Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার ২৭ জুন ২০১৯, ১৩ আষাঢ় ১৪২৬, ২৩ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

নারায়ণগঞ্জে নিজ ফ্লাটে প্রবাসীর স্ত্রী খুন লাশ পুড়িয়ে ফেলার চেষ্টা

স্টাফ রিপোর্টার নারায়ণগঞ্জ থেকে : | প্রকাশের সময় : ২১ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:০৩ এএম

নারায়ণগঞ্জের বন্দরে নিজ ফ্লাটে দিনে দুপুরে খুন হয়েছেন প্রবাসীর স্ত্রী দুই সন্তানের জননী নাঈমা রহমান (৩৭)। তাকে ধারালো বটি দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। হত্যার পর ফ্লোরে কোরেসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দিয়ে পালিয়ে যায় অজ্ঞাত দূর্বৃত্তরা। গতকাল শনিবার দুপুরে বন্দর থানার সোনাকান্দার ত্রিবেনী পুল এলাকার আমিনুল হক মনার ৩ তলা বাড়ির দোতলার একটি ফ্লাটে এ হত্যাকান্ডটি ঘটে। নিহত গৃহবধূ নাঈমা রহমান থাইল্যান্ড প্রবাসী আনিসুর রহমানের স্ত্রী। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ একটি ধারালো বটি ও ১টি মানি ব্যাগ উদ্ধার করেছে।
গতকাল শনিবার দুপুরে সোনাকান্দা নোয়াদ্দা এলাকাবাসী ভবনের একটি ফ্লাটে অগ্নিসংযোগ দেখতে পেয়ে বন্দর থানা পুলিশে খবর দেয়। পরে পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থল এসে ফ্লাট থেকে গৃহবধূর মৃত দেহ উদ্ধার করে।
এ ব্যাপারে নিহত গৃহবধূর মেয়ে বন্দর গার্লস স্কুলের ১০ম শ্রেণীর ছাত্রী আনুসি জানান, প্রতিদিনের মত আমি ১১টায় স্কুলে চলে যাই। স্কুল ছুটি শেষে আমি ১টা ৪০ মিনিটে আমাদের ফ্লাটে তালা খুলে দেখতে পাই অগ্নিসংযোগ অবস্থায় আমার মা মেঝেতে পড়ে আছে। আমি সঙ্গে সঙ্গে পানি ঢেলে আমার মায়ের শরীরে আগুন নিভানোর চেষ্টা করি।
এ ব্যাপরে বন্দর থানার ওসি রফিকুল ইসলাম জানান, লাশের গায়ে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। অজ্ঞাত খুনি গৃহবধূকে কুপিয়ে হত্যার পর মৃতদেহ অগ্নিসংযোগ করে পালিয়ে গেছে। আমরা হত্যাকান্ডের স্থান থেকে ১টি ধারালো মাছ কাটার বটি, ১টি ম্যানিব্যাগ, এবং ম্যানিব্যাগের ভিতরে একটি ছবি ও ১টি সিগারেট উদ্ধার করি। আমরা হত্যাকান্ডের রহস্য উদঘাটনের জন্য চেষ্টা চালাছি।
হত্যাকান্ড সংগঠিত হওয়া ফ্লাটের ৩টি চাবির মধ্যে ১টি চাবি গৃহবধূ নাঈমার কাছে থাকত। এবং বাকি ২টি চাবির মধ্যে ১টি চাবি তার মেয়ে আনুশি কাছে অপর চাবিটি নিহতের ছোট ভাই কামরুলের কাছে থাকত। আমরা তার মেয়ে আনুশি ও তার মামা কামরুলকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছি। আমরা হত্যাকারিকে শনাক্ত করে আইনের আওতায় আনার চেষ্টা চালিয়েছি। এ ব্যাপারে বন্দর থানায় হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: হত্যা

২৬ জুন, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন