Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার ২৭ জুন ২০১৯, ১৩ আষাঢ় ১৪২৬, ২৩ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

ইসলামী কর্মতৎপরতা

| প্রকাশের সময় : ২৫ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:০৬ এএম

মাত্র ২৯ দিনেই পুরো কোরআন মুখস্থ করলেন পাকিস্তানের কলেজছাত্রী জুয়াইরিয়া!
মাত্র ২৯ দিনেই পবিত্র কোরআন মুখস্থ করে অনন্য রেকর্ড গড়েছেন পাকিস্তানের লাহোর প্রদেশের গাজিয়াবাদ এলাকার বাসিন্দা কলেজছাত্রী জুয়াইরিয়া। খবর আন্তর্জাতিক কোরআন বিষয়ক বার্তা সংস্থা ইকনা। গাজিয়াবাদে অত্যন্ত দরিদ্র পরিবারের জন্ম এই মেধাবী ছাত্রী জুয়াইরিয়ার। জুয়াইরিয়ার পিতা ছোটখাটো ব্যবসায়ী। তাদের সংসার চলে ভীষণ অর্থকষ্টে। নিজে বেশি পড়ালেখা করতে না পারলেও দুই মেয়েকেই শিক্ষিত হিসেবে গড়ে তুলতে চান বাবা। মেয়ের এমন কীর্তিতে ভীষণ খুশি জুয়াইরিয়ার বাবা। দৃঢ় সংকল্প ও ইচ্ছার সুবাদে এক মাসেরও কম সময়ে পবিত্র কোরআন মুখস্থ করতে সক্ষম হয়েছেন জুয়াইরিয়া। গত মাসে কলেজ ছুটির ফাঁকে তিনি কোরআন মুখস্থ করার উদ্যোগ নেন এবং অল্প সময়ে নিজের লক্ষে পৌঁছাতে সক্ষম হন।

তানযিমুল মাদারিস লি তাহফিজিল কুরআনিল কারীম বোর্ডে
বিয়ানিবাজার উপজেলার সারপার গ্রামের মরহুম হাফিয কেরামত আলী রহঃ’র শাগরেদ মরহুম হাফিয মাওলানা ফয়জুর রহমান প্রতিষ্ঠিত তানযিমুল মাদারিস লি তাহফিজিল কুরআনিল কারীম বোর্ড’র চলতি বছরের কেন্দ্রীয় বার্ষিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
আজ মঙ্গলবার ২৫ডিসেম্বর সকাল ৮টা থেকে সারপার হাফিজিয়া দাখিল মাদরাসায় অনুষ্ঠিত এই পরীক্ষাটি অনুষ্ঠি হয়।
পরীক্ষা কমিটি সূত্র জানায়, মৌলভীবাজারের কুলাউড়া, শ্রীমঙ্গল, কমলগঞ্জ ও সিলেটের বিয়ানীবাজার উপজেলার ৪৪টি মাদরাসার হিফজুল কুরআন বিভাগের প্রায় ৭শ’ শিক্ষার্থী এতে অংশগ্রহণ করেন। ৫৫ জন পরীক্ষক সারপার হাফিজিয়া দাখিল মাদরাসা ও জামিয়া মুহাম্মাদিয়া দারুস সুন্নাহ আহমদাবাদ কুলাউড়া মোট দু’টি সেন্টারে পরীক্ষা গ্রহণ করেন।
বোর্ডের পরিচালক হাফেয মাওলানা মাহমুদুর রহমান ইমরান’র পরিচালনায় অনুষ্ঠিত এই পরীক্ষায় পর্যবেক্ষক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, কুলাউড়া পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব শফিউল আলম ইউনুস, পূর্ব মুড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদ’র সাবেক চেয়ারম্যান ও সারপার হাফিজিয়া দাখিল মাদরাসার সভাপতি নজরুল ইসলাম, ৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মঞ্জুরুল আলম চৌধুরী খোকন, পৌর ইঞ্জিনিয়ার কামরুল ইসলাম, লন্ডন প্রবাসি মাসুম আহমদ চৌধুরী, আহমদাবাদ জামে মসজিদের ইমাম হাফেজ আব্দুন নূর, বিয়ানীবাজার মোকাম জামে মসজিদের ইমাম মাওলানা আব্দুল গনি, আল আজহার দারুল কুরআন মাদরাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা আমিনুল ইসলাম, লন্ডন প্রবাসি ওয়াহিদুর রহমান, জাকির আহমদ, ওজিউর রহমান, হাফেয হাবিবুল­াহ আবু, আব্দুল আহাদ মাখন, মাওলানা মুহাম্মদ ফয়জুল হক, হাকালুকি দারুস সুন্নাহ মাদরাসার প্রিন্সিপাল হাফেয মাওলানা ফখরুল ইসলাম প্রমুখ।

বাংলাদেশ আওয়ামী ওলামা লীগ
নির্বাচনে আরএসএস এজেন্ট, কাদিয়ানী ও স্বাধীনতাবিরোধীদের বয়কট করা, ইসলাম বিদ্বেষী ওয়েব সাইট বন্ধ, সংখ্যালঘু মন্ত্রণালয় প্রতিষ্ঠার দাবীর প্রতিবাদসহ ১৩ দফা দাবীতে বাংলাদেশ আওয়ামী ওলামা লীগ মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছেন। গতকাল সকাল দশটায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধনে উত্থাপিত অন্যান্য দাবীসমূহ হচ্ছে: রসূলুল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের শানে মানহানীকর বক্তব্য, লেখা, প্রকাশনা, টিভি প্রোগ্রাম, রেডিও প্রোগ্রাম, ইন্টারনেটে স্ট্যাটাসসহ যে কোন বিষয় প্রচার, প্রকাশ ও প্রদানকারীদের মৃত্যুদন্ড প্রদান। আসন্ন নির্বাচনে উগ্র হিন্দুত্ববাদী, ইহুদী, কাদিয়ানীদের দালাল ও সন্ত্রাসবাদীদের বয়কট করা। পাঠ্যপুস্তক থেকে ইসলামী শিক্ষা তুলে দেয়ায় শিক্ষার্থীরা বল্গাহারা জীবন বেছে নিচ্ছে। তাই মাদকসেবী ঐশী তৈরী এবং স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীদের আত্মহত্যার ঘটনা প্রতিরোধে ইসলামের শিক্ষা পাঠ্যপুস্তকের অন্তর্ভুক্ত করতে হবে। দেশ ও ইসলামের স্বার্থে ভারতীয় সন্ত্রাসী সংগঠন ‘আরএসএস’-এর প্রেসক্রিপশনে বাংলাদেশ বিরোধী মোসাদ এজেন্ট সুব্রত চৌধুরী, গৌতম চক্রবর্তী, মিল্টন বৈদ্য, পঙ্কজ দেবনাথ প্রমুখ উগ্র হিন্দুদের ভোট দানে বিরত থাকা। যেখানে বাংলাদেশে কোন মুসলিম মন্ত্রণালয় নেই, সেখানে সাম্প্রদায়িক হিন্দুদের সংখ্যালঘু মন্ত্রণালয়ের দাবি কট্টর সা¤প্রদায়িক। এসব দেশবিরোধী দাবীদারদের গ্রেফতার করা। মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন, কার্যকরী সভাপতি হাফেজ আব্দুস সাত্তার। বক্তব্য রাখেন সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্জ কাজী মাওলানা আবুল হাসান শেখ শরীয়তপুরি, সাংগঠনিক সম্পাদক হাফেজ আব্দুল জলীল, হাফেজ মোস্তফা চৌধুরী বাগেরহাটী, মাওলানা শোয়াইব প্রমুখ। -প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন