Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৯ ফাল্গুন ১৪২৫, ১৫ জামাদিউস সানি ১৪৪০ হিজরী।

বাংলাদেশের সব দূতাবাসকে ঢাকার সতর্কবার্তা

কূটনৈতিক সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২২ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:০২ এএম

কুয়েতের মতো পরিস্থিতি এড়াতে বাংলাদেশের সব দূতাবাসকে সতকর্বার্তা দিয়েছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।
কুয়েতে বাংলাদেশ দূতাবাসে বাংলাদেশি শ্রমিকদের হামলার ঘটনার প্রতি ইঙ্গিত দিয়ে এ ধরনের ঘটনা যাতে আর কোথাও না ঘটে, সে জন্য প্রবাসীদের আহ্বান জানিয়েছে মন্ত্রণালয়।
পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন সংশ্লিষ্টদের এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়ার জন্য তাগিদ দিয়েছেন। কুয়েতের মতো পরিস্থিতি যেন বিদেশে বাংলাদেশের কোনো দূতাবাসে আর না ঘটে, সে জন্য সতর্ক করেছেন তিনি। উল্লেখ্য, কুয়েতের লেসকো কোম্পানিতে কমর্রত বাংলাদেশি শ্রমিকদের আক্রমণে কুয়েতে বাংলাদেশ দূতাবাসের কাউন্সিলরসহ তিনজন আহত হন। স্থানীয় পুলিশ আসার পর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। এ সময় বেশ কিছুসংখ্যক শ্রমিককে পুলিশ গ্রেফতার করে।
ইতিমধ্যে কুয়েতে বাংলাদেশ দূতাবাস ও বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে তাদের দ্রুত মুক্ত করার পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।
জানা গেছে, বাংলাদেশি শ্রমিকদের কয়েক মাসের বেতন বকেয়া বিষয়ে দেশটির লেসকো কোম্পানির মালিককে কুয়েতে বাংলাদেশ দূতাবাসে ডেকে পাঠানো হয়েছিল। বৈঠকে ওই কোম্পানি ৫ ফেব্রুয়ারির মধ্যে বেতন পরিশোধ ও আকামা নবায়নসহ সব সমস্যা সমাধানে রাজি হয়। বৈঠক শেষে কোম্পানির মালিকপক্ষ বের হয়ে এলে শ্রমিকদের রোষানলে পড়েন।
এ সময় বাংলাদেশি শ্রমিকদের আক্রমণে কুয়েতে বাংলাদেশ দূতাবাসের কাউন্সেলরসহ তিনজন আহত হন।



 

Show all comments
  • Khalid Hussain ২২ জানুয়ারি, ২০১৯, ১:০৫ এএম says : 0
    আমাদের কি হবে। 9 মাসের বেতন পায়নি। তিন মাস রুমে বসা, বাড়িতেও পাঠায় না। কি করা যাই, দুবাই আছি
    Total Reply(0) Reply
  • Muhammad Harunur Rashid ২২ জানুয়ারি, ২০১৯, ১:০৫ এএম says : 0
    দূতাবাসের কর্মকর্তারা নিজেদেরকে মিনিস্টার মনে করে।
    Total Reply(0) Reply
  • Mohammad Mamun ২২ জানুয়ারি, ২০১৯, ১:০৫ এএম says : 0
    সতর্কবার্তা, হুসিয়ারি,আইন,আদালত, তদন্ত এগুলা শুনলে ☺ পায়...
    Total Reply(0) Reply
  • Md Shaporan ২২ জানুয়ারি, ২০১৯, ১:০৬ এএম says : 0
    ইটালিতে করতেছে পাঁসপোর্ট নিয়ে যামেলা,,,এগুলা কি সরকার কিছুই জানেনা
    Total Reply(0) Reply
  • Khorshed Alam Bacchu ২২ জানুয়ারি, ২০১৯, ১:০৭ এএম says : 0
    সরকারের উচিত বাংলাদেশের দূতাবাসে যারা নিয়োজিত আছে তাদেরকে ভারত ও ফিলিপাইন ও পাকিস্তানের দুতাবাস গুলোতে সপ্তাহে একদিন ট্রেনিং করানো হউক ওরা ওই দুতাবাস গুলোতে গিয়ে দেখুক তারা তাদের জাতিদের কে কি সাংঘাতিক ভাবে হেল্প করে আর কতো সুন্দর ও অমায়িক ব্যবহার করে যা দেখলে আমরা বাংগালিরা আফসোস করি আর মনে মনে বলি হায় কবে আমাদের দুতাবাসের লোকগুলো এমন আদব কায়দা ও মানুষ হবে আমি নিজের চোখে দুবাইতে ভারতের দুতাবাসে গিয়ে দেখেছি সে কি আপ্যায়ন জুস ঠানডায়পানীয় অতুলনীয় আন্তরিকতা। তারপরেও যদি তারা মানুষ হয় এই কামনা ই করি।
    Total Reply(0) Reply
  • Mahbubur Rahman Peyas ২২ জানুয়ারি, ২০১৯, ১:০৮ এএম says : 0
    কিছু দিন পর আমি পোল্যান্ডের বাংলাদেশ দূতাবাসের কর্মকর্তাদের...বো ইনশাআল্লাহ।... জিজ্ঞেস করলাম আমি কিভাবে বাংলাদেশী ড্রাইভিং লাইসেন্স কে পোলিশ লাইসেন্সে এক্সচেঞ্জ করবো। তারা আমার লাইসেন্স দেখে জবাব দেয় আপনার লাইসেন্স অরিজিনাল।... মুর্খ কোথাকার। কইলাম রাজরানী শুনে চু..মারানি।
    Total Reply(0) Reply
  • Imran Akon ২২ জানুয়ারি, ২০১৯, ১:০৮ এএম says : 0
    দূতাবাস থেকে যদি কোন প্রবাসি উপকার না পায় তাহলে দূতাবাস থেকে কি লাভ, সর্বশেষ কখন কোন শ্রমিক দূতাবাসে যায় যখন সে আর অন্যায় সহ্য করতে না পারে তখন, আর যদি দূতাবাস যদি বলে আমাদের কাছে আসছেন কেন? এত টাকা দিয়ে কে আপনাকে আসতে বলেছে তখন সবার মাথাই কম বেশি গরম হয়...... তাই দূতাবাস হতে হবে স্বচ্ছ, দালাল মুক্ত, কোন শ্রমিকের বেতন বা আকামা জটিলতা থাকলে তার পক্ষ হয়ে এ্যাকশন নেয়া বা তাকে সঠিক পথ দেখিয়ে দেওয়া... কিন্তু দূতাবাস কর্মকর্তা যদি অফিসিয়াল ভাব নেয় অবমূল্যায়ন করে তখন এ্যাম্বাসি দিয়ে কি হবে.... আমাদের পাশ্ববর্তী দেশ ভারত
    Total Reply(0) Reply
  • Helaluddin Helal ২২ জানুয়ারি, ২০১৯, ১:০৯ এএম says : 0
    সবার আগে সোদিআরবে জেদদায় বাংলাদেশী দুতাবাস সকলকে বদলিয়ে নতুন দের সুযোগ দেয়া হোক। পুরাতন রা কাজ করেনা
    Total Reply(0) Reply
  • Mohsin Kazi ২২ জানুয়ারি, ২০১৯, ১:০৯ এএম says : 0
    শুধু প্রবাসীদের দোষ ত্রুটি খুঁজে তাদেরকে সতর্ক করলে হবেনা, দূতাবাসের বড় বড় চেয়ারে বসে থাকা কিছু নবাবজাদা টাইপের কর্মকর্তাদেরকেও তাদের দায়িত্ব সম্পর্কে সতর্ক করতে হবে। প্রবাসীদের রক্ত ঘামে অর্জিত রেমিটেন্সে সরকারের এসব নবাবজাদাদের বেতন দেয়া হয়।পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে বলবো, দূতাবাসগুলোর বিরুদ্ধে প্রবাসীদের যে অন্তহীন অভিযোগ রয়েছে, সেগুলো তদন্ত করে দেখুন, পাশাপাশি প্রবাসী ভাইদের প্রতি অনুরোধ, দয়া করে দাবি দাওয়ার প্রকাশ ঘটাতে গিয়ে এরকম উচ্ছৃঙ্খল অাচরণ থেকে বিরত থাকুন, যে দেশে অাছেন, সেদেশের অাইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হোন।
    Total Reply(0) Reply
  • Shafiqul Islam ২২ জানুয়ারি, ২০১৯, ১:০৯ এএম says : 0
    বাংলাদেশের দূতাবাস গুলি পৃথিবীর কোন দেশেই শক্তিশালী নয় |এদের শক্তিশালী করা দরকার| এজন্য সরকারের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা দরকার |
    Total Reply(0) Reply
  • Siddiqua Chowdhury ২২ জানুয়ারি, ২০১৯, ১:১০ এএম says : 0
    বিদেশে অধিকাংশ দুতাবাসে বাংলাদেশী শ্রমজীবি মানুষ সহযোগিতা সহানুভুতি পাননা। সনাতন আমলাতান্ত্রিক মানসিকতা পরিহার করে অশিক্ষিত/অর্ধ শিক্ষিত দুখী মানুষের প্রতি সংবেদনশীল মনোভাব দেখালেই এরা তুষ্ট হয়ে যান। আইন ও বিধি অনুসরন করে যতটুকু সম্ভব সাহায্য সহযোগিতা নিশ্চিত করার ব্যবস্থা নিবেন আশা করি মন্ত্রী মহোদয়। First come first serve এবং no double standard নীতি যেন কঠোরভাবে পালিত হয় সেটা নিশ্চিত করা প্রয়োজন্।
    Total Reply(0) Reply
  • Md Dulal ২২ জানুয়ারি, ২০১৯, ১:১০ এএম says : 0
    বাংলাদেশ দূতাবাসে যারা আছে তাদের যে প্রবাসী দের কাজ করার জন্যে এখানে নিয়োগ দেওয়া হইছে তারা সেটা বুলে গেছে তারা প্রবাসী দের সহযোগিতা করবে কোথায় প্রবাসীরা এই দূতাবাসের লোকদের জন্যে সবচেয়ে বেশি হয়রানি হয় আর দূতাবাসের লোকদের বেবহার দেখলে মনে হয়...
    Total Reply(0) Reply
  • Kazi Mizanur Rahman ২২ জানুয়ারি, ২০১৯, ১:১১ এএম says : 0
    সরকার কর্ম সংস্থানের নামে কেন শ্রমিক দিচ্ছে যাচাই বাচাই ছাড়া। আর ভিষার দালালের লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে । বেকারত্ত ঘুচাতে এসে নতুন করে নিজে এবং পরিবারকে বিপদের দিকে ঠেলে দিচ্ছে । কড়া সুদে টাকা নিয়ে বিদেশ এসে বিপদে পড়ছে । সরকার বা সংশ্লিষ্ট কর্তাব্যক্তিগন কাকের মত চোখ বন্ধ করে বাহাবা নেওয়ার চেষ্টা করছে । শ্রম বাজার গুলোর যাচাই বাচাই না করে শুধু শুধুই মিথ্যা স্বপ্নে বিভোর লোকদের বিপদে ফেলছে । মধ্যপ্রাচ্যের অবস্থা বড়ই করুন ।
    Total Reply(0) Reply
  • MD Farhad ২২ জানুয়ারি, ২০১৯, ১:১১ এএম says : 0
    অন্য অন্য দেশের দূতাবাসের ব্যবহার কত যে সুন্দর আর বাংলাদেশের দূতাবাস বাস ব্যবহার কত যে অসভ্য বসাব ভাষা নাই । অন্য দেশের মানুষ দূতা বাসে গিযে হেল্প পাই আর বাংলাদেশ দূতা বাসে গিযে গালি শুনে । তাদের চেহারা দেখতে মনে হয তারা মানুষ নামে পশু আমরা বাংলাদেশের মানুষ বলে গিনা হয
    Total Reply(0) Reply
  • Anwar Pervej ২২ জানুয়ারি, ২০১৯, ১:১১ এএম says : 0
    কুয়েতে বাংলাদেশ দূতাবাসের কর্মকর্তাদের গাফিলতির কারণে এই অনাকাঙ্খিত ঘটনা ঘটেছে।আগে থেকে দূতাবাসের কর্মকর্তারা সমস্যা সমাধানে আগ্রহী হলে কয়েকশ লোককে ফেরত পাঠাতে পারত না কুয়েত সরকার।এদের দায়ভার কে নিবে???কুয়েত দূতাবাসের কর্মকর্তাদের গাফিলতির বিচার হওয়া উচিত।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: দূতাবাস


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ