Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার ২৭ জুন ২০১৯, ১৩ আষাঢ় ১৪২৬, ২৩ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

অবশেষে হাসল গেইলের ব্যাট

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৩ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:০২ এএম

এবারের বিপিএলে পুরোপুরি ব্যর্থ। ৬ ম্যাচে রান মাত্র ২৩! নামের প্রতি সুবিচার করতে পারছেন না- এই কালিমা নিয়েই গতকাল মাঠে নেমেছিলেন ক্রিস গেইল। দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে রেখেছেন অবদান। তার সঙ্গে ব্যাট হাতে জ্বলে উঠলেন অ্যালেক্স হেলস, রানের গতি ধরে রাখলেন এবি ডি ভিলিয়ার্সও। টপ অর্ডারের দৃঢ়তায় রোমাঞ্চকর লড়াইয়ে খুলনা টাইটানাসকে ৬ উইকেটে হারিয়েছে রংপুর রাইডার্স। ১৮২ রানের লক্ষ্য তিন বল বাকি থাকতে পেরিয়ে যায় মাশরাফি বিন মুর্তজার দল।
মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি খুলনার। ২৯ রানের মধ্যে দুই ওপেনারকে হারিয়ে ফেলে তারা। তৃতীয় উইকেটে শান্তর সঙ্গে ৪৯ রানের জুটি গড়ে ফিরেন টেইলর। চতুর্থ উইকেটে শান্তর সঙ্গে ৫৬ রানের জুটি গড়ে বিদায় নেন মাহমুদউল্লাহ। পরপর দুই বলে এই দুই ব্যাটসম্যানকে বিদায় করে খুলনাকে চাপে ফেলে দেন ফরহাদ রেজা। সেখান থেকে দলকে ১৮১ পর্যন্ত নিয়ে যান ভিসে।
৩৫ বলে তিন ছক্কা আর দুই চারে ৪৮ রান করেন বাঁহাতি টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান শান্ত। দক্ষিণ আফ্রিকান অলরাউন্ডার ভিসা ১৫ বলে তিন চার ও দুই ছক্কায় করেন অপরাজিত ৩৫ রান। ৩২ রানে ৪ উইকেট নেন পেস বোলিং অলরাউন্ডার রেজা। আঁটসাঁট বোলিংয়ে ১৭ রানে এক উইকেট নেন মাশরাফি।
রান তাড়ায় হেলসের ব্যাটে উড়ন্ত সূচনা পায় রংপুর। গেইলের সঙ্গে ৭.৪ ওভার স্থায়ী উদ্বোধনী জুটিতে ৭৪ রান তোলেন এই ইংলিশ ব্যাটসম্যান। বোলারদের তুলোধোনা করা হেলস ২৬ বলে পৌঁছান ফিফটিতে। সে সময় গেইল ছিলেন যেন দর্শক হয়ে। সতীর্থ পঞ্চাশ ছোঁয়ার সময় তার রান ছিল ১০ বলে চার! এবারের আসরে প্রথমবারের মতো খেলতে নামা পাকিস্তানের লেগ স্পিনার ইয়াসির শাহ বোল্ড করে থামান হেলসকে। ডানহাতি এই ব্যাটসম্যানের ২৯ বলে খেলা ৫৫ রানের বিস্ফোরক ইনিংস গড়া আট চার ও তিন ছক্কায়।
আগের ম্যাচে মিডল অর্ডারে ব্যাট করা ডি ভিলিয়ার্স প্রমোশন পেয়ে নামেন তিনে। মারকুটে এই ব্যাটসম্যান ক্রিজে এসেই চড়াও হন বোলারদের ওপর। রান আসতে থাকে বানের স্রোতের মতো। খুলনার বোলাররা যেন ভেবেই পাচ্ছিলেন না বল ফেলবেন কোথায়। মাহমুদউল্লাহকে রিভার্স সুইপ করতে গিয়ে বলে-ব্যাটে করতে না পেরে এলবিডব্লিউ হয়ে যান ডি ভিলিয়ার্স। ২৫ বলে খেলা তার ৪১ ইনিংস গড়া চার ছক্কা ও তিন চারে। তার সঙ্গে ৪৩ রানের জুটিতে গেইলের অবদান মাত্র ২!
ডি ভিলিয়ার্সের বিদায়ের পর কিছুটা ভাটা পড়ে রানের গতিতে। মাহমুদউল্লাহকে তিন ছক্কা হাঁকিয়ে ডানা মেলেন গেইল। জুনাইদ খানকে চার হাঁকিয়ে এবারের আসরে প্রথমবারের মতো পৌঁছান ফিফটিতে। পাকিস্তানের বাঁহাতি পেসারকে ছক্কা হাকাতে গিয়ে শেষ হয় গেইলের পথ চলা। ৪০ বলে ৫ ছক্কা ও দুই চারে বাঁহাতি এই ওপেনার করেন ৫৫ রান। তার বিদায়ের পর দ্রুত বিদায় নেন মোহাম্মদ মিঠুনও। তবে ইয়াসিরকে ছক্কা হাঁকিয়ে দলকে দারুণ জয় এনে দেন রাইলি রুশো। ৩ বলে ১০ রানে অপরাজিত থাকেন ছন্দে থাকা বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যান। আট ম্যাচে সপ্তম হারের তেতো স্বাদ পেলো খুলনা। সমান ম্যাচে চতুর্থ জয় পেলো রংপুর। ব্যাটিং সহায়ক উইকেটে ৪ উইকেট পাওয়া পেসার ফরহাদ রেজা জেতেন ম্যাচ সেরার পুরস্কার।
সংক্ষিপ্ত স্কোর
খুলনা টাইটান্স : ২০ ওভারে ১৮১/৬ (আল আমিন ৪, জুনায়েদ ১৩, টেইলর ৩২, শান্ত ৪৮, মাহমুদউল্লাহ ২৯, ভিসা ৩৫*, আরিফুল ৬, ইয়াসির ৫*; মাশরাফি ৪-০-১৭-১, সোহাগ ২-০-৩০-০, রেজা ৪-০-৩২-৪, শফিউল ৪-০-৪০-০, অপু ৪-০-৩৭-০, গেইল ২-০-২৩-১)
রংপুর রাইডার্স : ১৯.৩ ওভারে ১৮৩/৪ (গেইল ৫৫, হেলস ৫৫, ডি ভিলিয়ার্স ৪১, মিঠুন ১৫, রুশো ১০*, নাহিদুল ১*; শুভাশিস ৪-০-৩০-০, জুনাইদ ৪-০-৩৭-১, ভিসা ৪-০-৩১-১, তাইজুল ১-০-১০-০, ইয়াসির ৩.৩-০-৪৭-২, মাহমুদউল্লাহ ৩-০-২৮-১)
ফল : রংপুর রাইডার্স ৬ উইকেটে জয়ী।
ম্যাচসেরা : ফরহাদ রেজা (রংপুর রাইডার্স)।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বিপিএল

৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন