Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার ২৬ জুন ২০১৯, ১২ আষাঢ় ১৪২৬, ২২ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

ক্রুশবিদ্ধ ম্যাকডোনাল্ডস নিয়ে ইসরায়েলে ক্ষোভ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৮ জানুয়ারি, ২০১৯, ৯:২৩ পিএম

ক্রুশবিদ্ধ ম্যাকডোনাল্ডস নিয়ে উত্তাল ইসরায়েলের খ্রিষ্টান সম্প্রদায়৷ সম্প্রতি হাইফা শহরের একটি চিত্রকলা জাদুঘরে ‘ম্যাকজেসাস’ শিরোনামে একটি ভাস্কর্য প্রদর্শন করা হয়৷ ইতিমধ্যে ভাস্কর্যটি সরিয়ে নেওয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে৷
বিক্ষোভকারীরা মনে করেন, এ ধরনের একটি ভাস্কর্যের মাধ্যমে স্পষ্টভাবে যিশুকে অপমান করা হয়েছে৷ এটিকে তারা ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাতের সমান বলেও দাবি করেছেন৷ বিষয়টি ইতোমধ্যে আদালতে গড়িয়েছে৷ সোমবার হাইফা শহরের গির্জা প্রধান এ ধরনের সব স্থাপনা ও ভাস্কর্য, এমনকি বার্বি ডলের মাদার মেরি ভার্সনও সরিয়ে নিতে আদালতের নির্দেশের জন্য আবেদন করেন৷
পুলিশ জানায়, এই ভাস্কর্য সরানোর দাবিতে বিক্ষোভকারীরা মিউজিয়ামটির আশপাশ ঘিরে ইট ও পাথর ছুঁড়ে মারে৷ এতে তিন পুলিশ ঘটনাস্থলে আহত হন৷ বিক্ষোভকারীদের হটাতে পুলিশ কাঁদানে গ্যাস নিক্ষেপ করে৷ পুলিশ ধারণা করছে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কেউ এটির ছবি প্রকাশ করার কারণেই বিক্ষোভ দানা বাঁধে৷
জাদুঘরটির পরিচালক নিসিম তাল এ ঘটনায় বিস্ময় প্রকাশ করেন৷ তিনি বলেন, ‘এই ধরনের ভাস্কর্যে এ ধরনের জনরোষ হতে পারে সেটি আমাদের ধারণার বাইরে৷’ তিনি বলেন, ‘ভাস্কর এই স্থাপনার মধ্য দিয়ে পুঁজিবাদের উপাসনাকে নিন্দা জানিয়েছেন৷ কীভাবে কর্পোরেট সংস্কৃতি আমাদের জীবনকে কুক্ষিগত করছে, সেটিই এখানে দেখানো হয়েছে৷ কোনোরকম অঘটন ছাড়াই এই ভাস্কর্য বিশ্বের আরো কয়েকটি দেশে প্রদর্শিত হয়েছে৷’ তিনি আরো বলেন, ‘গত আগস্ট মাস থেকে এই ভাস্কর্যটির প্রদর্শনী চলছে৷ ইতোমধ্যে ৩০ হাজারের বেশি দর্শক এটি দেখেছেন এবং কোনো অঘটন ঘটেনি৷’
এদিকে ইসরায়েলের চরম উদারপন্থি সংস্কৃ্তিমন্ত্রীও এই ভাস্কর্য নামিয়ে ফেলার নির্দেশ দিয়েছেন৷ তিনি বলেন, ‘যা অন্য ধর্মের জন্য অসম্মানজনক, তা না থাকাই ভালো৷’ সূত্র: এপি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ