Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৫ ফাল্গুন ১৪২৫, ১১ জামাদিউস সানি ১৪৪০ হিজরী।

‘ব্যাংক খাত দেশের অর্থনীতির প্রাণশক্তি’

অর্থনৈতিক রিপোর্টার : | প্রকাশের সময় : ২১ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:০২ এএম

ব্যাংকিংখাতকে দেশের অর্থনীতির প্রাণশক্তি হিসেবে উল্লেখ করে ভারপ্রাপ্ত শিল্প সচিব মো. আবদুল হালিম বলেছেন, এখাতে দক্ষতা বাড়াতে উৎপাদনশীলতা উন্নয়নের বিভিন্ন কৌশল প্রয়োগে এগিয়ে আসতে হবে। তিনি বলেন, ব্যাংকিংখাত যত দক্ষ হবে, তহবিলের পরিচালন ব্যয় তত কমে আসবে। এর ফলে বিনিয়োগ বাড়বে এবং শিল্পখাত চাঙ্গা হবে তিনি মন্তব্য করেন। ভারপ্রাপ্ত শিল্পসচিব গতকাল রোববার ‘ব্যাংকিংখাতে উৎপাদনশীলতা উন্নয়ন কৌশল’ শীর্ষক কর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য এ মন্তব্য করেন। শিল্প মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন ন্যাশনাল প্রোডাক্টিভিটি অর্গানাইজেশন (এনপিও) দিনব্যাপী এ কর্মশালার আয়োজন করে। ন্যাশনাল প্রোডাক্টিভিটি অর্গানাইজেশনের (এনপিও) পরিচালক এস এম আশরাফুজ্জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব লুৎফুন নাহার বেগম বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন।
শিল্প সচিব বলেন, উৎপাদনশীলতা একটি ব্যাপক ধারণা এবং এটি বৃদ্ধির মাধ্যমে টেকসই উন্নয়ন লক্ষ অর্জন সম্ভব। এসডিজি লক্ষ্য নির্ধারণের ক্ষেত্রে পৃথিবীর কোন ধরনের নেতিবাচক পরিবর্তন ছাড়াই টেকসই উন্নয়নের কথা বলা হয়েছে। এ বিবেচনায় ব্যাংক ও আর্থিক খাতে গুণগত পরিবর্তন আনতে হবে। বিশেষ করে, শিল্পখাতে পুঁজি প্রবাহ বাড়াতে ব্যাংকিংখাতে উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধির প্রয়াস জোরদার করতে হবে। এজন্য ব্যাংকারদের দৃষ্টিভঙ্গি পরিবর্তন জরুরি বলে তিনি উল্লেখ করেন।
উল্লেখ্য, রাজধানীর মতিঝিলে অবস্থিত এনপিও সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত এ কর্মশালায় বাংলাদেশ ব্যাংক, বিভিন্ন সিডিউল ও নন-সিডিউল ব্যাংক, ব্যাংকারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশসহ ব্যাংক সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের প্রায় অর্ধশত কর্মকর্তা অংশ নেন। এতে উৎপাদনশীলতার মৌলিক ধারনা, আর্থিক প্রতিষ্ঠানের বেস্ট প্রাকটিস, উৎপাদনশীলতা বিষয়ক জাপানি কৌশল ‘ফাইভ এস’ এবং গুড হাউজ কিপিং বিষয়ে ধারণা দেয়া হয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ