Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার ২৭ জুন ২০১৯, ১৩ আষাঢ় ১৪২৬, ২৩ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

ভারতে গৃহবধুকে জীবন্ত পুড়িয়ে মারার চেষ্টা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২২ জানুয়ারি, ২০১৯, ৬:১৯ পিএম

ভারতের বিহার রাজ্যের এক গৃহবধূকে জীবন্ত পুড়িয়ে মারার চেষ্টা করেছিল তার শ্বশুরবাড়ির লোকজন। সোমবার লক্ষ্মী দেবী নামের ওই গৃহবদূকে অজ্ঞান করে চিতায় তোলা হলে পুলিশ যেয়ে তাকে উদ্ধার করে।
স্থানীয় সূত্র জানায়, বিয়ের এতদিন পরেও সন্তান না হওয়ার কারণে নিয়মিত অত্যাচার চলত ওই নারীর ওপরে। স্বামী, শ্বশুর আর শাশুড়ি তিনজনই মারধর করত ওই নারীকে। সোমবারও তাকে মারধর করার পরে নদীর ঘাটে নিয়ে আসা হয়। নদীর ঘাটে বালি তোলার কাজ করেন যে সব শ্রমিকরা, তাদের কাছ থেকে পুলিশ জানতে পেরেছে, ওই নারীকে ঘাটে নিয়ে আসার পরে খুব দ্রুত চিতা সাজানো হতে থাকে। একসময়ে ওই নারীকে চিতার কাঠের ওপরে শুইয়েও দেওয়া হয়। তবে আগুন জ্বালানোর আগেই পুলিশ সেখানে গিয়ে অচেতন অবস্থায় ওই নারীকে উদ্ধার করে।
পুলিশ জানায়, হিন্দুদের মরদেহ যেভাবে সৎকার করা হয়, সেইভাবেই কাঠ দিয়ে চিতা সাজানো হচ্ছিল সারিকপুর ঘাটে। স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে পুলিশ যখন ঘটনাস্থলে পৌঁছে, তখন শুধু কাঠে আগুন দেওয়াটাই বাকি ছিল। চিতার ওপরেই অজ্ঞান হয়ে পড়েছিলেন লক্ষ্মী দেবী।
ভোজপুর জেলার পুলিশ সুপারিন্টেনডেন্ট আদিত্য কুমার বিবিসিকে বলেন, ‘লক্ষ্মীদেবী নামের ওই নারীর বাপের বাড়ি থেকে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে যে বিয়ের বছর দশেক পরেও সন্তান না হওয়ায় তার শ্বশুরবাড়ির লোকজনরা নিয়মিত অত্যাচার করত। তারাই সোমবার জীবন্ত পুড়িয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেছিল।’

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভারত


আরও
আরও পড়ুন