Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার ১৮ জুন ২০১৯, ৪ আষাঢ় ১৪২৬, ১৪ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

প্রশ্ন : কাহারও স্ত্রী যদি অনেক বলার পরও, বহুভাবে বোঝানোর পরও নামাজ না পড়ে, তাহলে স্বামীর কি করণীয়?

মু. আলমগীর
ইমেইল থেকে

প্রকাশের সময় : ২৯ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:১১ এএম

উত্তর : স্ত্রীকে নামাজের জন্য তাগিদ দেওয়া ও নানাভাবে বোঝানোর পরও যদি সে নামাজ না পড়ে, তাহলে স্বামীর আলাদাভাবে আর করণীয় কিছু থাকে না। সাবালিকা কাউকে বোঝানোর পর তার নিজের অবস্থার ওপর ছেড়ে দেওয়াই নিয়ম। আল্লাহ তার বাঁদীকে হেদায়েত ও বুঝ দান করুন, এ দোয়া করতে থাকতে হবে। নামাজের কারণে যদি স্বামী স্ত্রীকে তালাক দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়, তাহলে সেটা সে সুন্নত মোতাবেক জ্ঞানী ব্যক্তির পরামর্শে করতে পারে। তবে এটি সংশোধনের নিয়তে হতে হবে। নামাজের বাহানায় সংসার ভাঙ্গার ইচ্ছায় নয়।

সূত্র : জামেউল ফাতাওয়া, ইসলামী ফিক্হ ও ফাতাওয়া বিশ্বকোষ।
উত্তর দিয়েছেন : আল্লামা মুফতি উবায়দুর রহমান খান নদভী

ইসলামিক প্রশ্নোত্তর বিভাগে প্রশ্ন পাঠানোর ঠিকানা
inqilabqna@gmail.com



 

Show all comments
  • Rashed Mahmud ৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১১:৪০ এএম says : 0
    So far I know, if any one does not say her prayer, then she is out of iman or her iman is no more exist with her. In such a situation, weather any muslim male can marry her?
    Total Reply(0) Reply
  • Rashed Mahmud ৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১১:৪৪ এএম says : 0
    Can Iman be broken for any reason like not saying prayers, cut off relationship with parents,saying prayer without Oju,
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: প্রশ্ন :


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ