Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৩ আশ্বিন ১৪২৬, ১৮ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।
শিরোনাম

নৈতিকতাবিবর্জিত সমাজ ব্যবস্থার ফলে সীমা ছাড়িয়ে যাচ্ছে ধর্ষণ

ইসলামী আন্দোলন

স্টাফ রিপোর্টার : | প্রকাশের সময় : ২১ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:০২ এএম

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ঢাকা মহানগর উত্তর সভাপতি প্রিন্সিপাল মাওলানা শেখ ফজলে বারী মাসউদ বলেছেন, নৈতিকতা বিবর্জিত শিক্ষা ও সমাজ ব্যবস্থার কারণে মানুষ ক্রমেই বিপদগামী হচ্ছে। ফলে মানুষ মনুষ্যত্ব হারিয়ে ফেলছে। যুব সমাজ নিশ্চিত ধ্বংসের দিকে ধাবিত হচ্ছে। সামাজিক অবক্ষয় এতই মারাত্মক আকার ধারণ করছে যে, দু’বছরের শিশুরাও আজ নিরাপদ নয়। নৈকিতা বিবর্জিত পরিস্থিতি থেকে বাঁচতে হলে জীবনের সর্বক্ষেত্রে ইসলামকে অনুসরণ করতে হবে। ইসলামী অনুশাসন ছাড়া নৈতিকতা বিবর্জিত সমাজকে রক্ষার কোন পথ নেই। এজন্য প্রচলিত সমাজ ও রাষ্ট্র ব্যবস্থার পরিবর্তন ঘটাতে হবে।গতকাল রাজধানীর পুরানা পল্টনস্থ আইএবি মিলনায়তনে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ঢাকা মহানগর উত্তরের থানা দায়িত্বশীলদের এক যৌথ সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন। এতে বক্তব্য রাখেন নগর উত্তর সহ-সভাপতি আলহাজ হারুনুর রশিদ, নগর উত্তর সেক্রেটারি মাওলানা আরিফুল ইসলাম, হাফেজ মাওলানা সিদ্দিকুর রহমান, মুফতি মাছউদুর রহমান, মুফতি ফরিদুল ইসলাম, আলহাজ একেএম নাজমুল হক, অ্যাড. শওকত আলী হাওলাদার, ডা. মজিবুর রহমান, হাজী আলাউদ্দিন প্রমুখ।

ভিটামিন এ ক্যাপসুল ভারতের চক্রান্তের অংশ : ভিটামিন এ ক্যাপসুলের মাধ্যমে দেশের ২ কোটি ২০ লাখ শিশুকে অনিশ্চিত ভবিষ্যতের দিকে ঠেলে দিয়েছে ভারত ও এদেশের চক্রান্তকারীরা। এই চক্রান্তের সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে দ্রুত আইনী ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানিয়েছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মাওলানা আহমদ আবদুল কাইয়ূম। গতকাল এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, ভারত বিভিন্নভাবে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে চক্রান্ত করছে। সে ধারাবাহিকতায় এবার ভিটামিন এ ক্যাপসুল সরবরাহ করে ২ কোটি ২০ লাখ শিশুকে মেরে ফেলার চক্রান্ত করল ভারতের একটি কোম্পানী।
তিনি বলেন, ভারতীয় কোম্পানীটি মামলা করে এদেশকে কিভাবে ওষুধ কিনতে বাধ্য করল তা বোধগম্য নয়। আদালত কিভাবে এ কোম্পানীর পক্ষে গেল তা বুঝা যাচ্ছে না। ভিাটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানোর মাত্র একদিন আগে কেন তা ধরা পড়লো। স্বাস্থ্য অধিদপ্তর ও মন্ত্রণালয়ের কাজটা কী? তিনি ভারতের ওষুধ কোম্পানীর বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ করার দাবি করেন। বিবৃতিতে এ কোম্পানীর ওষুধ আমদানীতে যারাই সহায়তা করেছে বিচার বিভাগীয় তদন্ত করে দোষীদের ব্যাপারে কার্যকর ব্যবস্থা নেয়ার দাবি করা হয়।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ইসলামী আন্দোলন

২৬ অক্টোবর, ২০১৮
১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ