Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ১৫ আগস্ট ২০২০, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৭, ২৪ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

সম্মিলিত বইমেলা চট্টগ্রামবাসীর আকাক্সক্ষা

সংবাদ সম্মেলনে মেয়র নাছির

চট্টগ্রাম ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

ভাষার মাসে সম্মিলিত বই মেলার আয়োজন করে চট্টগ্রামবাসীর দীর্ঘ কালের আকাঙ্খা পুরণ করা হচ্ছে জানিয়ে সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেছেন, এই মেলায় ইতিহাস-ঐতিহ্য, সাংস্কৃতির সম্মিলন ঘটবে। গতকাল শুক্রবার বিকেলে অমর একুশে বইমেলা প্রাঙ্গণ নগরীর এমএ আজিজ স্টেডিয়ামের সিজেকেএস জিমনেশিয়াম মাঠে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি একথা বলেন। আগামীকাল রোববার ১৯দিনব্যাপী এই বইমেলা শুরু হবে। মেলার উদ্বোধন করবেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। সংবাদ সম্মেলনে একুশে বই মেলা পরিচালনা পরিষদের আহবায়ক কাউন্সিলর নাজমুল হক ডিউক, সৃজনশীল প্রকাশক পরিষদের সভাপতি মহিউদ্দিন শাহ আলম নিপু ও সাধারণ সম্পাদক জামাল উদ্দিন, মেলা পরিচালনা কমিটির সচিব চসিক প্রধান শিক্ষা কর্মকর্তা সুমন বড়য়া, কাউন্সিলর হাসান মুরাদ বিপ্লবসহ লেখক ও প্রকাশকগণ উপস্থিত ছিলেন। মেয়র বলেন, সম্মিলিতভাবে চট্টগ্রামে একটি বইমেলা করার তাগিদ ছিল। এই কারণে বিপ্লবের তীর্থভূমি বীর চট্টগ্রামে জ্ঞান ও মননের আকাঙ্খা পূরণে সিটি কর্পোরেশনের উদ্যোগে চট্টগ্রাম সৃজনশীল প্রকাশক পরিষদ, নাগরিক সমাজ, মুক্তিযোদ্ধা, লেখক, সংবাদিক, শিক্ষাবিদ ও সাহিত্য-সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দের সহযোগিতায় ঢাকা ও চট্টগ্রামের সৃজনশীল প্রকাশকদের অংশগ্রহণে এই মেলার আয়োজন করা হয়েছে। চট্টগ্রামে বৃহত্তর পরিসর ও প্রকাশকদের সমন্বয়ে আর কোন সময় এমন বই মেলা হয়নি।
মেয়র বলেন, মেলার সার্বিক প্রস্তুতি ইতোমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে। ৮০ হাজার ৩০০ বর্গফুটে মেলায় স্টল সংখ্যা ১২২টি। ঢাকার ৬৫টি এবং চট্টগ্রামের ৫৫ প্রকাশক মেলায় অংশ নিচ্ছে। ১০ থেকে ২৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত একুশের বই মেলা প্রতিদিন বিকেল ৩ টা থেকে রাত ৯ টা ও ছুটির দিন সকাল ১০ টা থেকে রাত ৯ টা পর্যন্ত সবার জন্য উম্মুক্ত থাকবে। মেয়র বলেন, মেলায় সঙ্গীতানুষ্ঠান, রবীন্দ্র ও নজরুল উৎসব, বসন্ত বরণ উৎসব, ভালোবাসা দিবস, রম্য বির্তক, পাঠক সমাবেশ, সাহিত্য আড্ডা, বির্তক-সাহিত্য-ইতিহাস-ঐতিহ্য ও মুক্তিযুদ্ধ বিষক কুইজ প্রতিযোগিতা রবীন্দ্র-নজরুল-লোক সংগীত, সাধারণ নৃত্য, লোক নৃত্য, আবৃত্তি, হামদ-নাত, উপস্থিত বক্তৃতা, দেশের গান, চিত্রাংকন ও রচনা প্রতিযোগিতা রয়েছে।
জাতীয় জীবনে যেসব ব্যক্তি কৃতিত্বপূর্ণ অবদান রেখেছেন তাদের একুশে স্মারক সম্মাননা পদক ও সাহিত্য পুরস্কার প্রদান করা হবে। মেয়র বলেন আমাদের ছেলে-মেয়েরা আজকাল মোবাইলে ও মাদকে আসক্ত হয়ে পড়েছে। সময়, অর্থ, স্বাস্থ্য সবই শেষ করছে এর পেছনে। এতে তারা প্রকৃত শিক্ষা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। বই-ই অন্যতম বন্ধু যা তাদেরকে মোবাইল ও মাদকের ভয়াল আসক্তি থেকে বের করে সৃজনশীল, সমৃদ্ধ ও আলোকিত মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে সহায়তা করবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ