Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার ২৫ এপ্রিল ২০১৯, ১২ বৈশাখ ১৪২৬, ১৮ শাবান ১৪৪০ হিজরী।

বাকপ্রতিবন্ধী কিশোরীকে গণধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার ৪

ঝিনাইদহ জেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ১০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১২:০২ এএম

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে এক বাক প্রতিবন্ধী কিশোরীকে গণধর্ষণে অভিযোগে গতকাল চার ধর্ষককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃতরা হলো বালিয়াডাঙ্গা গ্রামের আব্দুর রহমানের ছেলে সেলিম পাটোয়ারী, বানুড়িয়া গ্রামের হায়দার আলীর ছেলে সাঈদ হোসন, নুর আলীর ছেলে রাকিব হোসেন এবং লাল চাঁদের ছেলে আশিক। খবর পেয়ে গতকাল বিকালে ঝিনাইদহ পুলিশ সুপার হাসানুজ্জামান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। আর ঘটনাটি ঘটে গত বুধবার রাতে ত্রিলোচনপুর ইউনিয়নের বানুড়িয়া গ্রামে। কিন্তু সংখ্যালঘু পরিবার হওয়ায় ৩ দিন পর বিষয়টি ফাঁস হয়ে পড়ে।
প্রতিবেশি শফি উদ্দীনের স্ত্রী সবুরা বেগম ও ভোলানাথের স্ত্রী কল্পনা রাণী জানান, ঘটনার রাতে আমরা ধর্ষিতাদের বাড়িতেই টেলিভিশন দেখছিলাম। এসময় সে ঘরের বারান্দায় বসে খাবার খাচ্ছিল। কিছুক্ষণ পরে তাকে বাড়িতে না পেয়ে খোঁজাখুজি শুরু করা হয়। ঘণ্টাখানেক পর পাশের একটি বাগানে পোশাকবিহীন অবস্থায় উদ্ধার করে বাড়িতে আনা হয়। ধর্ষিতার বাবা সদানন্দ ওরফে স্বপন জানান, ঘটনার পর থেকে ধর্ষণকারীরা আমাকে এবং আমার পরিবারকে হুমকি ধামকি দিয়ে আসছিল ঘটনাটি কাউকে না বলার জন্য। গত শুক্রবার রাতে ধর্ষক সাঈদ আমাকে ফোনে মেরে ফেলার হুমকি দেয়। এরপর আমি স্থানীয় জনপ্রতিনিধির মাধ্যমে কালীগঞ্জ পুলিশকে বিষয়টি জানায়। কালীগঞ্জ থানার ওসি ইউনুচ আলী ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, ঘটনার সাথে জড়িত ৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তিনি আরো জানান, এসময় ধর্ষণের সিকার কিশোরীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম ছানা ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ