Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ২২ মার্চ ২০১৯, ০৮ চৈত্র ১৪২৫, ১৪ রজব ১৪৪০ হিজরী।

‘জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবেলায় সক্ষমতা বৃদ্ধির প্রয়োজন’

স্টাফ রিপোর্টার : | প্রকাশের সময় : ১১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবেলায় অভ্যন্তরীণ সক্ষমতা বৃদ্ধির তাগিদ দিয়েছেন জলবায়ু বিশেষজ্ঞরা। গতকাল রোববার ঢাকার পিকেএসএফ ভবনে আয়োজিত ‘এসডিজি ১৩: জলবায়ু কার্যক্রম’ বিষয়ক এক সেমিনারে বক্তারা এ অভিমত ব্যক্ত করেন।

বাংলাদেশে ২০৩০ টেকসই উন্নয়ন কর্মসূচি বাস্তবায়ন জোরদারকরণ শীর্ষক প্ল্যাটফর্ম আয়োজিত সেমিনারে সভাপতিত্ব করেন পিকেএসএফ চেয়ারম্যান ড. কাজী খলীকুজ্জমান আহমদ। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন পরিবেশ ও বনমন্ত্রী মোহাম্মদ শাহাব উদ্দিন। পিকেএসএফের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ আবদুল করিম অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন।

পরিবেশ ও বনমন্ত্রী বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবেলায় অভ্যন্তরীণ সক্ষমতা বৃদ্ধির জন্য সংশ্লিষ্ট সকলকেই এগিয়ে আসতে হবে। কাউকে বাদ দিয়ে নয়, টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট (এসডিজি)-এই মূলমন্ত্রকে ধারণ করে জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলায় সরকার সরাসরি কাজ করছে। ২০৩০ সালের মধ্যে সকল অভীষ্ট অর্জনের লক্ষ্যে সমন্বিতভাবে এগিয়ে আসতে হবে বলে জানান তিনি।

পিকেএসএফ চেয়ারম্যান বলেন, টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট অর্জনের জন্য সুপরিকল্পিত উদ্যোগ গ্রহণ, অভ্যন্তরীণ সম্পদের যথাযথ ব্যবহার নিশ্চিত ও স্থানীয় পর্যায়ে তা সুষ্ঠুভাবে বাস্তবায়ন করতে হবে। পাশাপাশি এসব কাজের জন্য দক্ষ জনবল গড়ে তোলা, যথাযথ সমন্বয় এবং নিরবচ্ছিন্ন তদারকি গুরুত্বপূর্ণ বলে উল্লেখ করেন তিনি।

সেমিনারে ‘টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট ১৩ : জলবায়ু পরিবর্তন ও এর প্রভাব মোকাবিলায় জরুরি কর্মব্যবস্থা গ্রহণ’ শীর্ষক প্রবন্ধ উপস্থাপনা করেন পরিবেশ অধিদফতরের মহাপরিচালক ড. সুলতান আহমেদ।

অনুষ্ঠানে প্যানেল আলোচনায় অংশ নেন বাংলাদেশ উন্নয়ন গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (বিআইডিএস) সাবেক পরিচালক (গবেষণা) ড. আসাদুজ্জামান এবং মুক্ত আলোচনা পর্বে সরকারের বিভিন্ন সংস্থাসহ বিভিন্ন উন্নয়ন সহযোগী প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা অংশ নেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন