Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২০, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৯ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

কেন্দুয়ায় মিথ্যা মামলায় হয়রানি

পুলিশ সুপার বরাবরে লিখিত অভিযোগ

নেত্রকোনা জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২২ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:০৩ এএম

পৈত্রিক সম্পত্তির ভাগ ভাটোয়ারা নিয়ে বিরোধের জের ধরে অব্যাহত ষড়যন্ত্র ও একের পর এক মিথ্যা মামলায় জড়িয়ে হয়রানীর প্রতিকার চেয়ে পুলিশ সুপার বরাবরে লিখিত অভিযোগ করেছেন ভূক্তভোগী অসহায় মো. ভাষানী মিয়া।

লিখিত অভিযোগে প্রকাশ, নেত্রকোনা জেলার কেন্দুয়া উপজেলার আশুজিয়া ইউনিয়নের ভূগিয়া চাঁনপুর গ্রামের সৈয়দ আলীর মৃত্যুর পর তার পুত্র সুচতুর হাজী লাল মিয়া অন্যান্য ভাই ও ভাতিজাদের নিরক্ষরতার সুযোগ নিয়ে সম্পূর্ণ গোপনে ২০ একর জমি তার নামে বিএস রেকর্ডভূক্ত করিয়ে নেন। হাজী লাল মিয়ার মৃত্যুর পর বিষয়টি জানতে পেরে ফিরোজ মিয়ার পুত্র মোঃ ভাষানী মিয়া ওয়ারিশ বঞ্চিত অন্যান্যদের পক্ষ্যে ওয়ারিশ দাবি করে লাল মিয়ার স্ত্রী রোকেয়া বেগমকে বিবাদী করে যুগ্ম জেলার জজ আদালতে ওয়ারিশান মামলা দায়ের করেন। মামলাটি বর্তমানে বিচারাধীন রয়েছে।

ওয়ারিশান মামলা দায়েরের পর রোকেয়া বেগম প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করতে নানা ধরণের অত্যাচার নির্যাতন ও গভীর ষড়যন্ত্র অব্যাহত এবং একের পর এক মিথ্যা মামলা দিয়ে ব্যাপক হয়রানী করে আসছে। প্রাণনাশ এবং গ্রেফতার আতঙ্কে তাদের স্বাভাবিক জীবন যাত্রা ব্যাহত হচ্ছে। রোকেয়া বেগম কর্তৃক দায়েরকৃত ৪৬ (১) ২০১৮ নং মামলাটি পুলিশ তদন্ত করে স্বাক্ষ্য প্রমান গ্রহন করে মিথ্যা প্রমাণীত হওয়ায় আদালতে চূড়ান্ত রিপোর্ট পেশ করেন। সম্প্রতি আমন মওসুমে ভাষানী গংরা তাদের স্বত্ত¡ দখলীয় জমির ধান কেটে বাড়িতে আনায় তাদের বিরুদ্ধে ধান কেটে নেয়ার মামলা দায়ের করেন। এখন চলছে ইরি-বোরো মওসুম। নানা ধরনের অত্যাচার নির্যাতন ও হয়রানীর কারণে তারা জমিতে বোরো আবাদ করতে পারছে না। ভূক্তভোগী অসহায় ভাষানী গংরা মিথ্যা মামলা ও হয়রানীর প্রতিকার চেয়ে সম্প্রতি পুলিশ সুপার বরাবরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

এ ব্যাপারে পুলিশ সুপার জয়দেব চৌধুরীর সাথে যোগাযোগ করলে তিনি লিখিত অভিযোগ পাওয়ার কথা স্বীকার করে বলেন, সুষ্ঠু তদন্ত পূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মামলা

১ ডিসেম্বর, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন