Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৯, ০২ কার্তিক ১৪২৬, ১৮ সফর ১৪৪১ হিজরী

সাংবাদিকের ওপর ক্ষেপলেন নেইমার

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ৫:০৯ পিএম

বার্সেলোনা ছেড়ে পিএসজিতে যাওয়ার পর থেকে কোনোভাবেই শান্তিতে নেই ব্রাজিলিয়ান তারকা নেইমার ডি সিলভা জুনিয়র। পিএসজির হয়ে খেলতে গিয়ে গত বছর একবার ইনজুরিতে পড়েছিলেন তিনি। ডান পায়ের পাতার ফিফথ মেটাটারসালে ছিড় ধরেছিল তার। বিশ্বকাপের আগে ইনজুরির কারণে দ্রুত অস্ত্রোপচার করানো হয়েছিল। তিন মাস বিছানায় কাটানোর পর বিশ্বকাপের ঠিক আগ মুহূর্তে মাঠে ফিরতে পেরেছিলেন তিনি।
এবারও সেই একই ইনজুরিতে পড়লেন নেইমার। গত বছর যে জায়গায় আঘাত পেয়েছিলেন, এবারও ঠিক একই জায়গায় আঘাতটা পেলেন। স্ট্রসবার্গের বিপক্ষে খেলতে গিয়ে ইনজুরিতে পড়ার পর পরীক্ষা-নীরিক্ষা করে জানা গেলো, অন্তত ১০ সপ্তাহের জন্য মাঠের বাইরে নেইমার।
ইনজুরির যা অবস্থা তাতে হয়তো বা অস্ত্রোপচার করানো লাগতেও পারে। নাও লাগতে পারে। অস্ত্রোপচার করালো নাকি পুরোপুরি ভালো হয়ে যাবেন নেইমার। বিষয়টা পুরোপুরি তার সিদ্ধান্তের ওপর নির্ভর করছে।
এমন পরিস্থিতিতে নেইমার পূনর্বাসনের ১০ মাসের সময়টাকে বার্সেলোনায় কাটানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন এবং সে লক্ষ্যে প্রাইভেট বিমানে করে বৃহস্পতিবার গিয়ে পৌঁছান বার্সেলোনায়। সেখানেই উপস্থিত ছিল বার্সার সাংবাদিকরা। বিমান থেকে ক্র্যাচে ভর দিয়ে নেমে আসার পরই নেইমারকে ঘিরে ধরেন স্থানীয় সাংবাদিকরা। সেখানে তাদের একটাই প্রশ্ন, ‘শোনা যাচ্ছে বার্সায় আপনি আবার ফিরে আসতে চাচ্ছেন। বিষয়টা সঠিক কি না। কিংবা এ ব্যাপারে আপনার মন্তব্য কি?’
প্রশ্ন শুনে খুবই রেগে ওঠেন নেইমার। নিজের ওপর থেকেও যেন নিয়ন্ত্রন জারিয়ে ফেলেন। ভদ্রভাবে যে মিডিয়া সামলাবেন সেটাও যেন ভুলে যান ব্রাজিলিয়ান এই তারকা। ক্ষুব্ধ কন্ঠে তিনি পর্তুগিজ ভাষায় জবাব দিলেন, ‘নো মি টাচেস লজ কনজোনস।’ ইংরেজিতে আক্ষরিক অনুবাদ করলেন এর অর্থ দাঁড়ায়, ‘ডোন্ট টাচ মাই বল!’ এই একটি উত্তর দিয়েই গজ গজ করে চলে যান নিজের গাড়ির দিকে। সাংবাদিকদের আর কোনো কথা শোনার দিকেই গেলেন না নেইমার।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন