Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৮ ফাল্গুন ১৪২৫, ১৪ জামাদিউস সানি ১৪৪০ হিজরী।

মন্ত্রীদের সততার সঙ্গে কাজ করার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২১ জানুয়ারি, ২০১৯, ১১:৪১ এএম
একাদশ জাতীয় সংসদের নতুন মন্ত্রিসভার সদস্যদের সততা ও নিষ্ঠার সঙ্গে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সংসদের মন্ত্রিসভার প্রথম বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী এ আহ্বান জানান। আজ সোমবার সকাল ১০টায় তেজগাঁওয়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে শুরু হওয়া ওই  বৈঠকে সভাপতিত্ব করছেন প্রধানমন্ত্রী। বৈঠক শেষে সার্বিক বিষয় নিয়ে সাংবাদিকদের ব্রিফ করবেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব শফিউল আলম।
 
মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, এ বৈঠকে ছয়টি আলোচ্যসূচি রয়েছে। এর মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে- সংসদের প্রথম অধিবেশনে প্রেসিডেন্ট মো. আবদুল হামিদের ভাষণ। প্রথম মন্ত্রিসভা বৈঠকে প্রেসিডেন্ট যে ভাষণ দেবেন তার খসড়া অনুমোদন করা হতে পারে। এ সংক্রান্ত ভাষণটির খসড়া মন্ত্রীদের কাছে পাঠানো হয়েছে।
 
প্রেসিডেন্টের ভাষণ ছাড়া বাকি পাঁচটি আলোচ্যসূচি হচ্ছে- গণপ্রতিনিধিত্ব (সংশোধন) আইনের খসড়ার নীতিগত অনুমোদন। ইট প্রস্তুত ও ভাটা স্থাপন (নিয়ন্ত্রণ) (সংশোধন) আইনের খসড়ার নীতিগত ও চূড়ান্ত অনুমোদন। জাতীয় সমাজকল্যাণ পরিষদ আইনের খসড়ার চূড়ান্ত অনুমোদন।
 
বাংলাদেশ শিল্প কারিগরি সহায়তা কেন্দ্র আইনের নীতিগত অনুমোদন এবং প্রতিবন্ধী ব্যক্তির অধিকার ও সুরক্ষা আইন, ২০১৩ এবং প্রতিবন্ধী ব্যক্তির সুরক্ষা বিধিমালা-২০১৫ এর আলোকে প্রতিবন্ধীবিষয়ক জাতীয় কর্মপরিকল্পনার খসড়ার অনুমোদন। 


 

Show all comments
  • Mohammed Shah Alam Khan ২১ জানুয়ারি, ২০১৯, ১১:৪২ পিএম says : 0
    প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত নতুন মন্ত্রীসভার প্রথম বৈঠকে সততা ও দক্ষতার সঙ্গে কাজ করতে নতুন মন্ত্রীদের নির্দেশ দিয়েছেন। আমার বিশ্বাস নেত্রী হাসিনা তার নিযুক্ত মন্ত্রীদেরকে সঠিক ভাবে নিয়ন্ত্রন করতে পারবেন এতে কোন সন্দেহ নেই। এর পূর্ববর্তী মন্ত্রীসভার সদস্যদেরকে তিনি নিয়ন্ত্রণে আনতে হিমশিম খাচ্ছিলেন এটা আমরা উপলব্ধি করতে পেরেছিলাম এবং নেত্রীর আজকের নির্দেশে সেটা বুঝাগেল। তবে প্রশাসনিক দিক থেকে নেত্রী হাসিনা দক্ষতার সাথে দুইটি টার্ম শেষ করেছেন; তিনি বুঝতে পেরেছিলেন তিনি যা করে যাচ্ছেন জনগণ তার চায়ে বেশী আশা করছে। তাই তিনি বুঝেছিলেন আরও একবার ক্ষমতায় আসতে পারলে তিনি তার এই দুর্বল যায়গাটাকে সামল দিয়ে জনগণকে ১১০% ভাল কাজ করে খুশী করতে পারবেন। কাজেই তিনি নির্বাচনের শেষ মুহূর্তে বলেছিলেন আওয়ামী লীগকে আরও একবার সরকারে আসা দরকার। তিনি জনগণকে খুশি করার জন্যে যেসব খেলা খেলতে হবে এবং সেই খেলার জন্যে যেসব সরঞ্জামের প্রয়োজন সেসব তিনি গুছিয়ে নিয়েই এই কথাটা প্রকাশ্য জনসভায় বলেছিলেন ‘আরও একবার ক্ষমতায় যাওয়া দরকার’। মহান আল্লাহ্‌ ওনার এই প্রার্থনা কবুল করেছেন, যেহেতু তিনি একজন কঠিন ধার্মিক লোক তাই তিনি ক্ষমতা পাওয়ার সাথে সাথেই তিনি যেভাবে প্রস্তুতি নেয়েছিলেন সেইভাবেই খেলতে শুরু করেছেন। আল্লাহ্‌র মেহেরবানিতে আমরা ১০০ দিনের মধ্যেই দেশের পরিবর্তন লক্ষ করতে পারবো ইনশ’আল্লাহ।আমিন
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: প্রধানমন্ত্রী

২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন