Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৮ ফাল্গুন ১৪২৫, ১৪ জামাদিউস সানি ১৪৪০ হিজরী।

মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রীদের ফুল দেয়া কমছে

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২১ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:০২ এএম

গত ৮ জানুয়ারী থেকে নতুন মন্ত্রীদের প্রথম কার্যদিবসে প্রশাসনের প্রাণকেন্দ্র সচিবালয় যেন হয়ে পড়ে ফুল দিয়ে শুরু হয়েছে। নতুন মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রী-উপমন্ত্রীদের বরণ করে নিতে মন্ত্রণালয়ের সচিব থেকে শুরু করে উর্ধ্বতন কর্মকর্তা, কর্মচারীদের ইউনিয়ন নেতা, আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা ফুলে ফুলে ভরিয়ে দেয় মন্ত্রীদের দফতর। তা এখনো চলছে। তবে কয়েকজন মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রীর বাঁধার দেয়ার কারণে তা গতকাল রোববার থেকে কমে গেছে।
গত বৃহস্পতিবার একটি সংগঠনের নেতারা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ে মন্ত্রীকে ফুল দিতে আসলে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে মন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান জানান এখন থেকে আর ফুল নয়, কাজ করেন।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক কর্মকর্তা বলেন, নতুন মন্ত্রিসভায় আসা সদস্যদের হানিমুন এখনো শেষ হয়নি। তা শেষ করতে হবে। এবার কাজ শুরু করুন। মাথায় বঙ্গবন্ধুর এই ভাষণ রাখুন। সামনে রাখুন শেখ হাসিনাকে। এত বছর ক্ষমতায় থেকে শেখ হাসিনা ও তার পরিবার ইতিবাচক ইমেজের এক অধ্যায় তৈরি করেছেন। মানুষের চোখ এখন নতুন মন্ত্রিসভার দিকে। কোনো কিছু এড়ানো যাবে না। দায়িত্ব এক কঠিন জিনিস। সবাইকে দায়িত্ব নিতে হবে। সব সংকটের দীর্ঘমেয়াদী সমাধান করতে হবে। থামিয়ে দিতে হবে অতি উৎসাহীদের। জবাবদিহির পালা শুরু। ফুল নেয়া কমিয়ে কাজে যোগ দেয়া উচিত।
মন্ত্রীদের কাছে সুযোগ-সুবিধার চিন্তায় তাদের সঙ্গে পরিচিত হতে হুমড়ি খেয়ে পড়েন অসংখ্য নতুন ও পরিচিত মুখ। মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা কর্মচারীরা যেমন ফুলে ফুলে ভরিয়ে দেন মন্ত্রীকে। গত ৮ জানুয়ারি থেকে নতুন মন্ত্রীদের প্রথম কার্যদিবসে প্রশাসনের প্রাণকেন্দ্র সচিবালয় যেন হয়ে পড়ে ফুলের রাজ্য। নতুন মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রী-উপমন্ত্রীদের বরণ করে নিতে মন্ত্রণালয়ের সচিব থেকে শুরু করে উর্ধ্বতন কর্মকর্তা, কর্মচারীদের ইউনিয়ন নেতা, আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা ফুলে ভরিয়ে দেয় মন্ত্রীদের দফতর।
এবারের মতো সচিবালয়ে এতো ফুলের ছড়াছড়ি অতীতে কখনো দেখা যায়নি। এমনকি আওয়ামী লীগ ২০০৯ সালে ও ২০১৪ সালে সরকার গঠনের পরও মন্ত্রীদের বরণ নিতে এতো ফুলের সমারোহ চোখে পড়েনি। কর্মকর্তা-কর্মচারী, সাংবাদিক ও আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে ‘মন্ত্রী বরণের’ এতো এলাহী আয়োজন দেখা যায়নি। নতুন মন্ত্রিসভায় পূর্ণমন্ত্রিত্ব পেয়েছেন ২৪ জন, প্রতিমন্ত্রী হয়েছেন ১৯ জন। এছাড়া তিনজনকে উপমন্ত্রী করা হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মন্ত্রী

২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন