Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৫ ফাল্গুন ১৪২৫, ১১ জামাদিউস সানি ১৪৪০ হিজরী।

আবারো চিটাগংয়ের নায়ক ফ্রাইলিঙ্ক

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২২ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:০২ এএম

লো স্কোরিং ম্যাচে দুর্দান্ত বোলিং করে দলকে লড়াইয়ে রাখলেও শেষ ওভারের রোমাঞ্চে হার মানতে হয়েছে সাকিব আল হাসানের ঢাকা ডায়নামাইটসকে। পয়েন্ট তালিকার শীর্ষ দলকে ৩ উইকেটে হারিয়েছে দুই নম্বর দল চিটাগং ভাইকিংস। শেষ ওভারে ১৬ রানের হিসাবটা ১ বল হাতে রেখেই মিলিয়ে নেন রবি ফ্রাইলিঙ্ক।
বল হাতেও এই ফ্রাইলিঙ্কই ঢাকার শুরুটা নড়বড়ে করে দেন। যে ধাক্কা আর সামলে উঠতে পারেনি সাকিবের দল। নির্ধারিত ২০ ওভারে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারিয়ে তারা তুলতে পারে ৯ উইকেটে ১৩৯ রান। ছোট পুঁজি নিয়ে শুরুটা যেমন হওয়ার দরকার ছিল তেমনই করে ঢাকা। আন্দ্রে রাসেলের করা ইনিংসের দ্বিতীয় বলেই আউট মোহাম্মদ শেহজাদ। ১২ বলে ৩০ রান তুলে ভয়ঙ্কর হয়ে ওঠা ক্যামেরন ডেলপোর্টকে ক্লিন বোল্ড করে দেন সাকিব। এরপর নিজের পরের দুই ওভারে ঢাকা দলপতি তুলে নেন ইয়াসির আলি (১৭ বলে ১৫) ও দাশুন শনাকাকেও। এরপর মুশফিকুর রহিম (২৩ বলে ২২) ও মোসাদ্দেক হোসেনদের (৩৯ বলে ৩৩) ব্যাটে যখন জয়ের পথেই ছিল চট্টগ্রাম। হাতে ৪ উইকেট নিয়ে ২৪ বলে যখন চট্টগ্রামের ২৬ রানের দরকার তখন আবারো উইকেট মেডেন নিয়ে দলকে লড়াইয়ে ফেরান সাকিব। ৪ ওভারে সাকিব তুলে নেন ১৬ রানে ৪ উইকেট। কিন্তু শেষ ওভারটা মোহর শেখ ঠিকমত সামলে নিতে পারেননি। প্রথম বলে সিঙ্গেল নিয়ে ফ্রাইলিঙ্ককে স্ট্রাইক দেন সানজামুল। স্ট্রাইকে গিয়ে ফ্রাইলিঙ্ক টানা চার বলে তুলে নেন যথাক্রমে ৬, ২, ৬, ৬। শেষ ২ বলে দরকার ছিল ১। চোট কাটিয়ে ফেরা দক্ষিণ আফ্রিকান হাঁকান ছক্কা। এবার ৩ ওভারে ১৬ রান দেয়া মোহোর এবার দেন ৫ বলে ২১!
এর আগে ব্যাট হাতে শুরু ও শেষ কোনটাই ভালো হয়নি ঢাকার। স্কোরবোর্ডে কোন রান জমা হওয়ার আগেই রনি তালুকদারকে বোল্ড করে দেন ফ্রাইলিঙ্ক। নিজের পরের ওভারে ভয়ঙ্কর হয়ে উঠতে থাকা সুনিল নারাইনকেও (৯ বলে ১৮) বোল্ড করে ঢাকাকে বড় ধাক্কা দেন দক্ষিণ আফ্রিকান পেস অলরাউন্ডার। দক্ষিণ আফ্রিকার হিনো কুনকে নিয়ে সেই ধাক্কা সামলে ওঠার চেষ্টায় ছিলেন দলপতি সাকিব। এসময় কুনকে (২১ বলে ১৮) বোল্ড করেন আবু জায়েদ। ওভারের শেষ বলে দারউইশ রসুলও হন জায়েদের শিকার। স্কোরবোর্ড তখন ৪ উইকেটে ৫৬।
এরপর নুরুল হাসানকে নিয়ে ইনিংস মেরামতে মন দেন সাকিব। তাদের ৪০ রানের জুটি ভাঙে ক্যামেরন ডেলপোর্টের আবির্ভাবে। দক্ষিণ আফ্রিকান অলরাউন্ডার একে একে তুলে নেন সাকিব (৩৪ বলে ৩৪), নুরুল (১৮ বলে ২৭) ও নাইমের উইকেট। এরপরও যে ঢাকা নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে ৯ উইকেটে ১৩৯ করল তা মূলত শুভাগত হোমের কল্যাণে। শেষ বলে রান আউট হওয়ার আগে ১৫ বলে ২৮ রান করেন শুভাগত। ২৫ রানে ৩ উইকেট নেন ডেলপোর্ট, ২টি করে নেন ফ্রেইলিঙ্ক ও আবু জায়েদ।
সাত ম্যাচে পাঁচ জয় ঢাকার, চিটাগংয়ের পাঁচ জয় ছয় ম্যাচে। তবে নেট রান রেটে এগিয়ে তালিকার শীর্ষে ঢাকা।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বিপিএল

৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ