Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৯, ০২ কার্তিক ১৪২৬, ১৭ সফর ১৪৪১ হিজরী

সুবর্ণচর ও কবিরহাটে গণধর্ষণ একই সূত্রে গাঁথা কবিরহাটে ব্যারিস্টার মওদুদ

নোয়াখালী ব্যুরো : | প্রকাশের সময় : ২৬ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:১০ এএম


 বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ বলেছেন, জাতীয় সংসদ নির্বাচনের সময় নোয়াখালীর সুবর্ণচর ও কবিরহাটে গৃহবধূ গণধর্ষণের ঘটনাগুলো একই সূত্রে গাঁথা। প্রতিটি ঘটনার সাথে সরকার দলের নেতাকর্মীরা জড়িত। যা দেশের জন্য মঙ্গলজনক নয়। এসব ঘটনা সরকারি দলের দূর্বৃত্তায়ন ছাড়া কিছুই না। গতকাল শুক্রবার নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন কবিরহাটের নির্যাতিতা সেই নারীকে দেখতে গিয়ে এসব কথা বলেন তিনি। এসময় তিনি ধর্ষিতাকে আর্থিক সহযোগিতা করেন।
নির্যাতিতার মেডিকেল রিপোর্ট নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে মওদুদ বলেন, যেখানে ঘটনায় মামলার প্রধান আসামি ১৬৪ ধারায় ধর্ষণের কথা স্বীকার করে সে ও আরো কয়েকজন ধর্ষণের কথা বলেছে। সেখানে ডাক্তারি রিপোর্টে ধর্ষণের কোন আলামত পাওয়া যায়নি, এটা খুবই দুঃখজনক। আমরা চিকিৎসা শেষ না হওয়া পর্যন্ত নির্যাতিতাকে আইনগত সমর্থন দিয়ে যাবো।

এক প্রশ্নেরা জবাবে মওদুদ আহমদ বলেন, নীলনকশা অনুযায়ী নির্বাচন হয়েছিল। কোন ভোটার ভোট দিতে পারেনি, তার নির্বাচনীয় এলাকায় রাত ১১টার পরে ৫০টি ভোট কেন্দ্র ভোট গ্রহণ হয়ে ছিল। প্রিজাইডিং ও পোলিংসহ সবাই মিলে ভোট দিতে স্থানীয় লোকজন সবাই দেখছে। নির্বাচন পূর্ববর্তী মিথ্যা মামলায় এখনো আমাদের অনেক নেতাকর্মী জেল হাজতে ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। এখন আমরা তাদের সুরক্ষায় কাজ করছি।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও তৃণমূল সমন্বয়ক মোহাম্মদ শাহজাহান, বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা জয়নুল আবদীন ফারুক, নোয়াখালী জেলা বিএনপির সভাপতি গোলাম হায়দার বিএসসি, সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান, কোম্পনীগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক নুরুল আলম সিকদার, বিএনপির নেতা হুমায়ন কবির পলাশ, অ্যাডভোকেট রবিউল হাসান পলাশ, অ্যাডভোকেট আহম্মদ আজমসহ জেলা বিএনপির নেতৃবৃন্দ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ব্যারিস্টার মওদুদ


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ