Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার ২৫ জুন ২০১৯, ১১ আষাঢ় ১৪২৬, ২১ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

তামিমে ম্লান জুনায়েদ

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২০ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

স্লো উইকেটে ১৮১ রানেসর সংগ্রহটা সহজ নয়। খুলনা টাইটান্সের ছুঁড়ে দেওয়া সেই কঠিন লক্ষ্য ঝড়ো ব্যাটিংয়ে সহজ করে দিলেন তামিম ইকবাল। রোমাঞ্চ উপহার দিয়ে শেষ পর্যন্ত ২ বল আর ৩ উইকেট হাতে রেখে ম্যাচ জিতে নেয় তামিমের কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। তামিমের রানে ফেরার ম্যাচে ম্লান হয়ে গেছে জুনায়েদ সিদ্দিকের ৭০ রানের ঝলমলে ইনিংস।
আগের ম্যাচ শেষে নিজের রানক্ষরা নিয়ে চিন্তিত না থাকার কথা জানিয়েছিলেন তামিম। তার ব্যাট কথা বলল পরের ম্যাচেই। বিশাল লক্ষ্যটা তিনি মামুলি করে তুললেন ১২ ওভারে এনামুলের সঙ্গে ১১৫ রানের ওপেনিং জুটিতে। খেলেছেন ৪২ বলে ১২ চার ও ১ ছক্কায় ৭৩ রানের ইনিংস। ১২ রানের ব্যবধানে বিদায় নেন এনামুলও (৩৭ বলে ৪০)। শেষ চার ওভারে ডসন, ইমরুল কায়েস, আফ্রিদি ও জিয়াউরের উইকেট তুলে নিয়ে রোমাঞ্চ জাগিয়ে তোলে খুলনার বোলার জুনায়েদ খান। ৩২ রানে পাক বোলার নেন ৪ উইকেট। কিন্তু অপর প্রান্তে যে তখনও ব্যাটে থিসারা পেরেরা। কার্লোস ব্রাফেটের করা শেষ ওভারে দরকার ছিল ৮ রান, চার বলে ৬। টানা চার ও ছক্কায় হিসাবটা মিলিয়ে নেন থিসারা।
ছয় ম্যাচে চার জয়ে পয়েন্ট তালিকার দুইয়ে কুমিল্লা। আগের ম্যাচে সিলেট সিক্সার্সকে হারানো ঢাকা ডায়নামাইটস ৬ ম্যাচে ৫ জয় নিয়ে তালিকার শীর্ষে। সমান ম্যাচে মাত্র এক জয়ে তালিকার তালনির দল খুলনা।
অথচ এদিনই প্রথম কথা বলেছে খুলনার ব্যাটিং লাইনআপ। নিজেদের প্রথম ম্যাচে তারা ৫ উইকেটে ১৬১ রান করেও ৮ রানে ম্যাচ হেরেছিল। গতকালের আগ পর্যন্ত ওটাই ছিল এবারের বিপিএলে তাদের সর্বোচ্চ সংগ্রহ। এবার সেটাকে ছাড়িয়েও শেষ রক্ষা হলো না টাইটান্সের।
সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে গতকাল টস হেরে ব্যাট শুরু করা খুলনা প্রথম ওভারে জহুরুলকে হারালেও আরেক ওপেনার জুনায়েদ ছিলেন অবিচল। দ্বিতীয় উইকেটে আল-আমিনকে নিয়ে গড়েন ৭১ রানের জুটি। ১৯ বলে কার্যকরী ৩২ রানের ইনিংস খেলা আল-আমিনের পর মাহমুদউল্লাহকেও একশ রানের আগেই বোল্ড করেন শহিদ আফ্রিদি। এরপর ডেভিড মালানকে নিয়ে আবার ফিফটি জুটিতে নেতৃত্ব দেন জুনায়েদ। জুটি ভাঙে জুনায়েদের দুর্ভাগ্যজনক রান আউটে। তার আগে ৪১ বলে চারটি করে ছক্কা-চারে ৭০ রান করেন জাতীয় দলের সাবেক ওপেনার। এরপর বাকিদের ছোট কিন্তু কার্যকরী অবদানে ৭ উইকেটে ১৮১ রানের পুঁজি পায় খুলনা।
খুলনা : ২০ ওভারে ১৮১/৭ (জুনায়েদ ৭০, আল-আমিন ৩২, মাহমুদউল্লাহ ১৬, মালান ২৯, ব্রাফেট ১২, আরিফুল ১৩; সাইফউদ্দিন ১/২৯, ওহাব ২/৩৪, আফ্রিদি ৩/৩৫)। কুমিল্লা : ১৯.৪ ওভারে ১৮৬/৭ (তামিম ৭৩, এনামুল ৪০, ইমরুল ২৮, পেরেরা ১৮*, আফ্রিদি ১২; জুনায়েদ ৪/৩২, মাহমুদউল্লাহ ১/৩৬, মালিঙ্গা ১/২২)। ফল : কুমিল্লা ৩ উইকেটে জয়ী। ম্যাচসেরা : তামিম ইকবাল।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: জুনায়েদ


আরও
আরও পড়ুন