Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার ২৭ জুন ২০১৯, ১৩ আষাঢ় ১৪২৬, ২৩ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

কক্সবাজারে র‌্যাব পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে ৩ জন নিহত

বিশেষ সংবাদদাতা কক্সবাজার | প্রকাশের সময় : ২৪ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:৪৯ পিএম

টেকনাফে র‌্যাবের সাথে বন্দুকযুদ্ধে দুই মাদক কারবারী নিহত হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে বিদেশী অস্ত্র, গুলি ও ইয়াবা উদ্ধার করা হয়েছে।
২৪ জানুয়ারী ভোররাত আড়াই টারদিকে সাবরাং ইউনিয়নের উপকূলীয় বাহারছড়া মেরিন ড্রাইভ সংলগ্ন বীচ এলাকায় মাদক কারবারী ও র‌্যাবের সাথে গোলাগুলির ঘটনা ঘটে বলে জানাগেছে। এসময় পরিচয় অজ্ঞাত দু'জন গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হয়। পরে হাসপাতালে তারা মারা যায়।
র‌্যাব টেকনাফ ক্যাম্প কমান্ডার লেঃ মির্জা শাহেদ মাহতাবের নেতৃত্বে একটি দল ঘটনাস্থল থেকে আহত দুই মাদক কারবারী ও বিদেশী পিস্তল ২টি, ম্যাগজিন-২, দেশীয় এলজি-১, গুলি ৪ রাউন্ড, খালি খোসা ৬ রাউন্ড. ৫০ হাজার ইয়াবা উদ্ধার করে।
এদের টেকনাফ উপজেলা হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। তাদের পোস্ট মর্টেমের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এ পর্যন্ত আহতদের পরিচয় উদঘাট হয়নি।
ওদিকে মহেশখালীর মাতারবাড়ীর বহুল অালোচিত হেলাল ডাকাত পুলিশের সাথে বন্দুক যুদ্ধে নিহত হয়েছে। ২৪ জানুয়ারী গভীর রাতে শাপলাপুরের পাহাড়ী এলাকায়
ঘটনাটি ঘটেছে। সে মাতারবাড়ীর হংস মিয়াজী পাড়ার জাগির হোসেনের পুত্র। তার বিরুদ্ধে ২টি হত্যা সহ ১০ টি মামলা রয়েছে বলে জানাগেছে।
মাতারবাড়ীর হেলাল ডাকাত ২৩ জানুয়ারী সন্ধায় মাতারবাড়ী কয়লা বিদ্যুৎ এলাকায় ডাকাতির প্রস্তুুতি নিচ্ছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে মহেশখালী থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে রাত ১০ টায় হেলাল ডাকাতকে আটক করে।
হেলালের স্বীকারোক্তিমতে শাপলাপুরের পাহাড়ী অাস্তানায় অস্ত্র উদ্ধার অভিযানে পুলিশ সন্ত্রাসী বন্দুক যুদ্ধে সন্ত্রাসী হেলাল ও কনেস্টবল টুটুল গুলিবিদ্ধ হয়। অাহত হেলাল ডাকাতকে মহেশখালী হাসপাতালে নিয়ে অাসলে কর্তব্যরত ডাক্তার রাত ৩টায় মৃত ঘোষনা করে।
গুলিবিদ্ধ কনেস্টবল টুটুলক প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।
এদিকে নিহত হেলালের পরিবারের দাবি তাকে প্রতিপক্ষের লোকজন দিয়ে ফাঁসানো হয়েছে।
মহেশখালী থানার ওসি প্রভাষ চন্দ্র ধর জানান, হেলাল ডাকাত দীর্ঘদিন ধরে সড়কে ডাকাতিসহ স্থানীয়দের জানমালের ক্ষতি করে আসছে। তার বিরুদ্ধে হত্যাসহ ডজন মামলা রয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বন্দুকযুদ্ধ


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ