Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৩ আশ্বিন ১৪২৬, ১৮ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

মাঘেও বেড়েছে তাপমাত্রা

কক্সবাজারে সর্বোচ্চ ৩০.৭ ঢাকায় ২৯.১ ডিগ্রি

চট্টগ্রাম ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২৩ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:০৩ এএম

বৈশ্বিক জলবায়ু পরিবর্তনের নেতিবাচক ধারায় গতবছর ২০১৮ সাল ছিল উষ্ণতম বর্ষ। গত বছরজুড়ে বাংলাদেশেও আবহাওয়ামন্ডল তেঁতে ওঠে। খরা ও তাপদাহে স্বাভাবিক জীবনযাত্রা হয় ব্যাহত। ফল-ফসল আবাদ ও উৎপাদনে পড়ে বিরূপ প্রভাব।
এখন ভর শীতকালের মাঘ মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহ চলছে। অথচ পঞ্জিকার হিসাব পাল্টে দিয়ে সমগ্র দেশে রাত ও দিনের তাপমাত্রা বেড়েই চলেছে। গতকাল মঙ্গলবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল বঙ্গোপসাগরের সৈকতনগরী কক্সবাজারে সর্বোচ্চ ৩০.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা তেঁতুলিয়ায় ৮.৪ ডিগ্রি সে.। ঢাকার তাপমাত্রা সর্বোচ্চ ২৯.১ ডিগ্রি এবং সর্বনিম্ন ১৪.৫ ডিগ্রি সে.। চট্টগ্রামে সর্বোচ্চ ২৮.৭ এবং সর্বনিম্ন ১৪.৫ ডিগ্রি সে.।
এদিকে সর্বশেষ আবহাওয়া পূর্বাভাসে জানা গেছে, আজ (বুধবার) সারাদেশে রাতের তাপমাত্রা সামান্য বৃদ্ধি পেতে পারে। দিনের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। আগামী ৪৮ ঘণ্টায়ও রাতের তাপমাত্রা বৃদ্ধি পেতে পারে।
এদিকে ভারত মহাসাগর ও তৎসংলগ্ন দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে লঘুচাপ অপরিবর্তিত রয়েছে। আজ অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারাদেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে। মধ্যরাত থেকে সকাল পর্যন্ত দেশের কোথাও কোথাও হালকা থেকে মাঝারী ধরনের কুয়াশা পড়তে পারে। মৌলভীবাজার, দিনাজপুর, পঞ্চগড়, নীলফামারী, কুড়িগ্রাম ও চুয়াডাঙ্গার ওপর দিয়ে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে, তা অব্যাহত থাকতে পারে। এর পরের ৫ দিনে রাতের তাপমাত্রা হ্রাসের সম্ভাবনা রয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: জলবায়ু


আরও
আরও পড়ুন