নোয়াখালীর কবিরহাটে বৈদ্যুতিক খুঁটির তারে জড়িয়ে প্রাণ গেল পিতা-পুত্রের

নোয়াখালী ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১৫ জানুয়ারি, ২০১৯, ১০:০৬ এএম | আপডেট : ১০:৫৪ এএম, ১৫ জানুয়ারি, ২০১৯

কবিরহাট উপজেলার নরোত্তমপুর ইউনিয়নে পল্লী বিদ্যুতের লাইনের খুঁটির টানা তারে জড়িয়ে মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে সালাহ উদ্দিন (৪৮) ও তার ছেলে সৌরভ হোসেন (১২) এর। বিদ্যুতের লাইন নির্মাণে খুঁটির টানা তারে ত্রুটি রয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন স্থানীয় অধিবাসীরা।

সোমবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে লাশ দু’টি উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা। এর আগে সন্ধ্যায় ফলাহারী গ্রামের বজল মাস্টার বাড়ী সংলগ্ন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত মো. সালাউদ্দিন পদুয়া গ্রামের হাজী বাড়ীর আলী আহমদের ছেলে ও নিহত সালা উদ্দিনের ছেলে মো. সৌরভ হোসেন। সৌরভ সোমবার সকালে স্থানীয় করমবক্স আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ে সপ্তম শ্রেণিতে ভর্তি হয়েছিল।

ঘটনাস্থলে থাকা লোকজন জানায়, বিকেলে বোরো খেতে সেচপাম্প দিয়ে পানি সেচ দিচ্ছিল সালাহ উদ্দিন। এসময় তাঁর স্কুল পড়ুয়া ছেলে সৌরভ তাকে সহযোগিতা করতে সেখানে যায়। সন্ধ্যায় সেচ দেওয়া শেষে বাড়ি ফেরার আগে সৌরভ পায়ের কাঁদা ধোঁয়ার জন্য পাশের একটি পুকুর পাড়ে যায়। এসময় সে পুকুরের পাড়ে পুঁতে রাখা বৈদ্যুতিক খুঁটির টানা তার ধরে নিচের দিকে ঝুলে পা ধোঁয়ার সময় তারটি বিদ্যুৎ লাইনের উপরে থাকা মূলতারের সঙ্গে লেগে বিদ্যুতায়িত হয়। এতে ঘটনাস্থলেই সৌরভ মারা যায়। এসময় কাছাকাছি থাকা বাবা মো. সালাউদ্দিন ছেলেকে উদ্ধার করতে গিয়ে নিজেই বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে পুকুরের পানিতে পড়ে মারা যান।

স্থানীয় একাধিক বাসিন্দার অভিযোগ, পিতা-পুত্রকে পানির মধ্যে পড়ে থাকতে দেখে বিদ্যুৎ লাইনটি বন্ধ করতে পল্লী বিদ্যুতের কবিরহাট অফিস ও নোয়াখালী পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির মহাব্যবস্থাপক শংকর লাল দত্তকে একাধিকবার ফোন করে ঘটনাস্থলে আসার জন্য অনুরোধ জানানো হলেও তাঁরা আসেনি। ফলে আশেপাশের লোকজন, পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে আসলেও ভয়ে লাশ উদ্ধারে পুকুরে নামতে পারেনি। ফলে ঘন্টার পর ঘন্টা লাশ দু’টি পুকুরেই পড়ে ছিল। পরে রাত সোয়া আটটার দিকে জেলা শহর থেকে আসা দমকল বাহিনীর সদস্যরা বিদ্যুত অফিসে কথা বলে নিশ্চিত হয়ে লাশ উদ্ধার করেন। এরপর রাত পৌনে নয়টার দিকে পল্লী বিদ্যুতের কবিরহাট আঞ্চলিক কার্যালয়ের কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে আসেন।

লাইন নির্মাণে কোনো ধরণের ত্রুটি ছিল না দাবী করে নোয়াখালী পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির মহাব্যবস্থাপক শংকর লাল দত্ত বলেন, মোবাইলে খবর পাওয়া মাত্র কবিরহাট অফিসের লোকজনকে ঘটনাস্থলে যাওয়ার জন্য বলা হয়। টানা তার ধরে ঝুলার কারণে ওই তার গিয়ে বিদ্যুতের মূল তারে সঙ্গে লেগে গেলে এ দুর্ঘটনাটি ঘটে। বিষয়টি তদন্ত করা হবে। তদন্তে কারো কাজে কোন গাফিলতি পেলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এদিকে আজ মঙ্গলবার সকাল ১০টায় নিহতদের জানাজার নামাজ করমবক্স আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে অনুষ্ঠিত হবে।

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বিদ্যুৎস্পৃষ্ট


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ