Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৯ ফাল্গুন ১৪২৫, ১৫ জামাদিউস সানি ১৪৪০ হিজরী।

শ্লীলতাহানি থেকে বাঁচলেন টিভির নারী নিরাপত্তাকর্মী

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৫ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:০৬ এএম

বেসরকারি টেলিভিশন ‘চ্যানেল ২৪’ এর এক নারী নিরাপত্তাকর্মীকে শ্লীলনতাহানির চেষ্টা ও মারধরের অভিযোগে আলমগীর নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গতকাল বুধবার ভোর ৬টায় রাজধানীর মহাখালী এলাকার আমতলী ক্রসিংয়ে এই ঘটনা ঘটে। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বখাটে আলমগীরের গ্রামের বাড়ি শেরপুরে। তার বাবার নাম আশরাফ আলী। সে বস্তির বৌবাজার এলাকায় ভাড়া থাকে এবং কড়াইল বস্তিতে মাছ বিক্রি করে।
প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গতকাল ভোরে অফিসের যাওয়ার উদ্দেশ্যে আমতলী ক্রসিংয়ে গাড়ির জন্য অপেক্ষা করছিলেন ওই তরুণী। এ সময় তাকে একা দাঁড়িয়ে থাকতে দেখে আলমগীর কুপ্রস্তাব দেয়। এতে ওই তরুণী রাজি না হওয়ায় এবং প্রতিবাদ করায় সড়কেই তার শ্লীলতাহানির চেষ্টা করে আলমগীর। একপর্যায়ে জোর করে তরুণীকে নিয়ে যেতে চাইলে তাদের মধ্যে হাতাহাতি হয়। ওই তরুণীকে পিটিয়ে জখম করে আলমগীর। এ সময় আশপাশে অনেক সিএনজি অটোরিকশা ও রিকশাচালক দাঁড়িয়ে থাকলেও কেউ তরুণীকে উদ্ধারে এগিয়ে আসেনি।
প্রত্যক্ষদর্শীরা বলেন, হাতাহাতির একপর্যঅয়ে রাতের ডিউটি শেষে অফিস থেকে গাড়িতে করে বাসায় ফিরছিলেন ডিএমপির ক্যান্টনমেন্ট জোনের পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (এডিসি) তাপস কুমার দাস। এ সময় ওই তরুণীর চিৎকার শুনে তিনি এগিয়ে গিয়ে ওই তরুণীকে উদ্ধার ও বখাটেকে হাতেনাতে আটক করেন।
এডিসি তাপস কুমার দাস বলেন, গুলশান ডিভিশনের ৬টা থানার নাইট রাউন্ডে ছিলাম। ভোরে আমতলী দিয়ে যাওয়ার সময় এক তরুণীর চিৎকার শুনতে পাই। দেখি এক যুবক ওই তরুণীকে লাঠি দিয়ে পেটাচ্ছে। তখন বডিগার্ড ও ড্রাইভারসহ আমি নেমে দৌঁড়ে বখাটে আলমগীরকে ধরে ফেলি। তিনি বলেন, মারধরের কারণে ওই তরুণীর ঠোঁট ফেটে রক্ত বের হয়। তাকে দ্রুত উদ্ধার করে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে পাঠাই।
এদিকে, ঘটনার পর বনানী থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা করেছে ভুক্তভোগী তরুণী। মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়- কুপ্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় আলমগীর নামের এক বখাটে যুবক ওই তরুণীর শ্লীলতাহানির চেষ্টা করে ও তাকে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর জখম করেছে। ওই সময় এডিসি তাপস কুমার দাস তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায় এবং আলমগীরকে গ্রেফতার করে বনানী থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়।



 

Show all comments
  • Mohammed Shah Alam Khan ২৪ জানুয়ারি, ২০১৯, ৭:৪৫ এএম says : 0
    আমাদের পুলিশকে নিয়ে কত কথাইনা আমরা বলে থাকি কিন্তু এই পুলিশও যে জনগণের বন্ধু সেটা আমরা দেখেও দেখতে চাইনা এটাই সত্য। একজন মহিলাকে একজন পুরুষ রাস্তায় পিটিয়ে জখম করছে এটা আশেপাশে থাকা সিএনজি অটোরিকশা ও রিকশাচালক দাড়িয়ে দেখছে কিন্তু তরুণীকে উদ্ধারে এগিয়ে আসছে না এটা কি ইসলামে অপরাধ নয়???? আবার ডিএমপির ক্যান্টনমেন্ট জোনের পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (এডিসি) তাপস কুমার দাস ওই তরুণীর চিৎকার শুনে এগিয়ে গিয়ে তরুণীকে উদ্ধার ও বখাটেকে হাতেনাতে আটক করেন। এটা কি প্রশংসার দাবীদার নয় কি?? তাহলে বলতেই হবে পুলিশও তার মানবিকতা হারায়নি তবে পকেট বানিজ্যে এরা সেরা এটাও মানতে হবে। এখন আমাদের নেত্রী হাসিনা নির্বাচনে নিরঙ্কুশ ভাব জয়ের পর নতুন রুপে প্রকাশিত হয়েছেন এটাই তিনি ফুটিয়ে তুলেছেন নির্বাচনের পরপরই তার কর্মকাণ্ডে। কাজেই এখন আমাদেরকে বিশ্বাস করতে হবে তিনি অবশ্যই এইবার দেশ থেকে দুর্নীতিকে বিতাড়িত করেই ছাড়বেন। যে দুর্নীতি ’৭৫ সালের পর আমাদের দেহের রন্দেরন্দে প্রবেশ করে দেহকে কুলশিত করে তুলেছে সেই দেহ থেকে নেত্রী হাসিনা অপারেশন করে বেরকরে দুর্নীতিকে আস্তাকুড়ে নিক্ষেপ করবেন এটাই আমাদের চাওয়া মহান আল্লাহ্‌র কাছে। আমিন
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ