Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৮ ফাল্গুন ১৪২৫, ১৪ জামাদিউস সানি ১৪৪০ হিজরী।

ক্যাম্পাস ভিন্ন হলেও মাদক সেবনে এক : আটক ১০

জাবি সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ২১ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:০২ এএম

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘হিম উৎসব’ অনুষ্ঠানে এসে মাদক সেবনকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ৩ নারী শিক্ষার্থীসহ ১০ জনকে আটক করেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরিয়াল বডি।
শনিবার রাত সাড়ে ১০টা থেকে ২টা পর্যন্ত অভিযান পরিচালনা করে বিশ্ববিদ্যালয়ের সেলিম আল দ্বীন মুক্তমঞ্চের আশপাশে বসা মাদকের আখড়া থেকে তাদেরকে আটক করা হয়। আটককৃতদের কাছে গাঁজা, ইয়াবা, মদ, শিশা খাওয়ার সরঞ্জাম পাওয়া যায়।
আটককৃত ঢাবির শিক্ষার্থীরা হলেন- সাইকোলজি বিভাগের নুসরাত জাহান, ফারসি বিভাগের জান্নাতুল ফেরদৌস, সামিহা হক (এমআইএস) ও ডেপলভমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের হাবিব আহসান, আশফাক হোসেন এবং খাইরুল ইসলাম শুভ। এছাড়া জবির কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ার বিভাগ আসাদুজ্জামান নূর।
বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অফিস সূত্রে জানা যায়, রাত সাড়ে ১০ টা থেকে প্রক্টরিয়াল বডি ও নিরাপত্তা শাখার সদস্যরা ক্যাম্পাসে টহলরত অবস্থায় আটককৃত শিক্ষার্থীদের মুক্তমঞ্চের আশপাশে ও কেন্দ্র্রীয় খেলার মাঠে হাতেনাতে মাদক সেবন অবস্থায় দেখতে পায়। পরে নিরাপত্তা শাখার সদস্যরা তাদেরকে ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে নিরাপত্তা শাখা অফিসে নিয়ে যায়। সেখানে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা তাদের ভুল স্বীকার করেন এবং ভবিষ্যতে এরকম ঘটনার সাথে জড়িত হবে না বলে প্রতিজ্ঞা করেন। আটককৃতদের মধ্যে ৯ জনকে মুচলেকা নিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। তবে জবির আসাদুজ্জামান নূরকে পুলিশে সোর্পদ করা হয়েছে।
এই বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর আ স ম ফিরোজ-উল-হাসান বলেন, ‘মুক্তমঞ্চে ‘হিম উৎসবে’র কনসার্ট চলাকালে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের অনেক গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি মঞ্চে ছিল। কিন্তু মঞ্চজুড়ে গাঁজার গন্ধ। এমন অবস্থায় আমরা মাদকের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করি। তখন আমরা দেখতে পাই বহিরাগত কিছু শিক্ষার্থী কয়েকটি দলে বিভক্ত হয়ে গাঁজা ও মদ খাচ্ছিল। তাদেরকে আটক করে সবাইকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে মুচলেকা নিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। আর একজনকে পুলিশে দেওয়া হয়েছে।’
তিনি আরো বলেন, ‘মাদকের বিরুদ্ধে আমরা ‘জিরো টলারেন্স’ নিয়েছি। মুক্তমঞ্চের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানকে ঘিরে এভাবে প্রকাশ্যে বহিরাগতদের মাদক সেবন ও মাদক গ্রহণ খুবই দুঃখজনক। এই বিষয়ে ‘হিম উৎসবে’র আয়োজকদের একজন স্বাগতম নীল বলেন, এই ঘটনা হিম উৎসবের সাথে সংশ্লিষ্ট না। মাদক যারা গ্রহণ করেছে তারা বহিরাগত, তারা ব্যাক্তিগতভাবে করেছে। এর দায়ভার হিম উৎসব কর্তৃপক্ষ নিবেনা। হিম উৎসব কর্তৃপক্ষ মাদক সংশ্লিষ্ট কোন বিষয়কে সমর্থন করেনা।



 

Show all comments
  • Nannu chowhan ২১ জানুয়ারি, ২০১৯, ৮:৪৬ এএম says : 0
    Eai 10 botsorer moddhe amader jobok jobotider moddhe eto beshi odhopoton ghotese bishesh kore protibeshi desher tv channel golir bikrito rochir onushtan golio er jonno bishesh vabe daiee kora jete pare.Age amra kokhonoi shonini je,joboti ba satrira mod pan kore, ekhon poribar golike eai shomosto oshohonoi bojhagoli bohon korte hoytese....
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: জাবি


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ