Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২ আশ্বিন ১৪২৬, ১৭ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

পাঁচবিবিতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ যুবক নিহত, র‌্যাবের দাবি মাদক ব্যবসায়ী

পাঁচবিবি (জয়পুরহাট) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৩০ জানুয়ারি, ২০১৯, ১০:৩৫ এএম

জয়পুরহাটে পাঁচবিবি উপজেলায় র‌্যাবের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে সোহেল রানা (৪২) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন।
র‌্যাবের দাবি, নিহত সোহেল রানা শীর্ষ মাদক ব্যবসায়। তার বিরুদ্ধে জয়পুরহাট জেলার বিভিন্ন থানায় ১০টি মাদকসংক্রান্ত মামলা রয়েছে। সোহেল রানা উপজেলার উত্তর গোপালপুর গ্রামের সোলায়মান সরদারের ছেলে। মঙ্গলবার রাত সোয়া ২টার দিকে পাঁচবিবির কেশবপুর এলাকায় এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনাটি ঘটে।

র‌্যাব-৫ জয়পুরহাট ক্যাম্পের কমান্ডার সহকারী পুলিশ সুপার মো. আজমল হোসেন জানান, চলমান মাদকবিরোধী অভিযানের অংশ হিসেবে র‌্যাব-৫, রাজশাহীর সিপিসি-৩, জয়পুরহাট ক্যাম্পের একটি আভিযানিক দল রাতে অভিযানে নামে।

গোপন সংবাদ আসে পাঁচবিবি উপজেলার কেশবপুর এলাকায় কতিপয় মাদক ব্যবসায়ী একটি বড় ধরনের মাদকের চালান বেচাকেনা করছে। ওই সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাবের টহল দল রাত সোয়া ২টার দিকে সেখানে যায়। পরে সেখানে অজ্ঞাতনামা ৪-৫ মাদক ব্যবসায়ীকে দূর থেকে মাদক বেচাকেনা করতে দেখতে পায়।

র‌্যাব সদস্যরা তাদের চ্যালেঞ্জ করে আটক করার জন্য এগিয়ে গেলে কথিত মাদক ব্যবসায়ীরা র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়। র‌্যাব সদস্যরাও পাল্টা গুলি চালায়।

র‌্যাবের পাল্টা আক্রমণে একপর্যায়ে অজ্ঞাতনামা মাদক ব্যবসায়ীরা অন্ধকারের মধ্যে পালিয়ে যায়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এলে র‌্যাব সদস্যরা ঘটনাস্থলে তল্লাশি চালিয়ে অজ্ঞাতনামা এক মাদক ব্যবসায়ীকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় দেখতে পান।

পরে গুলিবিদ্ধ ওই মাদক ব্যবসায়ীর কাছ থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, এক রাউন্ড তাজা গুলিসহ একটি ম্যাগাজিন, ৬০ বোতল ফেনসিডিল এবং মাদক ব্যবসায়ীদের ব্যবহৃত দুটি মোবাইল ফোন, তিনটি সিমকার্ড, একটি টর্চলাইট ও তিন জোড়া স্যান্ডেল উদ্ধার করে।

তাৎক্ষণিকভাবে গুলিবিদ্ধ ওই মাদক ব্যবসায়ীকে পাঁচবিবি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হলে সেখানকার দায়িত্বরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এর পর তার পরিচয় শনাক্ত করা হয়। এ ঘটনায় র‌্যাবের দুই সদস্য আহত হন। তাদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বন্দুকযুদ্ধ

৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন