Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৫ ফাল্গুন ১৪২৫, ১১ জামাদিউস সানি ১৪৪০ হিজরী।

কানাডায় মদ শূকরের মাংসে নেশায় বুঁদ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৯ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:০২ এএম | আপডেট : ১২:০৮ এএম, ১৯ জানুয়ারি, ২০১৯

নিজ দেশ সউদী আরব থেকে পালিয়ে এসে গত সপ্তাহে কানাডায় আশ্রয় পেয়েছেন আলোচিত কিশোরী রাহাফ মোহাম্মেদ (১৮)। সেখানে তিনি তার স্বাধীন জীবন উদযাপন করছেন, যে স্বাধীনতার আশায় দেশ ছেড়েছেন। কানাডায় সেই জীবন আমোদেই কাটছে তার। সেখানে শূকরের মাংস, ওয়াইন ও গাঁজা ভরা সিগারেট খাচ্ছেন দেদারছে। এসব ছবি ব্যক্তিগত টুইটারে পোস্টও করেছেন। ছবিগুলো দেখে মনে হয়নি যে, তিনি এগুলোতে অনভ্যস্ত। তারই চিত্র তুলে ধরেছে ডেইলি মেইল।
কানাডায় রাহাফ নতুন বাড়িতে এক সপ্তাহ বসবাসের ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছেন। এতে মদ (রেড ওয়াইন) ও গাঁজা ভরা জ্বলন্ত সিগারেট রয়েছে। রাহাফ তার নাস্তার ছবিও শেয়ার করেন। এতে তিনি জীবনে প্রথম কানাডিয়ান স্টাইলে বেকন (শূকরের হিমায়িত মাংস) চেষ্টা করেছেন বলে জানিয়েছেন। মুসলমানদের শরিয়তে শূকরের মাংস ও মদ খাওয়া নিষিদ্ধ হলেও পোস্ট করা নাস্তার ছবিতে তিনি ক্যাপশন লিখেন- ‘ওএমজি বেকন’ ও মাই গড বেকন (শূকরের মাংস)। এই ক্যাপশনের সঙ্গে তিনি কানাডার পতাকার সঙ্গে হৃদয় ইমোজি দিয়েছেন। সঙ্গে মদ এবং সিগারেটের টুকরার ছবি দিয়ে তিনি সেগুলো দারুণ উপভোগ করছেন বলে জানিয়েছেন। সিগারেট খাওয়ার ছবিতে রাহাফ আরবিতে ক্যাপশন দিয়েছেন, যার বাংলা অর্থ, মাইনাস ৮ ডিগ্রিতে বসে ‘বাষ্প’ উড়াচ্ছি।
কানাডায় সাধারণ এভাবে গাঁজা ভরে সিগারেট খাওয়া হয়। সম্প্রতি দেশটি গাঁজাকে বৈধতা দিয়েছে। বিভিন্ন প্রদেশের নিজস্ব রীতি মেনে ১৮/১৯ বছর বয়সী থেকে সবাই গাঁজা সেবন করতে পারেন।
মদ পানের ছবিটি টরেন্টোগামী বিমানে বসে। এর আগে রাহাফ কুকুর নিয়ে বাইরে ঘুরে বেড়ানোর ছবি দিয়ে তাতে ক্যাপশন দেন, স্বাধীনতা অনুভব করছি। এছাড়া রাহাফ ভোরে স্টারবাকস কফি খাওয়ার ছবিও শেয়ার করেছেন। যেখানে তাকে হাঁটু পর্যন্ত ধূসর উলের পোশাকে দেখা গেছে।
উল্লেখ্য, গত ১২ জানুয়ারি পরিবারে সঙ্গে কুয়েত যাওয়ার পথে ব্যাংককে পালিয়ে আসেন সউদী তরুণী রাহাফ। যেখান থেকে তাকে ফেরত পাঠানোর উদ্যোগ নেয়া হয়েছিল। পরে নিজেকে থাই বিমানবন্দরের একটি হোটেলে আটকে রেখে সোশ্যাল মিডিয়ায় তিনি দাবি করেন, দেশে ফিরলে তাকে তার পরিবার হত্যা করতে পারে। যদিও তার পরিবার এ অভিযোগ অস্বীকার করেছে। পরে মানবাধিকার সংস্থার সাহায্যে তিনি শরণার্থীর মর্যাদায় কানাডাতে আশ্রয় পান। তিনি গত রোববার কানাডায় পৌঁছেন। তিনি তার ব্যক্তিগত টুইট অ্যাকাউন্টে গত শনিবার লেখেন- সউদী আরব থেকে যারা বের হতে সহযোগিতা করেছেন তাদের ধন্যবাদ। তিনি লেখেন, যারা আমাকে নতুন জীবন দিতে সহযোগিতা করছেন তাদের ধন্যবাদ। সত্যি বলতে আমি কখনও স্বপ্নে ভাবিনি আমি ভালোবাসা ও সহযোগিতা পাব। তিনি কানাডার গণমাধ্যমের উদ্দেশ্যে বলেন, কানাডায় পৌঁছানোর সহযোগিতা নারীদের স্বাধীন করল। আমাকে দেখে আরও নারীরা অনুপ্রাণিত হবেন। আমি নারীদের স্বাধীনতার জন্য বিশ্বব্যাপী কাজ করব। রাহাফ বলেন, আজ ও আগামী দিনগুলোতে আমি বিশ্বজুড়ে নারীদের স্বাধীনতার জন্য লড়াই করব। কানাডায় আসার পর প্রথম দিন আমি যে অভিজ্ঞতা পেয়েছি, ঠিক সেভাবেই নারীদের হয়ে লড়াই করব।



 

Show all comments
  • Azizur Rahman Tipu ১৯ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:৫৯ এএম says : 0
    এমন স্বাধীনতাই চেয়েছিলো...
    Total Reply(0) Reply
  • Km Baezid ১৯ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:৫৯ এএম says : 0
    Atake highlight na kore. jara hajar hajar muslim ekno Europe amiricayo islamer pothe cholse tdr nie highlight korun.
    Total Reply(0) Reply
  • Foysal Mahmud ১৯ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:৫৯ এএম says : 0
    আশা পূরণ হইছে!
    Total Reply(0) Reply
  • Abdullah AL Mamun Amran ১৯ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:৫৯ এএম says : 0
    সত্যতা কতটুকু। এসেই বুঝি এসব হারাম খাওয়া শুরু করছে!
    Total Reply(0) Reply
  • Akramul Islam ১৯ জানুয়ারি, ২০১৯, ১:০৫ এএম says : 0
    পরিবার এটাতেই বাঁধা দিয়েছিলো বলেই পালিয়েছে, উপাধী পেলো সাহসী নারী। ওরে সেফুদার কাছে পাঠিয়ে দেয়া হোক, সুস্থ করে দিবে
    Total Reply(0) Reply
  • Alamin Shaikh ১৯ জানুয়ারি, ২০১৯, ১:০৫ এএম says : 0
    ও আগামী দিনের পর্ণ ছবির নায়িকা,,
    Total Reply(0) Reply
  • Sheikh Shahin Ahamed ১৯ জানুয়ারি, ২০১৯, ১:০৫ এএম says : 0
    আপনার স্বাধীনতা প্রয়োজন ঠিক আছে !! তবে এর অর্থ এই নয় যে ৫ দিনের ব্যবদানে মদ থেকে শুরু করে শূকরের মাংস খাওয়া শুরু করে দিলে? বাহ্ এরই নাম বুঝি স্বাধীনতা !!
    Total Reply(0) Reply
  • Mohammad Didarul Alam ১৯ জানুয়ারি, ২০১৯, ১:০৬ এএম says : 0
    ওকে media বেশী coverege দিলে বাংলাদেশী কিছু মেয়ে এধরনের কর্মকাণ্ড শুরু করবে। জেসিয়াদের মতো মেয়েরা অলরেডি শুরু করে দিয়েছে।
    Total Reply(0) Reply
  • M Jashim Uddin ১৯ জানুয়ারি, ২০১৯, ১:০৬ এএম says : 0
    এখানে এক স্বর্গ অন্য হাতে নরক মজুদ আছে। এখন যে যেমন পছন্দ বেছে নিতে পারেন।
    Total Reply(1) Reply
    • sirajul ১৯ জানুয়ারি, ২০১৯, ১০:৩২ এএম says : 0
      She chose the way of hell in the name of fame freedom western life style
  • Muhammad Jahid Alam ১৯ জানুয়ারি, ২০১৯, ১:০৭ এএম says : 0
    বাঙ্গালী ভাইরা লাইনে দাঁড়ান, সবাই গালাগালি করার সুযোগ পাবেন, খুশিতে ঠেলাঠেলি করিয়েন না!!
    Total Reply(1) Reply
    • Hasan ১৯ জানুয়ারি, ২০১৯, ১০:১৪ এএম says : 0
      মন্দকে মন্দ বলা গালাগালি নয় আর মন্দ দেখে কল্যাণের পথে আহবান না করা কৃপণতাই বটে।
  • Amir Hossian ১৯ জানুয়ারি, ২০১৯, ১:০৭ এএম says : 0
    কিছু মানুসের মনোরঞ্জনের জন্য জীবন অতিবাহিত করবে মেয়েটি। অভিভাবকহীন ও ধর্মত্যাগী রাহাফ।
    Total Reply(0) Reply
  • হারুন ১৯ জানুয়ারি, ২০১৯, ১:২১ এএম says : 0
    আসলে নষ্ট সৌদি মেয়েটা নাটক বানিয়ে মানালা সাজাতে চাই। নষ্ট এই মেয়ে ইসরাইলের তৈরি
    Total Reply(0) Reply
  • parvez ১৯ জানুয়ারি, ২০১৯, ২:০৪ পিএম says : 0
    কেন জানি মনে হচ্ছে, অনেক খুঁজে সৌদি সরকার এই মেয়েটিকে বের করেছে এবং তাকে দিয়ে এসব করাচ্ছে যাতে কিছুদিন পরে নারী স্বাধীনতার দরকার এই বলে ওখানে আর একটু উলঙ্গপনার লাইসেন্স দেয়া যায়।
    Total Reply(0) Reply
  • Mohammed Kowaj Ali khan ১৯ জানুয়ারি, ২০১৯, ৫:৫৪ এএম says : 0
    তুমি তুমার জীবন ধংস করিয়া দিলায়। you are destroying your life. One day coming you will suffer lots and lots. Come back to life of Islam. You will be safe. Insallah.
    Total Reply(0) Reply
  • manik ১৯ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:৪১ পিএম says : 0
    আল্লাহ আমাদেরকে হেদায়েত দান কর
    Total Reply(0) Reply
  • Dr. S. M. Shamsur Rahman ১৯ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:১৪ পিএম says : 0
    Misguided girl! May the most merciful Allah guide her in the right path of Islam.
    Total Reply(0) Reply
  • Dr. S. M. Shamsur Rahman ১৯ জানুয়ারি, ২০১৯, ২:০০ পিএম says : 0
    Misguided girl! May the most merciful Allah guide her in the right path of Islam.
    Total Reply(0) Reply
  • Nannu chowhan ১৯ জানুয়ারি, ২০১৯, ৮:৩৮ এএম says : 0
    Manonio shompadok shaheb eai dhoroner jahannmi kaferder krianokder shongbad potre prokash na kore amader jobo shomajer moddhe neti bachok provab mokto rakhle khushi hotam,dhonnobad..
    Total Reply(0) Reply
  • Amin ১৯ জানুয়ারি, ২০১৯, ৮:৪০ এএম says : 0
    হায় এরই নাম স্বধীনতা! মদ আর গাজা সেবনের জন্য নিজ ধর্ম,পেটে ধারন করীনি "মা"জন্ম দাতা " বাবা " ভাই- বোন ,দেশ ছাড়তে পারলো ! আহ! হায় হায়!! কেমন মেয়ে? কেমন মানুষ? মানুষ বুঝি এমন হয়, না মানুষ এমন হয়না ৷ আসলে আল্লাহ এমন………………… হতে পুন্যভুমি সৌদি আরবকে পবিত্র করেছেন,সকল প্রশংসা আল্লাহর জন্য ৷
    Total Reply(0) Reply
  • ওমায়ের আল হোসাইনী ১৯ জানুয়ারি, ২০১৯, ৯:১৫ এএম says : 0
    হায়রে, এর নাম বুঝি নারী স্বাধীনতা!
    Total Reply(0) Reply
  • মিজান ২১ জানুয়ারি, ২০১৯, ৭:৫০ পিএম says : 0
    শুকটের মাংস খাওয়া হারাম।। কোন মুসলিম এটা করতে পানেনা।।। এটা ব্যহাপনা ছারা আর কিছু না।।।।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সউদী আরব

১৫ জানুয়ারি, ২০১৯
১০ জানুয়ারি, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ