Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার ২৪ এপ্রিল ২০১৯, ১১ বৈশাখ ১৪২৬, ১৭ শাবান ১৪৪০ হিজরী।

মেক্সিকোতে মানুষ হত্যার নতুন রেকর্ড

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৩ জানুয়ারি, ২০১৯, ৮:১১ পিএম

মেক্সিকোতে মাদকজনিত অপরাধ এবং ‘গ্যাং’ সহিংসতা গত দুই দশক ধরেই আশঙ্কাজনক ভাবে বেড়ে চলেছে। দেশটিতে ১৯৯৭ সাল থেকে এ ধরনের ঘটনায় নিহতের সংখ্যা রেকর্ড করা হচ্ছে, গত বছর তা পূর্বের সব রেকর্ড ছাড়িয়ে গেছে৷ দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ২০১৮ সালে ৩৩ হাজারেরও বেশি মানুষ নিহত হয়েছে৷ নিহতদের মধ্যে ৮৬১ জন নারীও রয়েছেন৷
২০১৭ সালের তুলনায় গত বছর হত্যার ঘটনা বেড়েছে ১৫ দশমিক ৫ শতাংশ৷ ২০১৭ সালে ২৮ হাজার ৮৬৬ মানুষকে হত্যা করা হয়েছিল৷ মেক্সিকোর মোট জনসংখ্যা ১৩ কোটি৷ মেক্সিকোজুড়ে ২০১৮ সালে ৩৩ হাজার ৩৪১ হত্যার ঘটনা তদন্ত করছেন গোয়েন্দারা।
মেক্সিকোতে মাদক দৌরাত্ম্য বহুদিন ধরে চলে আসছে এবং কর্তৃপক্ষ এসব অপরাধ নিয়ন্ত্রণে বারবার ব্যর্থ হয়েছে৷ লাতিন অ্যামেরিকার এই দেশটির নিরাপত্তাবাহিনী সাধারণত যারা যুক্তরাষ্ট্রে মাদক চোরাচালান করে, এমন চক্রগুলিকে নজরে রাখার চেষ্টা করে৷ তবে এসব ক্ষেত্রে মাদকচক্রের হোতারা বড় অংকের অর্থ ঘুষ দিয়ে পার পেয়ে যায়৷ ২০০৬ সাল থেকে সরকার মাদক পাচারকারীদের নিয়ন্ত্রণে সেনাবাহিনী মোতায়েন করে৷ সেই বছর থেকে এখন পর্যন্ত চোরাকারবারিদের সাথে সেনাবাহিনীর সংঘর্ষে দুই লাখেরও বেশি মানুষ নিহত হয়েছে৷ এদের মধ্যে রাজনীতিবিদ, সাংবাদিক, এমনকি আইন-শৃঙ্খলাবাহিনীর কর্মকর্তাও রয়েছেন৷ সহিংস অপরাধের শতাকরা ৯০ ভাগ ঘটনারই কোনো সাজা হয় না মেক্সিকোতে৷
সোমবার সেক্সিকোর কর্মকর্তারা চলতি বছরে প্রথম সাংবাদিক হত্যার ঘটনা নিশ্চিত করেছেন৷ স্থানীয় রেডিও স্টেশন এর পরিচালক রাফায়েল মারুয়া বেশ কিছুদিন ধরেই প্রাণনাশের হুমকি পেয়ে আসছিলেন৷ সোমবার তার মৃতদেহ পাওয়া যায় একটি খাদে৷ ৩৪ বছরের এই সাংবাদিকের জন্য রাষ্ট্রের পক্ষ থেকে নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছিল৷ স্থানীয় মেয়র তাকে প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে আসছিলেন বলে জানা গেছে৷
মেক্সিকোর নতুন প্রেসিডেন্ট আন্দ্রেস মানুয়েল লোপেজ মাদক অপরাধের বিরুদ্ধে লড়তে নতুন কৌশল খোঁজার চেষ্টা করছেন৷ তিনি ‘ন্যাশনাল গার্ড’ বা জাতীয় নিরাপত্তারক্ষী দল গড়ে তুলতে চান, যারা দেশব্যাপী বেসামরিক পুলিশের দায়িত্ব পালন করবে৷ তবে অনেকের আশংকা, এর ফলে সাধারণ মানুষের হয়রানি বেড়ে যাবে৷ গত সপ্তাহে প্রস্তাবটি মেক্সিকোর পার্লামেন্টে উপস্থাপন করা হয়৷ এটি পাশ হতে সিনেটের দুই তৃতীয়াংশ সাংসদদের সমর্থন প্রয়োজন৷ সূত্র: রয়টার্স।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মেক্সিকো


আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ