Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ২৫ অক্টোবর ২০২০, ৮ কার্তিক ১৪২৭, ০৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

ইসরাইলী বিমান হামলায় হিজবুল্লাহ নেতা নিহত

প্রকাশের সময় : ১৪ মে, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : ইসরাইলের অভিযানে সশস্ত্র রাজনৈতিক সংগঠন হিজবুল্লাহর একজন জ্যেষ্ঠ নেতা নিহত হয়েছেন। লেবানন-ভিত্তিক শিয়া এই গোষ্ঠীর পক্ষ থেকে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে বলে বিবিসি জানিয়েছে। হিজবুল্লাহর পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, দামেস্ক বিমানবন্দরের কাছে ইসরাইলের বিমান হামলায় মুস্তাফা আমিনি বদরেদ্দিন নামের এই সিনিয়র হিজবুল্লাহ নেতা নিহত হন। তবে হিজবুল্লাহর এই অভিযোগের বিষয়ে ইসরাইল প্রকাশ্যে কোনো মন্তব্য করেনি। ২০০৫ সালে বদরেদ্দিনসহ আরো তিন হিজবুল্লাহ সদস্য বৈরুতে লেবাননের সাবেক প্রধানমন্ত্রী রফিক হারিরিকে হত্যা করেছেন বলে অভিযোগ রয়েছে। বদরেদ্দিনের নিহত হওয়ার খবর ঘোষণা করে এক বিবৃতিতে হিজবুল্লাহ বলেছে, তিনি ১৯৮২ সাল থেকে ইসলামি প্রতিরোধের অধিকাংশ অভিযানে অংশ নিয়েছেন এবং সফলতা অর্জন করেন। ১৯৬১ সালে জন্মগ্রহণকারী বদরেদ্দিন হিজবুল্লাহর সামরিক শাখার একজন জ্যেষ্ঠ ব্যক্তিত্ব বলে ধারণা করা হয়।
হিজবুল্লাহর সামরিক শাখার প্রধান ইমাদ মুগনিয়েহর কাজিন ও শ্যালক ছিলেন বদরেদ্দিন। ২০০৮ সালে দামেস্কে এক গাড়িবোমা হামলায় মুগনিয়েহ নিহত হন। বদরেদ্দিন হিজবুল্লাহর শূরা কাউন্সিলের সদস্য ছিলেন এবং তিনি গোষ্ঠীটির প্রধান হাসান নাসারুল্লাহর উপদেষ্টা হিসেবে কাজ করতেন। কানাডার নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থার (সিএসআইএস) জিজ্ঞাসাবাদে হিজবুল্লার একজন সদস্য বদরেদ্দিনকে সন্ত্রাসবাদে তার শিক্ষক ইমাদ মুগনিয়েহর চেয়েও বেশি বিপজ্জনক বলে বর্ণনা করেছেন। মুগনিয়েহ ও বদরেদ্দিন ১৯৮৩ সালে বৈরুতে মার্কিন মেরিন সেনাদের ব্যারাকে বোমা হামলার সঙ্গে জড়িত ছিলেন। ওই হামলায় ২৪১ জন নিহত হয়। বদরেদ্দিন যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞার তালিকায় ছিলেন। বিবিসি, রয়টার্স।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ইসরাইলী বিমান হামলায় হিজবুল্লাহ নেতা নিহত
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ