Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার ১৯ জুন ২০১৯, ৫ আষাঢ় ১৪২৬, ১৬ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

পাঁচ দিনেও অন্ধকারে পুলিশ

স্টাফ রিপোর্টার নারায়ণগঞ্জ থেকে : | প্রকাশের সময় : ২৫ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:০৬ এএম

নারায়ণগঞ্জের বন্দরে দিনে দুপুরে বাসায় ঢুকে প্রবাসীর স্ত্রীকে নৃশংসভাবে হত্যার পর ৫ দিন পেরিয়ে গেলেও পুলিশ এখনও পর্যন্ত হত্যার রহস্য উদঘাটন, ঘাতককে গ্রেফতার বা সনাক্ত করতে পারেনি। এ নিয়ে নিহতের পরিবারের পাশাপাশি স্থানীয় এলাকাবাসীও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। গত শনিবার দুপুরে বন্দরের সোনাকান্দা এলাকার ত্রিবেণীপুল সংলগ্ন মাবিয়া ভবনের দ্বিতীয় তলার একটি ফ্ল্যাটে নৃশংস ভাবে গৃহবধূ নাঈমা রহমানকে (৩৫) কুপিয়ে হত্যার পর লাশে আগুন ধরিয়ে পালিয়ে যায় ঘাতক।
দিনে দুপুরে বন্দর থানার মাত্র তিনশ গজ দুরে এমন নৃশংস হত্যাকান্ডে পুরো এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। বিশেষ করে হত্যাকান্ডের পর ৫ দিন পেরিয়ে গেলেও পুলিশ হত্যাকান্ডের সঙ্গে জড়িতকে এখনও গ্রেফতার করতে পারেনি। বলতে গেলে পুলিশ এ হত্যাকান্ডের ঘটনায় পুরোপুরি অন্ধকারেই রয়েছে।
এদিকে স্ত্রী খুনের খবর পেয়ে থাইল্যান্ড থেকে গত রোববার দেশে ফিরে আসেন আনিসুর রহমান। কী কারণে তার স্ত্রী খুন হয়েছেন সে বিষয়ে তার কোন ধারণাই নেই। কারা হত্যাকান্ডের সঙ্গে জড়িত সে বিষয়েও তিনি কিছু বলতে পারেননি। ছোট দুই ছেলে-মেয়ের ভবিষ্যত চিন্তায় তার কপালে চিন্তার ভাজ। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা বন্দর থানার ওসি (তদন্ত) হারুন অর রশিদ বলেন, মামলাটি উল্লেখযোগ্য কোন অগ্রগতি নেই।
বন্দর থানার ওসি রফিকুল ইসলাম বলেন, তারা তদন্তে অনেক দুর এগিয়ে গেছেন। একটি বিষয়কে সামনে রেখেই তারা তদন্ত কাজ এগিয়ে নিচ্ছেন। তবে সেই বিষয়টি কি তা তিনি প্রকাশ করেননি। ঘটনার পর লাশের পাশ থেকে উদ্ধার করা মানিব্যাগ এবং সেই ব্যাগে থাকা এক ব্যক্তির ছবিটি কার সেটি সনাক্ত করা গেছে কিনা এমন প্রশ্নের জবাব এড়িয়ে যান এই পুলিশ কর্মকর্তা। তবে তিনি বলেন, আমরা শিগগিরই এ ঘটনায় ভাল একটা কিছু দিতে পারবো। ঘাতক যে নিহতের পরিচিত সে বিষয়ে কোন সন্দেহ নেই।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন