Inqilab Logo

ঢাকা সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৪ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

তাসকিনের বিকল্প সেই শফিউল!

টেস্ট দলে নতুন মুখ ইবাদত

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১২:০৪ এএম


ঘটনাচক্র এক,
২০১৬ বিপিএলে ভালো বোলিংয়ের পুরস্কার হিসেবে শফিউল ইসলাম জায়গা পেয়েছিলেন নিউজিল্যান্ড সফরের দলে। সফরের কদিন আগে, বিপিএলের শেষ দিকে এসে চোট পেলেন এই পেসার। নিউজিল্যান্ড সফরেই আর যাওয়া হলো না তাঁর। তার জায়গায় সেবার ডাক পেয়েছিলেন তাসকিন আহমেদ।
ঘটনাচক্র দুই,
বছর ঘুরে সেই একই প্রেক্ষাপট, একই আসর- বিপিএল ২০১৯। এবার তাসকিন আহমেদ দুর্দান্তভাবে ফিরে এলেন চোট আর ফর্মখরা কাটিয়ে। পুরস্কার হিসেবে ডাক পেলেন সেই একই নিউজিল্যান্ড সফরের টেস্ট আর ওয়ানডে দলে। কিন্তু ভাগ্যের কি নির্মম পরিহাস, বিপিএলের শেষপ্রান্তে এসে পড়লেন চোটে। আর সেই চোটে ভাগ্য খুলে গেল শফিউল ইসলামের!

এবারের বিপিএলের পারফরম্যান্সেই টেস্ট ও ওয়ানডে দুটি দলেই ফিরেছিলেন তাসকিন। ২২ উইকেট নিয়ে এখনও পর্যন্ত টুর্নামেন্টের সেরা উইকেট শিকারি তিনি। কিন্তু ফেরার পরই আবার ছিটকে গেলেন ঘাতক চোটে। এবার সেই তাসকিনের দুর্ভাগ্যই সেই নিউজিল্যান্ড সফরে সৌভাগ্য হয়ে এলো শফিউলের জন্য। একই কারণে ভাগ্য খুলেছে ও ইবাদত হোসেনেরও। টেস্ট দিয়ে জাতীয় দলে অভিষেক হতে যাচ্ছে পেসার হান্ট তারকার।

শফিউল বাংলাদেশের হয়ে ৫৬ ওয়ানডের সবশেষটি খেলেছেন ২০১৬ সালের অক্টোবরে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে চট্টগ্রামে। এরপর চোট আর ফর্মহীনতা মিলিয়ে আর খেলার সুযোগ পাননি। এবার দলে ফিরলেন আরেকজনের চোটে। বিপিএলে এবার রংপুর রাইডার্সের হয়ে নিয়েছেন এখনও পর্যন্ত ১৫ উইকেট। ¯øগ ওভারে রংপুর অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজার বড় ভরসা ছিলেন তিনিই।

শুরুতে ১৫ জনের টেস্ট দল দিয়ে আরেকজন পেসার নেওয়ার কথা জানিয়েছিলেন নির্বাচকরা। এরমধ্যে তাসকিনও চোটে পড়ে ছিটকে যাওয়ায় নতুন কারো ডাক প্রত্যাশিত ছিল। দলীয় সূত্রে জানা গেছে, তাসকিনের বিকল্প হিসেবে তিনজনের নাম এসেছিল- শফিউল, আবু জায়েদ ও ইবাদতের। এর মধ্যে শফিউলের পক্ষে মত দিয়েছেন দুই নির্বাচক। কিন্তু কোচ স্টিভ রোডসের পছন্দ ইবাদতকে।

২৫ বছর বয়সী ইবাদত এবারই প্রথম ডাক পেলেন জাতীয় দলে। ২০১৬ সালে পেসার হান্টে ১৩৯ কিলোমিটার গতি তুলে সেরা হয়েছিলেন মৌলভিবাজারের এই পেসার। তার পর থেকেই বিসিবি তাকে পরিচর্যা করে গড়ে তোলার চেষ্টা করেছে। হাই পারফরম্যান্স স্কোয়াডে ছিলেন, খেলেছেন বিসিবি একাদশ ও বাংলাদেশ ‘এ’ দলে। মূল স্কোয়াডে জায়গা না হলেও ২০১৬-১৭ মৌসুমে জাতীয় দলের অস্ট্রেলিয়ায় ট্রেনিং ও নিউ জিল্যান্ড সফরে গিয়েছিলেন ডেভেলপমেন্ট স্কোয়াডের অংশ হয়ে। সেই ধারাবাহিকতায় এবার জায়গা মিলল জাতীয় দলে।

বিপিএলে এবার সিলেট সিক্সার্সের শেষ ম্যাচে ৪ উইকেট নেন এই পেসার। তবে টেস্ট দলে জায়গা পাওয়ায় মূল ভুমিকা রেখেছে এবারের বিসিএলের পারফরম্যান্স। ৫ ম্যাচে ২১ উইকেট নিয়ে ইবাদত ছিলেন পেসারদের মধ্যে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি। সব মিলিয়ে ১৯টি প্রথম শ্রেণির ম্যাচে তার উইকেট ৫৯টি। ম্যাচে ১০ উইকেট নিয়েছেন একবার।
নিউ জিল্যান্ডে বাংলাদেশ তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের প্রথমটি খেলবে ১৩ ফেব্রæয়ারি, তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজের প্রথমটি ২৮ ফেব্রæয়ারি।

কী কাকতাল!
বাংলাদেশ দল
ওয়ানডে
মাশরাফি বিন মুর্তজা (অধিনায়ক), তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, লিটন কুমার দাস, সাকিব আল হাসান (সহ অধিনায়ক), মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ, রুবেল হোসেন, মুস্তাফিজুর রহমান, মেহেদী হাসান মিরাজ, মোহাম্মদ মিঠুন, মোহাম্মদ সাইফ উদ্দিন, নাঈম হাসান, শফিউল ইসলাম, সাব্বির রহমান।

টেস্ট
সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), তামিম ইকবাল, সাদমান ইসলাম, মোহাম্মদ মিঠুন, মুমিনুল হক, মুশফিকুর রহিম, লিটন কুমার দাস, মাহমুদউল্লাহ, মেহেদী হাসান মিরাজ, মুস্তাফিজুর রহমান, তাইজুল ইসলাম, ইবাদত হোসেন, সৈয়দ খালেদ আহমেদ, নাঈম হাসান, আবু জায়েদ চৌধুরী।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: টেস্ট দলে ইবাদত

৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ