Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১১ ফাল্গুন ১৪২৫, ১৭ জামাদিউস সানি ১৪৪০ হিজরী।

কিশোরকে বলাৎকার: ফায়ারিং স্কোয়াডে দুই যুবকের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১০:৩৫ এএম

১২ বছর বয়সী কিশোর মোহাম্মদ স্বাদকে বলাৎকার শেষে হত্যার অভিযোগে দুই যুবককে ফায়ারিং স্কোয়াডে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়েছে। ইয়েমেনের রাজধানীতে একটি স্টেডিয়ামে কয়েক শত মানুষ। না, কোনো খেলা দেখতে নয়। ভয়াবহ এক ঘটনা প্রত্যক্ষ করতে তারা উপস্থিত হয়েছেন। তাদের সামনে হাজির করা হলো দুই যুবককে। তাদের হাত পিছন দিকে বাঁধা। নীল শার্ট ও ট্রাউজার পরা তারা। মাটিতে বিছানা বিছানার চাদরের মতো একটা কিছুর ওপর তাদেরকে উপর করে শুইয়ে দেয়া হলো। পাশে দাঁড়ানো অস্ত্রহাতে আরো কয়েকজন যুবক।

তারা ওই দুই যুবকের পিঠ বরাবর উঠে এলেন। অস্ত্র তাক করলেন ওই দুই যুবকের পিঠে। গর্জে উঠল অস্ত্র। রক্তে ভেসে গেল মাটি। মারা গেল ওই দুই যুবক। হ্যাঁ, প্রকাশ্যে এভাবেই ফায়ারিং স্কোয়াডে হত্যা করা হয়েছে দুই যুবক ওয়াদাহ রেফাত (২৮) ও মোহাম্মদ খালেদ (৩১) কে।

অভিযোগ তারা ১২ বছর বয়সী একটি বালক মোহাম্মদ স্বাদকে বলাৎকার শেষে হত্যা করেছে। এ অভিযোগে তাদের বিরুদ্ধে ফায়ারিং স্কোয়াডে মৃত্যুদণ্ডের নির্দেশ দেয়া হয়। গত বছর মে মাসে তারা ওই বালকটির সঙ্গে অনৈতিক কাজ করে। ওই বালকটি রেফাত ও খালেদের একজনের বাড়ির কাছেই খেলছিল ঘটনার সময়। তখন তাকে তাদের একজন একটি ভবনের ভিতর নিয়ে যায় টেনে হিঁচড়ে। সেখানে তার ওপর যৌন নির্যাতন চালায়। এক পর্যায়ে স্বাদ সাহায্যের জন্য কান্না শুরু করে। এ সময় ওই দুই যুবকের একজন একটি ছুরি নিয়ে যায় এবং স্বাদের গলা কেটে ফেলে। নিহত স্বাদের মৃতদেহ লুকিয়ে ফেলায় সাহায্য করার জন্য অভিযুক্তদের এক আত্মীয়া (৩৩) কেও মৃত্যুদন্ড দেয়া হয়েছে। কিন্তু তিনি অন্তঃসত্ত্বা হওয়ায় তার মৃত্যুদণ্ড স্থগিত করা হয়েছে।



 

Show all comments
  • আবু জাহের ৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১১:৫২ পিএম says : 0
    এটাই প্রাপ্য ছিল তারা......
    Total Reply(0) Reply
  • Abdus Salam ৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১২:০৬ পিএম says : 0
    Protiti onoytik oporader Islamic ain onuzae kora dorker . tahole kuno onnaikari orokom grinno kaz korte shahos pabena.
    Total Reply(0) Reply
  • jack ali ৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ৩:১৯ পিএম says : 0
    We must do it in our stadium so that all the rape --eve-teasing will stop fore ever....All the rape is happening due to our Lewd government///==--
    Total Reply(0) Reply
  • shahin alam ১১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ৯:০৬ পিএম says : 0
    উচিত বিচারটাই হয়েছে
    Total Reply(0) Reply
  • Mohammad Sultan ১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ৬:২৫ এএম says : 0
    Aj Jodi Islamic rules hoto sokhane, tahole crime onek komey jeto
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মৃত্যুদণ্ড


আরও
আরও পড়ুন