Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ২৭ মার্চ ২০১৯, ১৩ চৈত্র ১৪২৫, ১৯ রজব ১৪৪০ হিজরী।

চৌদ্দগ্রামে কয়লাভর্তি ট্রাকের চাপায় ১৩ ঘুমন্ত শ্রমিকের মৃত্যু

প্রতি পরিবারকে ২০ হাজারকে অনুদান দেয়ার ঘোষণা

চৌদ্দগ্রাম উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৫ জানুয়ারি, ২০১৯, ৮:৩০ এএম | আপডেট : ১২:১৪ এএম, ২৬ জানুয়ারি, ২০১৯

কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে ট্রাকভর্তি উল্টে ১৩ ঘুমন্ত শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। শ্রমিকদের সবার বাড়ি নীলফামারী জেলার জলঢাকা উপজেলায়। আজ শুক্রবার ভোরে উপজেলার ছুপুয়া-নালঘর সড়কের পাশে নারায়নপুর গ্রামে অবস্থিত কাজী এন্ড কোং প্রকাশ মজুমদার ফিল্ডে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে কুমিল্লা জেলা প্রশাসক আবুল ফজল মীর, উপজেলা নির্বাহী অফিসার শেখ মোঃ শহিদুল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবদুল্লাহ আল মামুন, উপজেলা চেয়ারম্যান আবদুস সোবহান ভুঁইয়া হাসান, থানার ওসি আবদুল্লাহ আল মাহফুজ, উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক শাহজালাল মজুমদার, ঘোলপাশা ইউপি চেয়ারম্যান কাজী জাফরসহ বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তাবৃন্দ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। ঘটনাস্থলে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে নিহতদের প্রত্যেকের পরিবারকে ২০ হাজার টাকা করে দেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন জেলা প্রশাসক আবুল ফজল মীর। 

জানা গেছে, শুক্রবার ভোর সোয়া পাঁচটায় কয়লাভর্তি ট্রাক(ঢাকামেট্রো-ট-১৬-০১১৪) থেকে কয়লা নামার প্রস্তুতি নিচ্ছিল শ্রমিকরা। হঠাৎ করে ট্রাকটি উল্টে ঘুমন্ত শ্রমিকদের উপর পড়ে। এতে ঘটনাস্থলে ১৩ শ্রমিক নিহত ও ৩ জন আহত হয়েছেন। খবর পেয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে আহতদের উদ্ধার শেষে চৌদ্দগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রঞ্জিত(৪৫) নামে আরও এক শ্রমিক মারা যান। নিহতরা হলেন; নীলফামারী জেলার জলঢাকার উপজেলার নিজপাড়া গ্রামের সুরেশ চন্দ্র রায়ের ছেলে রঞ্জিত চন্দ্র রায়(৩০), সুনীল চন্দ্র রায়ের ছেলে তপন চন্দ্র রায়(২৫), জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে মোঃ সেলিম(২৮), রাম প্রসাদের ছেলে বিপ্লব(১৯), কিশোর চন্দ্র রায়ের ছেলে শংকর চন্দ্র রায়(২২), অমল চন্দ্র রায়ের ছেলে দিপু চন্দ্র রায়(১৯), কামিক্ষার ছেলে অমিত চন্দ্র রায়(২০), পাঠানপাড়া গ্রামের নুর আলমের ছেলে মোরসালিন(১৮), ফজলুল করিমের ছেলে মোঃ মাসুম(১৮), শিমুলবাড়ি গ্রামের মনোরঞ্জন চন্দ্র রায়(১৯), খোকা চন্দ্র রায়ের ছেলে মৃণাল চন্দ্র রায়(২১), রাজবাড়ি গ্রামের খোকা চন্দ্র রায়ের ছেলে বিকাশ চন্দ্র রায়(২৮), ধলু চন্দ্র রায়ের ছেলে কলেক চন্দ্র রায়(৩৫)।
এ ব্যাপারে চৌদ্দগ্রাম থানার ওসি আবদুল্লাহ আল মাহফুজ বলেন, ‘খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে আহতদের উদ্ধার শেষে হাসপাতালে ভর্তি করি। নিহতদের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তবে ট্রাকের চালক ও হেলপার পলাতক রয়েছে’।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কয়লা

১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮
২৭ আগস্ট, ২০১৮

আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ