Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৯, ০১ কার্তিক ১৪২৬, ১৬ সফর ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

খালেদা জিয়ার জামিন আদালতের হাতে নেই -আলোচনা সভায় ব্যারিস্টার মওদুদ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১২:০৩ এএম

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি আদালত কিংবা আইনজীবীদের হাতে নেই বলে মন্তব্য করেছেন দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ। তিনি বলেন, বেগম খালেদা জিয়ার জামিনের জন্য আমাদের আইনজীবীরা অনেক চেষ্টা করেছেন। তারা যতটুকু করা দরকার তারা সবকিছু করেছেন। কিন্তু এটা আইনজীবীদের হাতে নেই, এমনকি আদালতের হাতেও নেই। এটা চলে গেছে সরকারের হাতে। সরকার যদি রাজনৈতিক হস্তক্ষেপ বন্ধ করে তা হলে আগামী ৭ দিনের বেগম খালেদা জিয়া মুক্ত হয়ে আমাদের সামনে আসতে পারেন। সুতরাং এটা সরকারের ইচ্ছার ওপর নির্ভর করছে। এজন্য বেগম জিয়ার মুক্তি আন্দোলন ছাড়া অন্য কোন বিকল্প পথ নাই। গতকাল (বৃহস্পতিবার) সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির মিলনায়তনে জাতীয় আইনজীবী ঐক্যফ্রন্টের উদ্যোগে বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে করণীয়’ শীর্ষক এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।
ব্যারিস্টার মওদুদ বলেন, বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি আন্দোলন ছাড়া অন্য কোনো বিকল্প নাই। এটা আমাদের গ্রহণ করতে হবে। যেহেতু আদালতের মাধ্যমে সম্ভবপর হচ্ছে না, সেজন্য আন্দোলন আমাদের করতেই হবে। বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি নিশ্চিত করার জন্য আমাদের সকলের কর্তব্য হয়ে দাঁড়িয়েছে- সেটা হলো এই যে, আমাদের সকলকে সংঘবদ্ধ হয়ে সুশৃঙ্খলভাবে একটা আন্দোলনের কর্মসূচি আমরা রচনা করব। সেই কর্মসূচি সফল করার জন্য যা কিছু প্রয়োজন আমরা সবাই যেন করি। এব্যাপারে আমরা ঐক্যবদ্ধ থাকি।
ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার বলেন, বেগম খালেদা জিয়া আইনের মাধ্যমে কতটুকু মুক্তি পাবেন আমি বুঝতে পারি না। আমরা অ্যাডভোকেট বেআইনি কাজও করতে পারি না। বেআইনি হবে না আবার আইনের লঙ্ঘনও হবে এর মাঝামাঝি একটা পথ যদি বের করে জোরালোভাবে আমরা ফাইট করতে পারি তা হলেই বেগম জিয়ার মুক্তি হবে বলে আমরা ধারণা।
অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী বলেন, জামিনের ব্যাপারে কোট-কাঁচারী কুক্ষিগত করে রেখেছে। আইনি লড়াই করে এই সরকারের অধীনে কিছু করতে পারবেন বলে আমরা মনে হয় না। আমাদের আন্দোলন-সংগ্রাম ছাড়া কোনো মুক্তি নাই, বেগম খালেদা জিয়ারও মুক্তি আসবে না, ১৬ কোটি মানুষের মুক্তি আসবে না। গণআন্দোলন করতে হবে, গণঅভ্যুত্থান করতে হবে। বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি একমাত্র গণআন্দোলনেই সম্বব। আমি চাই, প্রতিদিন আন্দোলন হবে, প্রতি সাপ্তাহে আন্দোলন হবে, প্রতি মাসে আন্দোলন হবে। আসুন, সেই আন্দোলন করে আমাদের বিজয় ছিনিয়ে আনতে হবে।
সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি ও ফ্রন্টের আহবায়ক অ্যাডভোকেট জয়নাল আবেদীনের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় সিনিয়র আইনজীবী আমিনুল হক, মাহবুবউদ্দিন খোকন, সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, গিয়াসউদ্দিন, জগলুল হায়দার আফ্রিক, মাসুদ আহমেদ তালুকদার, গোলাম মোস্তফা খান, আজাদ মাহবুব, শাহ আহমেদ বাদল, বদরুদ্দোজা বাদল, অলিউর রহমান খান, খোরশেদ মিয়া আলম, রফিকুল ইসলাম মেহেদী, মনির হোসেন, সাইফুর রহমান, মাজেদুল ইসলাম পাটোয়ারি উজ্জ্বল প্রমূখ বক্তব্য রাখেন। আলোচনা সভায় পর ঢাকা আইনজীবী সমিতির আসন্ন নির্বাচনে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্যজোটের সভাপতি প্রার্থী ইকবাল হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী হোসেন আলী খান হোসেনের নেতৃত্বে নীল প্যানেলের সদস্যদের পরিচয় করিয়ে দেন সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি। আগামী ২৭ ও ২৮ ফেব্রæয়ারি ঢাকা আইনজীবী সমিতির নির্বাচন হবে।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ব্যারিস্টার মওদুদ


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ