Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার ২৫ জুন ২০১৯, ১১ আষাঢ় ১৪২৬, ২১ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

শীতার্ত মানুষের পাশে দাঁড়াতে পূর্ণিমার আহবান

বিনোদন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৮ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:০৫ এএম

শীতার্ত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর প্রচারণামূলক কাজে অংশগ্রহণ করছেন চিত্রনায়িকা পূর্ণিমা। ‘প্রাণ আপ’র বিশেষ উদ্যোগ শীতার্ত মানুষের পাশে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়ে কম্বল বিতরণের বিশেষ উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। প্রাণ আপ’র এই ক্যাম্পেইনের নাম ‘ছড়াই ভালোবাসার উষ্ণতা’। চিত্রনায়িকা পূর্ণিমা জানান, প্রাণ আপ’র ব্যবহৃত বোতল কিংবা প্রাণ’র যেকোন প্রোডাক্টের বোতল আগামী ২৪ জানুয়ারি থেকে ৩০ জানুয়ারি পর্যন্ত সারা দেশের বিশটি বেস্ট বাইয়ের শাখায় রাখা উইন্টার বুথে কিংবা দেশের বিভিন্নস্থানে সেই সময়ে পিকআপ ভ্যানে থাকা উইন্টার বুথে জমা রাখলে এর বিপরীতে একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ অর্থ জমা করা হবে। সাতদিনব্যাপী এই জনসচেতনতা মূলক কর্মকাÐ থেকে উঠে আসা অর্থ দিয়ে কম্বল ক্রয় করে তা শীতার্ত মানুষের মধ্যে বিতরণ করা হবে। প্রাণ বেভারেজ লিমিটেড’র ব্র্যান্ড ম্যানেজার তন্ময় দাস বলেন, ‘আমাদের প্রতিষ্ঠান চাইলেই যেকোন সময় কম্বল বিতরণ করতে পারে। কিন্তু দেশের মানুষের মধ্যে দুটি বিষয়ে সচেতনতা সৃষ্টির জন্য এই ক্যাম্পেইনের আয়োজন করেছে। এক. শীতার্ত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর আহŸান, ২. প্লাস্টিকের বোতল যত্রতত্র ফেলে পরিবেশ নোংরা না করে নির্দিষ্ট স্থানে ফেলার অভ্যাস গড়ে তোলা। আর সে ক্ষেত্রে আমরা পূর্ণিমাকেই মডেল হিসেবে নিয়েছি, কারণ দেশের সকল শ্রেণীর মানুষের কাছে পূর্ণিমার গ্রহণযোগ্যতা রয়েছে।’ অনলাইন মাধ্যমে প্রচারের জন্য পূর্ণিমাকে নিয়ে সচেতনতামূলক তথ্যচিত্রটি নির্মাণ করেছেন বাপ্পা মাহমুদ। গত ১৩ ও ১৪ জানুয়ারি এর শুটিং সম্পন্ন হয়েছে। পূর্ণিমা বলেন, ‘দেশের সচেতন একজন নাগরিক হিসেবে আমি সবসময়ই ঢাকায়, ঢাকার বাইরে বিভিন্ন ধরনের সামাজিক সচতেনতামূলক কর্মকাÐে অংশগ্রহণ করি। একজন নাগরিক হিসেবে আমার দায়িত্বতো রয়েছেই, পাশাপাশি একজন অভিনয়শিল্পী হিসেবেও দেশের জন্য, দেশের মানুষের জন্য সবসময়ই আমি কিছুনা কিছু করার চেষ্টা করি। ‘ছড়াই ভালোবাসার উষ্ণতা’ ঠিক তেমনই একটি কাজ। এ কাজটি আমি অনেক আন্তরিকতা নিয়ে করেছি। আমি চাই পরিবেশের প্রতি সজাগ দৃষ্টি রাখার পাশাপাশি শীতার্ত মানুষের পাশে দাঁড়াক সবাই। ধন্যবাদ তন্ময় দাসকে আমাকে এমন একটি সচেতনতামূলক কাজের সাথে সম্পৃক্ত রাখার জন্য।’ তন্ময় দাস জানান. ফেব্রæয়ারির প্রথম সপ্তাহেই দিনাজপুর, রংপুর, কুড়িগ্রাম, ঠাকুরগাঁও ও পঞ্চগড়ের শীতার্ত মানুষের মধ্যে কম্বল বিতরণ করা হবে। পূূর্ণিমা বর্তমানে ব্যস্ত রয়েছেন নঈম ইমতিয়াজ নেয়ামুলের ‘জ্যাম’ সিনেমার কাজ নিয়ে।



 

Show all comments
  • babu ১৮ জানুয়ারি, ২০১৯, ৬:০৮ পিএম says : 0
    apeni ektu thaken odher pahse.
    Total Reply(0) Reply
  • babu ১৮ জানুয়ারি, ২০১৯, ৬:১০ পিএম says : 0
    apeni o to ektu thak te pahren.
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: শীতার্ত

৯ জানুয়ারি, ২০১৮

আরও
আরও পড়ুন